মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে পঞ্চাশ ঊর্ধ্ব ব্যক্তির বয়স ২৪ বছর! এ অভিযোগে মনোনয়ন বাতিল, গেলেন আপিলে জগন্নাথপুরে নদীর পাড় কেটে মাটি উত্তোলনের দায়ে দুই ব্যক্তির কারাদণ্ড জগন্নাথপুর বাজার সিসি ক্যামেরায় আওতায় আনতে এসআই আফসারের প্রচারণা জগন্নাথপুরে নিরাপদ সড়ক ও যানজটমুক্ত রাখতে প্রশাসনের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর উপজেলা ক্রিকেট এসোসিয়েসনের নতুন কমিটি গঠন মিরপুরে আ.লীগ প্রার্থী আব্দুল কাদিরের সমর্থনে কর্মীসভা অনুষ্ঠিত ফেসবুকে ক্ষমা চেয়েছেন ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক রাব্বানী প্রায়ই বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকেন শিক্ষক জগন্নাথপুরে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার, থানায় জিডি সংস্কারের দাবীতে জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কে মঙ্গলবার থেকে আবারও অনিদিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট

জগন্নাথপুরের তিন ইউনিয়নের ৫০ হাজার মানুষ বন্যা কবলিত- রানীগঞ্জ ও রৌয়াইল বাজারে পানি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২০ জুলাই, ২০১৫
  • ৩৯ Time View

জগন্নাখথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: জগন্নাথপুর উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের ৫০ হাজার মানুষ বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছেন। উপজেলার ওপরদিয়ে বয়ে যাওয়া কুশিয়ারা নদীর তীরবতী গ্রামগুলো বন্যার পানিতে কবলিত হয়েছেন। কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় নদী তীরবর্তী ঘর-বাড়ি ও বাজার পানির নীচে তলিয়ে যাওয়ায় লোকজন চরম দূর্ভোগে পড়েছেন। বিশেষ করে গত দুই দিনের বৃষ্টিতে কুশিয়ারা নদীর তীরবতী রানীগঞ্জ বাজার, ও রৌয়াইল বাজারে পানি উঠে ব্যবসা বাণিজ্য বিঘ্নিত হওয়ার পাশাপাশি কুশিয়ারা নদীর তীরবতী ঘরবাড়িতে পানি ঢুকে গেছে।রানীগঞ্জ ইউনিয়নের পাশাপাশি পাইলগাঁও ও আশারকান্দি ইউনিয়নের একাংশর লোকজন কুশিয়ারা নদীর পানিতে বন্যা কবলিত অবস্থায় রয়েছে। পাইলগাঁও ইউনিয়নের বাসিন্দা কয়ছর রশীদ বলেন, বন্যার পানিতে বেশ কয়েকটি রাস্তাঘাট ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। লোকজন পানিবন্দি অবস্থায় চরম দুভোগে রয়েছেন। রানীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজলুল হক জানান, কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী তীরবর্তী রানীগঞ্জ বাজারসহ রানীগঞ্জ ইউনিয়নের আলমপুর, বাগময়না, নোয়াগাঁও, বালিশ্রী, ইসলামপুর, রৌয়াইল গ্রামবাসী এখন বন্যা কবলিত অবস্থায় আছেন। তিনি জানান, তার ইউনিয়নের প্রধান দুই বাজার রানীগঞ্জ ও রৌয়াইল বাজারে পানি উঠে গেছে।
পাইলগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন জানান,কুশিয়ারা নদীর তীরঘেষা পাইলগাঁও ইউনিয়ন বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের জায়গাসহ বেশ কয়েকটি সড়ক বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে উল্লেখ করে চেয়ারম্যান বলেন, পাইলগাঁও ইউনিয়নের কাতিয়া, পূর্ব কাতিয়া, জালালপুর, নতুন কসবা, পূর্ব জালালপুর গ্রামের ঘরবাড়িতে পানি ঢুকে মানুষ কষ্টে আছেন। আশারকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব খান তার ইউনিয়নের ফেচি,শেওড়াসহ কয়েকটি গ্রামের মানুষ বন্যা কবলিত অবস্থায় রয়েছেন বলে জানান। তিনি জানান,কুশিয়ারা নদীর তীরঘেষা ৫০ হাজার মানুষ এখন বন্যাকবলিত। তাদের সহযোগীতায় সরকারি –বেসরকারী সাহায্য দরকার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24