1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
সুনামগঞ্জ জেলা আ. লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল, দুই পক্ষই ঢাকামুখী - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫১ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জ জেলা আ. লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল, দুই পক্ষই ঢাকামুখী

  • Update Time : রবিবার, ৬ জুন, ২০২১
  • ৬৮৭ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:;

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল আবারও প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে। সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে একপক্ষ অপরপক্ষকে নানা ইস্যুতে দোষারোপ করছেন। গণমাধ্যমে বক্তৃতা বিবৃতি দিয়েও একে অপরের বিষোদগার করছেন। এই জেলায় আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল বহু পুরানো। প্রায় ২০ বছর পর ২০১৭ সালের ২২ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের নতুন জেলা কমিটি গঠনের পর কোন্দলের কিছুটা অবসান হয়েছিল। সম্প্রতি ৬ ইউনিটে আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন নিয়ে আবারও সংগঠনের অভ্যন্তরীণ কোন্দল চাঙা হলো। গতকাল (শনিবার) দলের সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমনের অনুসারি জেলা কমিটির নেতারা কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে দেখা করে এই বিষয়ে নিজেদের ক্ষোভ জানিয়েছেন। এর আগে এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে দলের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নালিশ করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুল হুদা মুকুটের অনুসারিরা।
গত ৬ মে সুনামগঞ্জের দিরাই, শাল্লা, ছাতক উপজেলা ও ছাতক পৌরসভা, দোয়ারাবাজার এবং সুনামগঞ্জ সদর ইউনিটের আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন। এই কমিটিগুলো গণমাধ্যমে ছাপা হলে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে ক্ষুব্ধ হন দলের অন্য অংশের নেতা কর্মীরা।
সংগঠনের জেলা কমিটির সভা না করেই ৬ ইউনিটে আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনকে ‘অগঠনতান্ত্রিক’ আখ্যায়িত করেন সংগঠনের একাংশের নেতারা। এসব কমিটি বাতিলের আহ্বান জানিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল হুদা মুকুটসহ ১৬ জন দায়িত্বশীল নেতা গণমাধ্যমে বিবৃতি পাঠান। পরে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে গত ২২ মে এই বিষয়ে লিখিত আবেদনও জমা দেন এই অংশের নেতারা।
এই অংশের নেতৃবৃন্দের মধ্যে তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, দলীল নেতা শংকর দাশ, জুনেদ আহমদ, ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী, শামীম আহমদ চৌধুরী, সমুজ আলী, অ্যাডভোকেট আব্দুল করিম, জাহাঙ্গীর চৌধুরী, কামরুল হাসান চৌধুরী, আসাদুজ্জামান সেন্টু, অ্যাডভোকেট আজাদুল ইসলাম রতন, আবুল কালাম, অমল কর, সীতেশ তালুকদার মঞ্জু প্রমুখ ঢাকায় গিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নালিশ করেন। এঁরা সকলেই জেলা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পদে রয়েছেন। গত ২২ মে সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা মাহবুবুল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আহমেদ হুসেন ও বিপ্লব বড়ুয়ার সঙ্গে পৃথক পৃথকভাবে দেখা করে অগঠনতান্ত্রিকভাবে ৬ ইউনিটের প্রস্তুতি কমিটি গঠনসহ এই দুই নেতার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ জানান এঁরা।
গতকাল (শনিবার) দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমনের অনুসারি জেলা কমিটির দায়িত্বশীলদের মধ্যে অ্যাডভোকেট খায়রুল কবির রুমেন, নান্টু রায়, হায়দার চৌধুরী লিটন, সিরাজুর রহমান সিরাজ, সুবীর তালুকদার বাপ্টু, ঈশতিয়াক শামীম, শাহ্ আবু নাসের, মোতাহের হোসেন আখঞ্জি শামীম, অ্যাডভোকেট নূরে আলম সিদ্দিকী উজ্জ্বল, তারিখ হাসান দাউদ, গোলাম সাবেরীন সাবু, আতিকুল ইসলাম, লাভলু আহমেদ, হাসান মাহবুব সাদী, ও মোবারক হোসেন দেখা করেন কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে। এঁদের সঙ্গে নবগঠিত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সুনামগঞ্জ সদর, ছাতক ও দোয়ারাবাজারের নেতা ছাতক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, দোয়াবাজারের সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইদ্রিছ আলী বীর প্রতীক, ছাতক পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, দলের নেতা রাশেদ বখ্ত নজরুল, তাপস চৌধুরী, ঝুটন পুরকায়স্থ প্রমুখও ছিলেন।
এই অংশের একজন দায়িত্বশীল নেতা জানান, তাঁরা সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা ওবায়দুল কাদের, নুরুল ইসলাম নাহিদ, মাহবুবুল আলম হানিফ, আহমেদ হুসেন, বিপ্লব বড়ুয়া ও আজিজুস সামাদ ডনের সঙ্গে দেখা করেছেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন এই প্রসঙ্গে বললেন, দলের নেতারা কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে গত বছরের ১৭ অক্টোবর জেলা কমিটির রেজুলেশন তুলে দিয়েছেন। এর আগে দলীয় কয়েকজন নেতা দাবি করেছিলেন, সংগঠনের জেলা কমিটির বৈঠকে আলোচনা না করেই এই প্রস্তুতি কমিটিগুলো করা হয়েছে। এই বিষয়টি পরিস্কার করার জন্যই জেলা কমিটির সভায় নেওয়া রেজুলেশন কপি তুলে দেওয়া হচ্ছে কেন্দ্রীয় নেতাদের।
জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট বললেন, জেলা কমিটির নেতারা গত ২২ মে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ঢাকায় বসে যখন যা ইচ্ছামত অগঠতান্ত্রিক কাজ করার বিষয়ে জানিয়েছেন। উপজেলা গুলোতে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনের বিষয়ে কোন সভায়ই আলোচনা হয় নি। এই সংক্রান্ত কোন রেজুলেশনও কখনো হয় নি। তারা যদি রেজুলেশন দেখায়, সেটি তারা হয়তো মনগড়াভাবে তৈরি করে দেখাচ্ছে।
প্রসঙ্গত. সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল বহুদিনের। দলের বিবদমান দুই গ্রুপে একেক সময় একেকজন নেতৃত্ব দিয়েছেন। ২০১৭ সালে নতুন জেলা কমিটি গঠনের পর কিছুদিন প্রকাশ্য কোন্দল ছিল না। এখন আবার এটি প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্যদের কেউ কেউ এই কোন্দলের নেপথ্যে রয়েছেন।
সৌজন্যে দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com