শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বোরকা পরে সমাবর্তনে যাওয়ায় প্রথম হয়েও স্বর্ণপদক পেলেন না নিশাত জগন্নাথপুরে কাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবে না মিরপুরে প্রতীক বরাদ্দের আগেই প্রচারণায় প্রার্থীরা! জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে টমটম চালকের আত্মহত্যা জগন্নাথপুরে শিল্পকলা একাডেমির সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর বাজারকে সিসি ক্যমেরার আওতায় আনতে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় সমূহে পরিছন্নতা সামগ্রী ও প্রচারপত্র বিতরণ কার্যক্রম শুরু রাতভর ৪ ক্যাসিনোতে অভিযান নারায়ণগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে গলা কেটে হত্যা যুক্তরাজ‌্যে বসবাসতরত জগন্নাথপুরের আ.লীগ পরিবারের মিলনমেলা

ডেভিড ক্যামেরনের মন্ত্রীসভা গঠন কাজ শুরু

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১০ মে, ২০১৫
  • ৩৪ Time View

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি::নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবার পর দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের কাজ শুরু করেছেন কনজারভেটিভ নেতা ডেভিড ক্যামেরন।
বৃটেনে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফল শুক্রবার ঘোষণা হয়। ফলাফল হাতে পেয়েই ক্যামেরন নতুন মন্ত্রিসভা নিয়ে কাজ শুরু করেছেন।
ব্রিটেনে এককভাবে সরকার গঠন করতে ৩২৬টি আসন প্রয়োজন। নির্বাচনে এবার কনজারভেটিভ পার্টি ৩৩১টি আসন পেয়েছে। ১৯৯২ সালের পর এটি দলটির সবচেয়ে বড় বিজয়।
এদিকে নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিয়ে এরই মধ্যে পদত্যাগ করেছেন বিরোধী নেতা অ্যাড মিলিব্যান্ড, নিক ক্লেগ এবং নাইজেল ফারাগ।
ক্যামেরন চ্যান্সেলর পদে জর্জ অ্যাসবোর্নকে পুনরায় নিয়োগ দিয়েছেন। তিনি দ্বিতীয় মেয়াদেও যুক্তরাজ্যের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদে তিরিসা মে; ফিলিপ হ্যামোন্ড পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর পদে মাইকেল ফ্যালন পুননিয়োগ পেয়েছেন।
গতবার লিব ডেমসের সঙ্গে যৌথভাবে সরকার গঠন করেছিলেন কনজারভেটিভ। এবার তার দরকার হচ্ছে না। এজন্য জোট সরকারের আওতাধীন লিব ডেমসের নিয়ন্ত্রণে থাকা পদগুলোতে ক্যামেরনকে নতুন নিয়োগ দিতে হবে। এছাড়া সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ভিন্স ক্যাবল, শিক্ষামন্ত্রী ডেভিড লস এবং ট্রেজারি বিভাগের মুখ্য সচিব ড্যানি আলেকজান্ডার নির্বাচনে পরাজিত হওয়ায় তাদের জায়গায় নতুদের নিয়োগ দিতে হবে।
আগামী ১৮ মে হাউজ অব কমন্সে মন্ত্রীদের পূর্ণ তালিকা দেখা যাবে।
এবারের নির্বাচনে লেবার পার্টিকে হটিয়ে জয় লাভ করেছে স্কটল্যান্ড ভিত্তিক এসএনপি। দলটি ৫৯টি আসনের মধ্যে ৫৬টিতেই জয় পেয়েছে। তবে কনজারভেটিভ পার্টি এখানে কোন আসন হারায়নি।
এবার হাউজ অব কমন্সে রেকর্ড সংখ্যক নারী প্রতিনিধি এবং ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর দলকে প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা যাবে। মোট ১৯১ জন নারী প্রতিনিধি এবং ৪২জন বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর প্রতিনিধি থাকছে। উল্লেখ্য, গত ২০১০ সালে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে নারী প্রতিনিধি সংখ্যা ছিল মোট ১৪৩ জন আর জাতিগত নেতার সংখ্যা ছিল ২৭জন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24