1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
ভারতে ভারী বৃষ্টিতে শিশুসহ ১৮ জনের মৃত্যু - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন

ভারতে ভারী বৃষ্টিতে শিশুসহ ১৮ জনের মৃত্যু

  • Update Time : বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০২২
  • ৩৮৩ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:::

ভারতে ভারী বৃষ্টি ও বৃষ্টি-সম্পর্কিত ঘটনায় দেশটির মহারাষ্ট্র, গুজরাট এবং মধ্যপ্রদেশে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। এছাড়া মঙ্গলবার (১২ জুলাই) এই রাজ্যগুলোতে অব্যাহত ভারী বৃষ্টির মধ্যে হাজার হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি অনেককে আশ্রয়কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।

বুধবার (১৩ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রবল বাতাসের সাথে তীব্র বৃষ্টি মুম্বাই এবং শহরতলিতে আছড়ে পড়েছে এবং কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই শহরের অনেক অংশ প্লাবিত হয়েছে। কিছু জায়গায় রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, মধ্যপ্রদেশের আগর মালওয়া জেলায় বৃষ্টির মধ্যে বজ্রপাতে তিন শিশু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও চারজন। এছাড়া গুজরাটের বিস্তৃত এলাকায় ভারী বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে এবং গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে বৃষ্টি-সম্পর্কিত ঘটনায় ছয়জন প্রাণ হারিয়েছেন। এতে করে গত ১ জুন থেকে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৯ জনে।

গুজরাটের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী রাজেন্দ্র ত্রিবেদী জানিয়েছেন, বৃষ্টি ও বন্যাকবলিত এলাকা থেকে প্রায় ২৮ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এবং তাদের মধ্যে ১৮ হাজার ২২৫ জন আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। এছাড়া অন্যরা বাড়িতে ফিরে গেছেন।

এছাড়া মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন অংশে প্রবল বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। বৃষ্টিজনিত নানা ঘটনায় রাজ্যটিতে তিন শিশুসহ অন্তত নয় জন মারা গেছেন। একইসঙ্গে আরও ৯৫ জনকে প্লাবিত স্থান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স (এনডিআরএফ) এর ১৩ টি দল এবং রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর তিনটি দল রাজ্যের ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আবহাওয়া বিভাগ আগামী তিন দিনের জন্য নাসিক, পালঘর এবং পুনে জেলার বিভিন্ন জায়গায় অত্যন্ত ভারী বৃষ্টির আশঙ্কায় লাল সতর্কতা জারি করেছে।

ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে নাসিক শহরে স্কুল ও কলেজ বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সেখানকার বন্যাপ্রবণ এলাকার লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরে যেতে বলা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নাসিক শহরে ৯৭.৪ মিমি বৃষ্টিপাত হয়েছে।

এদিকে মুম্বাইয়ের শহরতলিতে একটি অবকাঠামো ধসে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এছাড়া পূর্ব মহারাষ্ট্রের গাদচিরোলি জেলায় এক ব্যক্তি পানিতে ডুবে গেছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

মঙ্গলবার রাজ্যের নাগপুর জেলায় বৃষ্টির মধ্যে একটি প্লাবিত সেতু থেকে তাদের যানবাহন ভেসে যাওয়ার পরে মধ্যপ্রদেশের তিন বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছে এবং আরও অনেকে নিখোঁজ রয়েছে। নিহতরা মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলার বাসিন্দা।

এছাড়া মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের পুনে জেলার চাকান এলাকায় পানিভর্তি গর্তে ডুবে তিন নাবালক ভাইবোনের মৃত্যু হয়েছে। চার থেকে আট বছর বয়সী এসব শিশু তাদের বাড়ির পাশের এক কৃষকের খনন করা গর্তে গোসল করার সময় ডুবে যায়। মূলত বৃষ্টির কারণে ওই গর্তে পানি জমে ছিল।

অন্যদিকে পুনে শহরের একটি জরাজীর্ণ আবাসিক কাঠামোর একটি অংশ ধসে পড়ে চারজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা গুরুতর।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com