বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০১:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আর্জেন্টিনার আদালতে সু চির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কে বিআরটিসি বাস চালুর দাবি সম্মেলনকে সামনে রেখে জগন্নাথপুরে আ.লীগের কার্যকরী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে দুইটি সরকারি ইজারাকৃত জলাশয় থেকে মাছ শিকারের অভিযোগ জগন্নাথপুরে পরীক্ষা কেন্দ্রে মুঠোফোন রাখার দায়ে শিক্ষক বহিষ্কার জগন্নাথপুরে জুয়া খেলার দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত চারজন কারাগারে ২৫ জনকে আসামি করে আবরার হত্যার চার্জশিট আ’লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: কাদের আনন্দবাজার-এর বিশ্লেষণ মুসলিমরা ক্ষমতাহীন হয়ে পড়ছে ভারতে?

বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জে পাউবো অফিস ঘেরাও

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৩৮ Time View

স্টাফ রিপোর্টার :: ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও, কৃষক বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আগামীকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় সুনামগঞ্জ শহরের আলফাত স্কয়ারে কৃষক-জনতার সমাবেশ ও পাউবো অফিস ঘেরাও কর্মসূচির ডাক দেয়া হয়েছে।
গত ৪ এপ্রিল মঙ্গলবার সামাজিক সংগঠন ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন’-এর উদ্যোগে এই কর্মসূচির ডাক দেয়া হয়। কৃষক-জনতার সমাবেশ ও সুনামগঞ্জ পাউবো অফিস ঘেরাও কর্মসূটি সফল করতে ইতোমধ্যে জেলার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথ সভা করেছেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন-এর সদস্য সচিব বিন্দু তালুকদার বলেন,‘ বোরো ফসল হারিয়ে সুনামগঞ্জের লাখ লাখ কৃষক পরিবারে চলছে আহাজারি-হাহাকার। এ রকম মহাদুযোর্গে সুনামগঞ্জের মানুষ কখনো পড়েনি। কখনো এভাবে কাঁচা ধান হারাতে হয়নি সুনামগঞ্জের কৃষকদের। একের পর এক হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ ভেঙে জেলার প্রায় ৯০ভাগ বোরো ধান তলিয়ে গেছে। ফসলহারা মানুষ এখন দিশেহারা ও নিঃস্ব। ফসলরক্ষা বাঁধ নিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড, ঠিকাদার ও পিআইসির লোকজন লাখ লাখ কৃষকের সঙ্গে তামাসা করেছে। তাদের গাফিলতি ও দুর্নীতির কারণেই কৃষকদের স্বপ্ন ভেসে গেছে ঢলের পানিতে। আমরা হাওরের ফসলরক্ষা বাঁেধর কাজে নিয়োজিত পানি উন্নয়ন বোর্ডের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা, ঠিকাদারসহ সংশ্লিষ্টদের বিচার চাই। আমাদের দাবি অবিলম্বে সুনামগঞ্জকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য রেশনিং কার্ড চালু এবং সারা বছর খোলা বাজারে সরকারের উদ্যোগে চাল ও আটা বিক্রির ব্যবস্থা করতে হবে। কৃষি ঋণ মওকুফ করতে হবে। হাওরের ভাসান পানিতে আগামি এক বছর ফসলহারা কৃষকদের মাছ ধরার সুযোগ দিতে হবে। আগামি ফসল লাগানোর আগে কৃষকদের সার ও বীজের ব্যবস্থা করতে হবে। বাঁধ নির্মাণে লুটপাটের সঙ্গে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও শাস্তির আওতায় আনতে হবে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24