শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
ঠিকাদারের দায়িত্বহীনতায় জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কে অসহনীয় দুর্ভোগ জগন্নাথপুরের টমটম চালকের হত্যাকাণ্ড উন্মোচিত,ঘাতকের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান জগন্নাথপুরে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় জন্মাষ্টমী উদযাপন জগন্নাথপুরে সরকারি গাছ কাটায় সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময় প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা ১৭ নভেম্বর টমটম গাড়ীর জন্য জগন্নাথপুরের এক চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন,গ্রেফতার-১ জেলা আ.লীগের গণমিছিল ৫ বছরেও শেষ হয়নি জগন্নাথপুরের ভবেরবাজার-গোয়ালাবাজার সড়কের কাজ,দুর্ভোগ লাখো মানুষের “জুম্মু কাশ্মীরে,গণতহ্যা শুরু করেছে মোদী সরকার”

জিন্নাহ মেমোরিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’-এর নাম পরির্বতন

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৫ আগস্ট, ২০১৭
  • ৪৪ Time View

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

অবশেষে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ পাকিস্তানের জাতির জনক জিন্নাহর নামে নামকরণ করা ‘জিন্নাহ মেমোরিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’-এর নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন এই বিদ্যালয়ের নাম হয়েছে ‘রূপাবালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’।

স্থানীয় মানুষের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় থেকে জিন্নাহর নাম মুছে ফেলে নতুন নামের এই সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে।

স্থানীয় প্রশাসন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ১৯৪৭ সালে ভারত-পাকিস্তান ভাগের পর জামালগঞ্জ উপজেলার সাচনাবাজার ইউনিয়নের রূপাবালী গ্রামের পাশে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেওয়া হয়। তখন এর নামকরণ নিয়ে পার্শ্ববর্তী দুই গ্রামের মানুষের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। পরে বিদ্যালয়ের জমিদাতা রূপাবালী গ্রামের আবদুর রাজ্জাক পাকিস্তানের তৎকালীন গভর্নর মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর নামে বিদ্যালয়টির নামকরণ করেন।

উপজেলা উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি আকবর হোসেন জানান, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা বিদ্যালয়টির নাম পরিবর্তন করার উদ্যোগ নেন এবং দাবি জানান। কিন্তু সেটি পরিবর্তন করা হয়নি। তিনি গত বছরের ১২ ডিসেম্বর বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে লিখিত আবেদন করেন। এ সময় উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাসহ নানা শ্রেণি–পেশার মানুষ তাঁর এই দাবির সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করেন। এরপর নাম পরিবর্তনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। এ ক্ষেত্রে জামালগঞ্জের সদ্যবিদায়ী ইউএনও প্রসূন কুমার চক্রবর্তীর বিশেষ ভূমিকা রয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কল্যাণ ব্রত তালুকদার বলেন, তিনি ২০০৫ সাল থেকে এই বিদ্যালয়ে আছেন। বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন হোক, সেটা তাঁরা সব সময় চেয়েছেন। এ নিয়ে অনেক তদন্ত হয়েছে। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। অবশেষে বৃহস্পতিবার উপজেলা প্রশাসনের আদেশ পেয়েই বিকেলে তিনি বিদ্যালয়ের সাইনবোর্ড পরিবর্তন করে রূপাবালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন সাইনবোর্ড টানিয়েছেন।

সদ্যবিদায়ী ইউএনও প্রসূন কুমার চক্রবর্তী বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের আদেশ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আমি বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের নির্দেশ দিয়েছি এবং সেটি করা হয়েছে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24