বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

আসামি ধরতে গিয়ে নারীদের ওপর পুলিশি নির্যাতন

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৭
  • ২৫ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আসামি ধরতে গিয়ে মহিলাদের ওপর নির্যাতন চালিয়েছে পুলিশের এক এসআই। এমন অভিযোগ বেশ কয়েকজন মহিলার।

পুলিশের নির্যাতনের শিকার হয়ে একজন বৃদ্ধা মহিলা হাসপাতালে ভর্তিও হয়েছেন। তবে অভিযুক্ত পুলিশের এসআই বিকাশ নির্যাতনের কথা অস্বীকার করেছেন।

বুধবার রাত ১২টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলার ঘোপপাড়া গোরিনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

আসামি টিপু সুলতানের মা সালেহা বেগম জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলার বারবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিকাশ ও টুআইসি আজাহারের নেতৃত্বে পুলিশ তাদের বাড়িতে যায়। এ সময় তার ছেলে কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান টিপু সুলতানকে আটক করে। এ সময় তাকে আটকের কারণ জানতে চাইলে তাকে ও টিপুর স্ত্রী জ্যোৎস্নাকে লাথি মারে এবং হাত দিয়ে চড়থাপ্পড় ও কিলঘুষি মেরে নির্যাতন করে পুলিশের এসআই বিকাশ।

টিপুর বোনের জামায় রকিবুল ইসলাম জানান, রাতে পুলিশ তাদের বাড়িতে গিয়ে টিপুকে আটক করে। এ সময় বাড়ির লোকজন কারণ জানতে চাইলেই মারপিট ও লাথি মেরে নির্যাতন করেন। একপর্যায়ে তারা টিপুকে নিয়ে চলে আসে। সে সময় তারা টিপুকেও নির্যাতন করে।

গুরুতর আহতাবস্থায় টিপুর মা সালেহা বেগমকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মাহফুজুর রহমান সোহাগ জানান, রাতে সালেহাকে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত বারবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বিকাশ কুমার জানান, রাতে ঘোপপাড়া গ্রামে মাদকের আসামি টিপু সুলতানকে আটক করতে যান। তার বিরুদ্ধে এর আগে মাদকের মামলা রয়েছে। টিপু মাদক ব্যবসায়ী। আমরা তার কাছ থেকে কিছু ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করি। তাকে আটকের সময় পরিবারের লোকজন পুলিশের কাজে বাধা দেয়। তবে পুলিশ কোনো মহিলাকে নির্যাতন করেনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24