বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরে ওএমএস’র চাল পাচারকালে গ্রেফতার-৩ ডিলার যুবলীগ নেতা কে পুলিশ খোঁজছে

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৩০ জুন, ২০১৭
  • ১৫৮ Time View

স্টাফ রির্পোটার :: জগন্নাথপুরে ওএমএস’র চাল রাতের আধারে পাচারকালে ৮ বস্তা চালসহ পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ মামলার প্রধান আসামী ওএমএস’র ডিলার যুবলীগ নেতা আবদুল বারিকে গ্রেফতারের অভিযান চালিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে সরকারী পাচারকালে স্থানীয় লোকজন পাচারকৃতচাল ও বহনকৃত গাড়ি আটক করেন।

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকতাসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে চালসহ অভিযুক্তদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। তবে ডিলার যুবলীগ নেতা আবদুল বারিক গ্রেফতার করতে করা যায়নি। তিনি পলাতক রয়েছেন।

আটককৃতরা হলেন গাড়ির চালক হবিগঞ্জ জেলার আজমিরিগঞ্জ থানার আলীপুর গ্রামের হরমুজ আলী পুত্র বাদল মিয়া (২২), ডিলারের আত্মীয় গোতগাও গ্রামের আবদুল আজিবের পুত্র রাজিব হোসেন (২৫), ও তার ভাই আক্তার হোসেন (২৬)।

জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শামিম আল ইমরান ও থানা পুলিশের অভিযানকালে ওএমএস’র ডিলার যুবলীগ নেতা আবদুল বারিককে পাওয়া যায়নি। সে পালিয়ে গেছে।

উপজেলা প্রশাসন ও এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায় , জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাও ইউনিয়নের ওএমএস’র ডিলার উপজেলা যুবলীগ নেতা ওই ইউনিয়নের গোতগাও গ্রামের আবদুল বারিক বুধবার ও বৃহস্পতিবার জগন্নাথপুর উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে দুই টন ওএমএস’র চাল ১৫ টাকা দরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ও দরিদ্র লোকজনের মধ্যে বিক্রয় করা জন্য নেন। কিন্তু এ সব চাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পাশ্ববর্তী উপজেলার নবীগঞ্জ থানার ইনাতগঞ্জ বাজারে নিজস্ব মালিকানাধানীন একটি টমটম গাড়ির মাধ্যমে পাচারকালে স্থানীয় লোকজন সরকারী ওএমএস’র চাল ও বহনকারী গাড়িটি আটক করে উপজেলা প্রশাসনকে খবর দেন। খবর পেয়ে শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলা প্রশাসনের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে সরকারী চাল, গাড়ি ও গাড়িরচালকসহ ৩ জনকে আটক করে থানায় হস্তান্তর করা হয়।

জগন্নাথপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা ধীরাজ কুমার চৌধুরী জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে বলেন, ডিলার যুবলীগ নেতা খোলাবাজারে ১৫ টাকা দরে বিক্রি করার জন্য উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে দুই টন ওএমএস’র চাল নিয়েছেন। কিন্তু চাল অন্যস্থ বিক্রিকালে এলাকাবাসী পাচারকৃত চাল আটক করে আমাদেরকে খবর দেন। এ ব্যাপারে আমি বাদি হয়ে ডিলারকে প্রধান আসামী ৪ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছি।

জগন্নাথপুরের এসিল্যান্ড শামিম আল ইমরান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওএমএস’র চাল ও গাড়ি উদ্ধার হয়। অপর সরকারী ওএমএস’র সিলগালা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৩ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। অভিযানচালে ওএমএস’র চালের ডিলারকে পাওয়া যায়নি। তিনি পলাতক রয়েছেন।
জগন্নাথপুর থানার ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে বলেন, এব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24