রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা বেড়াতে গিয়ে বাড়ি ফেরার পথে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জগন্নাথপুরের এক যুবকের মাথায় ৪ ইঞ্চি লম্বা শিং এই বৃদ্ধের!

ইয়াবা দিয়ে যুবককে ফাঁসানোর অভিযোগে থানা ঘেরাও

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৭ জুলাই, ২০১৭
  • ৩৩ Time View

ফরিদপুরের সদরপুর থানা পুলিশের বিরুদ্ধে যুবককে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে এলাকাবাসী থানা ঘেরাও করে অভিযুক্ত পুলিশের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি আটক যুবকের মুক্তি দাবি করেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার আমিরাবাদ গ্রামের শত শত মানুষ সদরপুর থানার সামনে গিয়ে বিক্ষোভ করেন।

বিষয়টি নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনার পাশাপাশি সদরপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শ্রাবন ইসলাম (৩৪) নামের ওই যুবককে বুধবার সদরপুর থানার এসআই আজিজ, এএসআই সোহেল ফোর্স নিয়ে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে ইয়াবা পাওয়া গেছে বলে জানায়।

স্থানীয় আমিরাবাদ গ্রামের বেশ কয়েকজন জানান, পুলিশ শ্রাবন ইসলামকে আটক করে। এসময় তার মোটরসাইকেল তল্লাশি করে ইয়াবা পাওয়া গেছে বলে জানান। পরে শ্রাবনের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করে। এসময় পুলিশকে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে মোটরসাইকেলসহ শ্রাবনকে থানায় নিয়ে যায়।

থানায় শ্রাবনের পরিবার যোগাযোগ করলে তাদের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করা হয়। টাকা না দিলে মামলা দিয়ে কোর্টে চালান করা হবে বলে জানান।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে আমিরাবাদ গ্রামের কয়েকশ ব্যক্তি সদরপুর থানার সামনে গিয়ে বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের থানার সামনে থেকে সরিয়ে দেয়।

এদিকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে সদরপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আমিরাবাদ গ্রামের বাসিন্দা ও শ্রাবনের মামা মো. আবুল কালাম মৃধা।

তিনি জানান, শ্রাবন ঢাকায় একটি প্রাইভেট গাড়ি চালক কল্যান সংস্থার প্রচার সম্পাদক। ঈদের ছুটিতে সে বাড়ি আসে। ঈদ পরবর্তী বুধবার রাতে এলাকার কয়েকজনকে নিয়ে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। বাবুরচর বাজারের সামনে থেকে শ্রাবনের মোটরসাইকেলে পুলিশ কিছু মাদক রেখে শ্রাবনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে তারা মোটা অংকের টাকা দাবি করে।

পরে সদরপুর থানার ওসির সঙ্গে মোবাইলফোনে যোগাযোগ করলে আমাদের কাছে দুই লাখ টাকা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় শ্রাবনকে মাদক মামলায় ঢুকিয়ে আদালতে চালান করে।

সংবাদ সম্মেলনে শ্রাবনকে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতির পাশাপাশি অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পুলিশ সুপারসহ উধ্বর্তন কতৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হয়।

সদরপুর থানার ওসি ছুটিতে থাকায় তার সঙ্গে কথা বলা যায়নি। তবে দায়িত্বপ্রাপ্ত তদন্তকারী অফিসার সুব্রত গোলদার জানান, ইয়াবাসহ উক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মাদক আইনে মামলা দায়েরের পর কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তার কাছে কোনো টাকা পয়সা দাবি করা হয়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24