শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুর জাতীয় পার্টির সন্মেলনে কমিটি ঘোষনা হলেও একপক্ষের প্রত্যাখান

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৫ মার্চ, ২০১৬
  • ৫৪ Time View

গোবিন্দ দেব/ আজিজুর রহমান আজিজ :: সুনামগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট আব্দুল মজিদ মাষ্টার বলেছেন, জাতীয় পার্টি এদেশের মানুষের কল্যাণে রাজনীতি করে। পল্লী বন্ধু হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের আর্দশের সৈনিকরা এখনও জাতীয় পার্টির হাল ধরে আছেন। পূর্বের ন্যায় আবারও জাতীয়পার্টিকে শক্তিশালী অবস্থানে নিতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি উন্নয়নের রাজনীতি করে বলেই জ্বালাও পোড়াও ধ্বংসাত্বক রাজনীতিকে সমর্থন করে না। এরশাদের নের্তৃত্বে জাতীয় পার্টিকে এককভাবে রাষ্ট্র পরিচালনার জন্য নেতাকর্মীদেরকে কাজ করতে হবে। তিনি শনিবার জগন্নাথপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সন্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। জাতীয় পার্টির সন্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক কাউন্সিলর খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুব সংহতি নেতা আলী আহমদের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আ এম অহিদ কনা মিয়া, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুর রহমান সামছু, জেলা জাতীয় পার্টি নেতা রশিদ আহমদ, এস এম ফারুক গোলাম হোসেন অভি, স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাতীয় পাটির সন্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া, অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,জাতীয় পার্টি নেতা দবির মিয়া, আবু সুফিয়ান ঝুনু, আব্দুল কাহার, নুর ইসলাম মাষ্টার যুব সংহতি নেতা লায়েক মিয়া, রফিক উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রসমাজের সাবেক সভাপতি আবুল বাসার প্রমুখ। সন্মেলনে কাউন্সিলর খলিলুর রহমানকে সভাপতি ও জহিরুল ইসলাম লাল মিয়া কে সাধারণ সম্পাদক ও দবির মিয়া কে সাংগঠনিক সম্পাদক করে জাতীয় পার্টির কমিটি ঘোষনা করা হয়।
অপরদিকে জাতীয় পার্টির অপর অংশ জগন্নাথপুর বাজারে দলের অস্থায়ী কার্যালয়ে সভা করে সন্মেলন ও ঘোষিত কমিটি প্রত্যাখান করেছেন। উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আছকির খানের সভাপতিত্বে ও জাতীয় পার্টি নেতা নুর আলীর পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টি নেতা হারুন মিয়া, রফিক উদ্দিন, দুদু মিয়া, সফাত আলী, আমিনুল ইসলাম, ফারুক মিয়া,ছালিক মিয়া,আরশাদ মিয়া, আব্দুল খালিক পুলিশ,আব্দুস শহীদ সাধু মিয়া, আব্দুল মতিন, শফিক মিয়া,আবদাল মিয়া, মাওলানা হাফিজুর রহমান,সৈয়দ আশিক আলী,তৈমুজ খান,নজরুল ইসলাম, মোস্তফা আলী প্রমুখ। উল্লেখ্য জাতীয় পার্টির বিবাধমান দু’পক্ষ সন্মেলনকে কেন্দ্র করে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। দু’পক্ষই উপজেলা সদরের আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে একই সময়ে সভা আহ্বান করলে উত্তেজনা দেখা দেয়। ফলে প্রশাসন দু’পক্ষকে অডিটরিয়ামে সভা করার অনুমতি দেয়নি। একপক্ষ কামাল কমিউনিটি সেন্টার ও অপরপক্ষ বাজারে অস্থায়ী কার্যালয়ে সভা করে। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24