রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের পাটলীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা জগন্নাথপুরে গাছ কাটার ঘটনায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে জগন্নাথপুরে শিকল দিয়ে তিনদিন বেঁধে রাখার পর রিকশাচালকের মৃত্যু:হত্যা মামলা দায়ের ভারত বিনা যুদ্ধেই হারাচ্ছে জঙ্গি বিমান, নিহত হচ্ছেন পাইলট ২০০৫ সালের সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী সাপের ছোবলে শিশুর মৃত‌্যু বণাঢ্য আয়োজনে জনপ্রিয় দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তি উদযাপন দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের এবার বর্ষসেরা প্রতিনিধি হলেন আশিক মিয়া বঙ্গবন্ধুকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড, হিসেবে আখ্যা দিল জাতিসংঘ জগন্নাথপুরে তিন লাখ টাকা মূল্যের সরকারি গাছ ‘কেটে’ নিলেন যুবলীগ নেতা।

জগন্নাথপুরে ‘অপহরণের অভিযোগ সত্য নয়, প্রেমের টানে পালিয়েছিল তরুণী’

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২২ মার্চ, ২০১৯
  • ৬৫ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের অনন্ত গোলাম আলীপুর গ্রামের এক তরুণী বাউলশিল্পী (১৬)কে অপহরণ করা হয়নি। স্বেচ্ছায় সে তার প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে বলে পুলিশকে থানায় এসে জানিয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে মেয়েটি স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে জগন্নাথপুর থানার পুলিশকে এমন কথা জানালে পুলিশ ওই মেয়েটিকে তার বাবার নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। মেয়ের বাবার থানায় অপহরণের অভিযোগ এনে একটি লিখিত অভিযোগপত্র দায়ের করেন।
পুলিশ ও তরুণী বাউলশিল্পীর বাবার দায়েরকরা লিখিত অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ওই গ্রামের সরাফত আলীর মেয়ে বাউলশিল্পী (১৬) বুধবার রাতে উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা গ্রামে গত বৃহস্পতিবার রাতে অনুষ্ঠিত একটি বাউল গানের আসরে বাবাকে সঙ্গে নিয়ে স্থানীয় শিল্পী হিসেবে সঙ্গীত পরিবেশন করে ভোররাতে বাড়ি ফেরার পথে জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ সড়কের তিন নং বেইলি সেতুর পাশে হবিবনগর এলাকায় পৌঁছামাত্র তিনটি মোটরসাইকেল করে পৌর এলাকার আলখানাপাড় গ্রামের সাবরু মিয়া, তার সহযোগী একই এলাকার মনির মিয়া ও টিয়ারগাঁও গ্রামের সাইদুল মিয়াসহ ৫ যুবক অটোরিকশা চালক ও বাউলশিল্পীর পিতা সরাফত আলীকে মারধর করে জোরপূর্বক মেয়েটিকে মোটরসাইকেল করে তুলে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযান চালায়। এক পর্যায়ে মেয়েটি রাতে জগন্নাথপুর থানায় এসে পুলিশকে জানায়, তাকে কেউ অপহরণ করেনি। অভিযুক্ত ছেলের সঙ্গে তার দীর্ঘদিন করে প্রেমের সর্ম্পক রয়েছে। ঘটনায় রাতে স্বেচ্ছায় সে ছেলেটির সঙ্গে সিলেট শহরে পালিয়ে যায়। অপহরণের খবর পেয়ে থানায় এসেছি।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) নব গোপাল দাস জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বাউলশিল্পীর বাবার অভিযানে নামে পুলিশ। অভিযান চলাকালে রাতে মেয়েটি থানায় এসে জানায়, তাকে কেউ অপহরণ করেনি। সে স্বেচ্ছায় তার প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছিল। আমরা মেয়েকে তার বাবার নিকট হস্তান্তর করেছি। অপহরণের অভিযোগটি সত্য নয় । প্রেমের টানেই পালিয়েছিল তরুণী।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24