শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
চিরনিদ্রায় নিজের তৈরী কবরে শায়িত জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় জগন্নাথপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আব্দুল মনাফকে শেষ বিদায়,জানাজায় শোকার্ত মানুষের ঢল পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহে পরিকল্পনা মন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন পৌর চত্বরে মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সন্মেলনে পরিবর্তনের পক্ষে তৃণমূল নেতাদের আওয়াজ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে:শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরে শিশুর মৃত্যু:’শিশুটি যখন মৃত্যুের যন্ত্রনায় চটপট করছিল,যখন ডাক্তার-নার্স ঘুমে’ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরের চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও কমিটি হয়নি জগন্নাথপুরের কৃতি সন্তান ডা. আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বারডেমের নতুন অতিরিক্ত মহাপরিচালক

জগন্নাথপুরের খাশিলা গ্রামের সন্তান স্কুল ছাত্র আবু সাঈদ খুনের ঘটনায় ৪ জনের নামে অভিযোগপত্র

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৪১ Time View

সিলেট প্রতিনিধি::: জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খাসিলা গ্রামের সন্তান সিলেট শহরে বসবাসকারী ৯ বছরের শিশু আবু সাঈদকে অপহরণ ও হত্যা মামলার অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। ৪ জনকে আসামী করে বুধবার বিকেলে সিলেট মহানগর হাকিম ১ম আদালতে অভিযোগপত্রটি দাখিল করেন মহানগর পুলিশের সহকারি কমিশনার (প্রসিকিউশন) আবদুল আহাদ চৌধুরী। মামলাটি তদন্ত করেন কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোশাররফ হোসাইন।
চার্জশিটভূক্ত আসামিরা হলেন- বিমানবন্দর থানার কনস্টেবল (বরখাস্তকৃত) এবাদুর রহমান পুতুল, র‌্যাবের কথিত সোর্স আতাউর রহমান গেদা, সিলেট জেলা ওলামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম রাকিব ও প্রচার সম্পাদক মাহি হোসেন মাছুম। এর মধ্যে মাছুম পলাতক ও বাকিরা কারান্তরিণ রয়েছেন।
চার্জশিটে সকল আসামী অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন শিশু সাঈদের মামা জয়নাল আবেদীন।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ১১ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে সিলেট নগরীর রায়নগর থেকে স্কুলছাত্র আবু সাঈদকে (৯) অপহরণ করা হয়। এরপর ১৩ মার্চ রাত সাড়ে ১০টায় বিমানবন্দর থানার পুলিশ কনস্টেবল এবাদুর রহমান পুতুলের কুমারপাড়াস্থ ঝর্ণারপাড় সবুজ-৩৭ নং বাসার ছাদের চিলেকোঠা থেকে সাঈদের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
এ ঘটনায় বিমানবন্দর থানার কনস্টেবল এবাদুর, র‌্যাবের সোর্স গেদা ও ওলামা লীগ নেতা রাকিবকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনার পর গা ঢাকা দেয় ওলামালীগের আরেক নেতা মাছুম।
এদিকে, গ্রেফতারের পর এবাদুর, গেদা ও রাকিব তিনজনই আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। তারা সাঈদ হত্যার সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে।
প্রসঙ্গত, নিহত আবু সাঈদ রায়নগর হযরত শাহ মীর (র.) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র ও একই এলাকার দর্জিবন্দ বসুন্ধরা ৭৪ নম্বর বাসায় বসবাসকারী জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে। এ হত্যাকান্ডের পর জগন্নাথপুরসহ সিলেট জুড়ে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দেয়। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানানো হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24