‘মহানবী (সা:) এর যুগেই বাংলাদেশে ইসলাম প্রচার’

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

ড. মোহাম্মদ হাননান বাংলাদেশের হাতে গোনা কয়েকজন শ্রেষ্ঠ গবেষকের একজন। বাংলাদেশে যাঁরা ইসলাম নিয়ে গবেষণা করেন ও লেখালেখি করেন, ড. হাননানের স্থান সবার ওপরে।
এর পাশাপাশি ড. হাননান বাংলাদেশের ইতিহাসের সাক্ষী। গবেষণায় বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরে তাঁর প্রভূত সুনাম রয়েছে। ‘বাংলাদেশের ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস’ (১০ খণ্ড), ‘বাঙালির ইতিহাস’, ‘মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস’, ‘বাঙালি মুসলমানের নাম ও পদবী’, ‘শতাব্দীর বাংলাদেশ’, ‘সহস্রাব্দের বাংলাদেশ’, ‘ফতোয়ার ইতিহাস’, ‘বাংলাদেশের সামরিক ইতিহাস’, ‘হাজার বছরের বাংলাদেশ : ইতিহাসের অ্যালবাম’ ইত্যাদি গ্রন্থের মধ্য দিয়ে তিনি লেখালেখি ও গবেষণায় তাঁর নাম সমুজ্জ-ল রেখেছেন। হুমায়ূন আহমেদের ‘ধর্মচিন্তা’ও তাঁর লেখা।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও সামাজিক এমন বিষয়ের সংখ্যা কম, যে বিষয়ে তিনি লেখেননি।

বছর ধরে ধরে দিন গুনে গুনে তিনি বাংলাদেশের রাজনৈতিক দিনলিপি রচনা করেছেন।

তাঁর প্রতিটি লেখা গবেষণালব্ধ এবং চিন্তার নতুন দুয়ার উন্মোচনকারী।

বাংলা ভাষায় কোরআন অনুবাদের জটিলতা নিয়ে তিনি একটি বই লিখেছেন। বইটি যেকোনো আলেমের বিবেককেও নাড়া দিতে বাধ্য। ভাই গিরিশচন্দ্র সেন অনূদিত ‘আদি বাংলা কোরআন শরিফ’-এর পাঠোদ্ধার করেছেন তিনি। ভাই গিরিশের বাজারে পাওয়া যাওয়া অনুবাদ মূল অনুবাদ নয়। তিনিই মূল পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করে প্রকাশ করেছেন। বাংলা ভাষায় প্রথম কোরআনের অনুবাদক কে—এটা নিয়ে বহু বিতর্ক আছে। এ বিষয়ে ড. হাননান ওই গ্রন্থের ভূমিকায় এক ঐতিহাসিক সমীক্ষা এনে প্রমাণ করেছেন যে মধ্যযুগেই বাংলা ভাষায় কোরআন অনুবাদের কাজ শুরু হয়।

ড. হাননানের ১০০তম বইয়ের নাম ‘বামপন্থীদের পরিচয় সংকট’। গবেষণায় তিনি দেখিয়েছেন, বামপন্থী শব্দটা লেনিন ও কার্ল মার্ক্স পছন্দ করতেন না। তাঁরা ছিলেন তখন গুটিকয়েক সংস্কারবাদী; কিন্তু বাংলাদেশে বামদের মূল পরিচয়ই হয়ে গেছে বামপন্থী!

সর্বশেষ ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে প্রকাশিত হয়েছে তাঁর অমর কীর্তি ‘প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন’। প্রায় তিন বছর ধরে এ বিষয়ে তিনি কাজ করেছেন। চলতি বইমেলায় বইটি ‘বিশ্বসাহিত্য ভবন’ (স্টল নম্বর ৫০৪-৫০৭) প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে। এই বইয়ে তিনি দেখিয়েছেন, বাংলাদেশে রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর যুগেই ইসলাম প্রচার হয়েছে। ঘটনাটি বখতিয়ার খলজির বাংলা অভিযানের পাঁচ শ বছর আগের। এ বইয়ে তিনি সেসব সাহাবির তালিকা দিয়েছেন, যাঁরা বাংলাদেশে এসেছেন। প্রাচীন আমলে আরব বণিকদের কর্মকাণ্ড, তাঁদের কবর, তাঁদের পরিণতি ইত্যাদি বিষয়ে ঐতিহাসিক তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেছেন। বইটি প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন সম্পর্কে কী ধরনের তথ্য সরবরাহ করেছে, তার একটি নমুনা পাওয়া যায় সূচিপত্রের দিকে তাকালে। এখানে শুধু প্রথম খণ্ডের সূচিপত্র থেকে কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করা হলো—

প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন : কয়েকটি অভিমত, অনুমান ও অনুসন্ধান, ইসলাম কেন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল, মুহাম্মদ (সা.)-এর হাতে সরাসরি বাইয়াত হওয়া উপমহাদেশের মুসলিম, ভারত-বাংলাদেশে আগমনকারী সাহাবা, প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন : ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গবেষণা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও এশিয়াটিক সোসাইটির গবেষণা, ইসলাম প্রচারে নদী ও সমুদ্র সফর, ইসলাম প্রচারের জন্য ভাষা ও জ্যোতির্বিদ্যা শিক্ষা, আরব বাণিজ্য-অভিযাত্রা ও ইসলাম, প্রাচীন বাংলায় ইসলাম, ব্রাহ্মণ্যবাদ ও বণিক সমাজ, সত্যেন সেনের বর্ণনায় আরবদের সমুদ্র বাণিজ্য, ইতিহাস রচনার প্রথম যুুগে মুসলিমবিদ্বেষ, উইলিয়াম হান্টারের ‘অদম্য ধর্ম প্রচারক’ আবিষ্কার, প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন বিষয়ে ড.

আকবর আলি খানের নতুন তত্ত্ব, ভারত-বাংলায় ইসলাম প্রসঙ্গে কমিউনিস্টদের মূল্যায়ন, বাংলায় আগমনকারী প্রথম সাহাবা আবু ওয়াককাস (রা.)-এর বৃত্তান্ত, ভারত-বাংলাদেশে আগমনকারী সাহাবিদের তালিকা, বাংলায় প্রথম যুগে আগমনকারী ইসলাম প্রচারক, আদি মধ্যযুগে বাংলায় আসা ধর্মপ্রচারক পীর-দরবেশ, সাহাবা (রা.)-দের পরে আগমনকারী ইসলাম প্রচারকদের বিবরণ ইত্যাদি। এসব বিষয় ছাড়াও মুগ্ধকর বহু বিষয়ের অবতরণা করেছেন বিজ্ঞ লেখক।

মোট কথা বাংলাদেশে ইসলামের আগমন নিয়ে কে কী লিখেছেন, সব তথ্য তিনি এক জায়গায় জমা করেছেন। পাশাপাশি নিজস্ব গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেছেন। বইটি শুধু ইসলামী চেতনা লালনকারী মানুষের জন্য নয়, বইটি এক নতুন সত্য প্রতিষ্ঠা করতে চায়, বইটি বলতে চায় যে মহানবী (সা.)-এর যুগেই এ দেশে ইসলাম প্রচার হয়েছে। এই সত্য প্রতিষ্ঠিত হলে বাংলাদেশে ইসলামের আগমনের ইতিহাস নতুনভাবে লিখতে হবে। রয়েল সাইজের তিন খণ্ডের বইটির দাম ২১০০ টাকা রাখা হলেও বইমেলায় ২৫ শতাংশ ডিসকাউন্টে বিক্রি করা হচ্ছে। এ ছাড়া রকমারি ডটকম থেকে বইটির জন্য অর্ডার করা যায়।
সৌজন্যে কালের কণ্ঠ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» আসসালামু আলাইকুম বলে পার্লামেন্টে বক্তব্য দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

» সুনামগঞ্জে ছুরিকাঘাতে আ.লীগ নেতা খুন, আটক-৩

» আ.লীগের দু’পক্ষের গোলগুলি, নিহত ২

» ওসির বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবী’র অভিয়োগ আ.লীগ প্রার্থীর

» জগন্নাথপুরে ছাত্রলীগের উদ্যোগে যুক্তরাজ্য আ.লীগ নেতাকে সংবর্ধনা

» বালাগঞ্জে নৌকার প্রার্থী মফুর নির্বাচিত

» নেদারল্যান্ডসে যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১

» রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাসহ নিহত ৫

» জগন্নাথপুরে ‘বাঁধা’ দেয়ায় হাওরের সড়কের কাজ বন্ধ

» জগন্নাথপুরে সড়ক থেকে মাইক্রোবাস দোকানে, আহত ৩

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

‘মহানবী (সা:) এর যুগেই বাংলাদেশে ইসলাম প্রচার’

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

ড. মোহাম্মদ হাননান বাংলাদেশের হাতে গোনা কয়েকজন শ্রেষ্ঠ গবেষকের একজন। বাংলাদেশে যাঁরা ইসলাম নিয়ে গবেষণা করেন ও লেখালেখি করেন, ড. হাননানের স্থান সবার ওপরে।
এর পাশাপাশি ড. হাননান বাংলাদেশের ইতিহাসের সাক্ষী। গবেষণায় বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরে তাঁর প্রভূত সুনাম রয়েছে। ‘বাংলাদেশের ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস’ (১০ খণ্ড), ‘বাঙালির ইতিহাস’, ‘মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস’, ‘বাঙালি মুসলমানের নাম ও পদবী’, ‘শতাব্দীর বাংলাদেশ’, ‘সহস্রাব্দের বাংলাদেশ’, ‘ফতোয়ার ইতিহাস’, ‘বাংলাদেশের সামরিক ইতিহাস’, ‘হাজার বছরের বাংলাদেশ : ইতিহাসের অ্যালবাম’ ইত্যাদি গ্রন্থের মধ্য দিয়ে তিনি লেখালেখি ও গবেষণায় তাঁর নাম সমুজ্জ-ল রেখেছেন। হুমায়ূন আহমেদের ‘ধর্মচিন্তা’ও তাঁর লেখা।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও সামাজিক এমন বিষয়ের সংখ্যা কম, যে বিষয়ে তিনি লেখেননি।

বছর ধরে ধরে দিন গুনে গুনে তিনি বাংলাদেশের রাজনৈতিক দিনলিপি রচনা করেছেন।

তাঁর প্রতিটি লেখা গবেষণালব্ধ এবং চিন্তার নতুন দুয়ার উন্মোচনকারী।

বাংলা ভাষায় কোরআন অনুবাদের জটিলতা নিয়ে তিনি একটি বই লিখেছেন। বইটি যেকোনো আলেমের বিবেককেও নাড়া দিতে বাধ্য। ভাই গিরিশচন্দ্র সেন অনূদিত ‘আদি বাংলা কোরআন শরিফ’-এর পাঠোদ্ধার করেছেন তিনি। ভাই গিরিশের বাজারে পাওয়া যাওয়া অনুবাদ মূল অনুবাদ নয়। তিনিই মূল পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করে প্রকাশ করেছেন। বাংলা ভাষায় প্রথম কোরআনের অনুবাদক কে—এটা নিয়ে বহু বিতর্ক আছে। এ বিষয়ে ড. হাননান ওই গ্রন্থের ভূমিকায় এক ঐতিহাসিক সমীক্ষা এনে প্রমাণ করেছেন যে মধ্যযুগেই বাংলা ভাষায় কোরআন অনুবাদের কাজ শুরু হয়।

ড. হাননানের ১০০তম বইয়ের নাম ‘বামপন্থীদের পরিচয় সংকট’। গবেষণায় তিনি দেখিয়েছেন, বামপন্থী শব্দটা লেনিন ও কার্ল মার্ক্স পছন্দ করতেন না। তাঁরা ছিলেন তখন গুটিকয়েক সংস্কারবাদী; কিন্তু বাংলাদেশে বামদের মূল পরিচয়ই হয়ে গেছে বামপন্থী!

সর্বশেষ ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে প্রকাশিত হয়েছে তাঁর অমর কীর্তি ‘প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন’। প্রায় তিন বছর ধরে এ বিষয়ে তিনি কাজ করেছেন। চলতি বইমেলায় বইটি ‘বিশ্বসাহিত্য ভবন’ (স্টল নম্বর ৫০৪-৫০৭) প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে। এই বইয়ে তিনি দেখিয়েছেন, বাংলাদেশে রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর যুগেই ইসলাম প্রচার হয়েছে। ঘটনাটি বখতিয়ার খলজির বাংলা অভিযানের পাঁচ শ বছর আগের। এ বইয়ে তিনি সেসব সাহাবির তালিকা দিয়েছেন, যাঁরা বাংলাদেশে এসেছেন। প্রাচীন আমলে আরব বণিকদের কর্মকাণ্ড, তাঁদের কবর, তাঁদের পরিণতি ইত্যাদি বিষয়ে ঐতিহাসিক তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেছেন। বইটি প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন সম্পর্কে কী ধরনের তথ্য সরবরাহ করেছে, তার একটি নমুনা পাওয়া যায় সূচিপত্রের দিকে তাকালে। এখানে শুধু প্রথম খণ্ডের সূচিপত্র থেকে কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করা হলো—

প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন : কয়েকটি অভিমত, অনুমান ও অনুসন্ধান, ইসলাম কেন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল, মুহাম্মদ (সা.)-এর হাতে সরাসরি বাইয়াত হওয়া উপমহাদেশের মুসলিম, ভারত-বাংলাদেশে আগমনকারী সাহাবা, প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন : ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গবেষণা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও এশিয়াটিক সোসাইটির গবেষণা, ইসলাম প্রচারে নদী ও সমুদ্র সফর, ইসলাম প্রচারের জন্য ভাষা ও জ্যোতির্বিদ্যা শিক্ষা, আরব বাণিজ্য-অভিযাত্রা ও ইসলাম, প্রাচীন বাংলায় ইসলাম, ব্রাহ্মণ্যবাদ ও বণিক সমাজ, সত্যেন সেনের বর্ণনায় আরবদের সমুদ্র বাণিজ্য, ইতিহাস রচনার প্রথম যুুগে মুসলিমবিদ্বেষ, উইলিয়াম হান্টারের ‘অদম্য ধর্ম প্রচারক’ আবিষ্কার, প্রাচীন বাংলায় মুসলিম আগমন বিষয়ে ড.

আকবর আলি খানের নতুন তত্ত্ব, ভারত-বাংলায় ইসলাম প্রসঙ্গে কমিউনিস্টদের মূল্যায়ন, বাংলায় আগমনকারী প্রথম সাহাবা আবু ওয়াককাস (রা.)-এর বৃত্তান্ত, ভারত-বাংলাদেশে আগমনকারী সাহাবিদের তালিকা, বাংলায় প্রথম যুগে আগমনকারী ইসলাম প্রচারক, আদি মধ্যযুগে বাংলায় আসা ধর্মপ্রচারক পীর-দরবেশ, সাহাবা (রা.)-দের পরে আগমনকারী ইসলাম প্রচারকদের বিবরণ ইত্যাদি। এসব বিষয় ছাড়াও মুগ্ধকর বহু বিষয়ের অবতরণা করেছেন বিজ্ঞ লেখক।

মোট কথা বাংলাদেশে ইসলামের আগমন নিয়ে কে কী লিখেছেন, সব তথ্য তিনি এক জায়গায় জমা করেছেন। পাশাপাশি নিজস্ব গবেষণা ও পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেছেন। বইটি শুধু ইসলামী চেতনা লালনকারী মানুষের জন্য নয়, বইটি এক নতুন সত্য প্রতিষ্ঠা করতে চায়, বইটি বলতে চায় যে মহানবী (সা.)-এর যুগেই এ দেশে ইসলাম প্রচার হয়েছে। এই সত্য প্রতিষ্ঠিত হলে বাংলাদেশে ইসলামের আগমনের ইতিহাস নতুনভাবে লিখতে হবে। রয়েল সাইজের তিন খণ্ডের বইটির দাম ২১০০ টাকা রাখা হলেও বইমেলায় ২৫ শতাংশ ডিসকাউন্টে বিক্রি করা হচ্ছে। এ ছাড়া রকমারি ডটকম থেকে বইটির জন্য অর্ডার করা যায়।
সৌজন্যে কালের কণ্ঠ

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।