মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্রামীণ ফোনের ৫ লাখ টাকা ছিনতাই, জনতার ধাওয়ায় বাইকসহ আটক ১ জগন্নাথপুরে সড়ক রক্ষায় ১০ টন ওজনের অধিক যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ, আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা প্রার্থীরা গরুর মাংস বিক্রি: ভারতে খ্রিস্টান যুবককে পিটিয়ে হত্যা জগন্নাথপুরের ব‌্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া খুনের ঘটনায় সানিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড, তিনজনের যাবজ্জীবন ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের ‘হামলা’ আহত ২৫ অনেকেই গা ঢাকা দিয়েছে, অনেককেই নজরদাড়িতে রাখা হয়েছে: কাদের বিরিয়ানি খেলে শিক্ষকসহ ৪০ জন অসুস্থ আল কোরআন অনুসরণের আহ্বান রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের!

একটাই নম্বর! মুহূর্তের মধ্যে প্রাণ গেল ৩ জনের

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০১৭
  • ১৮ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
একটি ফোন নম্বরও মৃত্যু ডেকে আনতে পারে। এতদিন আমরা ভূতুড়ে পুতুলের কথা শুনেছি। কিন্তু নম্বরও যে ভূতুড়ে হতে পারে সেটিও এবার প্রমাণিত হল। গত দশ বছরে তিনটি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে একটি ফোন নম্বর।

সেই বিশেষ নম্বরটি হল ০৮৮৮-৮৮৮-৮৮৮। ঘটনাটি বুলগেরিয়ার। পরপর তিন তিনটি মৃত্যুর পরই বন্ধ করে দেওয়া হয় সেই নম্বরটি। আর বলাই বাহুল্য নম্বরটি আপাতত অভিশপ্ত নম্বরের তকমা পেয়েছে।

এই নম্বরটির প্রথম ব্যবহারকারী ছিলেন ভ্লাদিমির গ্রাসহনভ। তিনি মোবিটেল সংস্থার সিইও ছিলেন। ২০০১ সালে ক্যান্সারে মৃত্যু হয় তার।

ভ্লাদিমির মৃত্যুর পেছনে যে তার শত্রুপক্ষের হাত রয়েছে সেটি সেই সময় মনে করা হয়েছিল। রেডিওকেটিভ পয়জন ব্যবহার করার জন্যই মৃত্যু হয় ভ্লাদিমির।

পরবর্তী ঘটনাটি ঘটে ২০০৩ সালে। কনস্টানতিন দিমিট্রোভ বুলগেরিয়ার মাফিয়া ছিল। নেদারল্যান্দ ট্রিপে যাওয়ার সময় তার শত্রুপক্ষের গুলিতে মৃত্যু হয় তার। দিমিট্রোভের মৃত্যুর সময় তার সঙ্গে ছিল এই ফোন নম্বরটি। তার কাছে সেই মুহূর্তে প্রায় ৫০০ ইউরোর মাদকদ্রব্য ছিল বলে জানা গিয়েছিল।

২০০৫ সালে রিয়েল এস্টেট এজেন্ট কনস্তাতিন ডিশ্লিএভ এই নম্বরের শিকার হয়। পেশা হিসেবে সেও একজন স্মাগলার ছিল বলে জানা গেছে। ১৩০ ইউরো মিলিয়ন মাদক পুলিশ আটক করে এই ঘটনার পর ডিশ্লিএভের কাছ থেকে। তার কাছেও সেই মুহূর্তে ওই নম্বরটিই ছিল বলে জানা যায়।

এই তিনজনের মৃত্যুর সময় তাদের কাছেই সেই মুহূর্তে এই নম্বরটিই ছিল। তবে, এটি কি শুধুমাত্র কাকতালীয় নাকি এদের মৃত্যুর পিছনে এই নম্বরটির ভূমিকা রয়েছে সেটি আজও রহস্য।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24