সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল মিরপুরের সেই প্রার্থী আপিলে ফিরলেন নির্বাচনী লড়াইয়ে মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেন দুইজন, কাল প্রতিক বরাদ্দ পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা

টাইগাররা মেলবোর্ন কান্ডের প্রতিশোধ নিল মীরপুরে

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১৯ জুন, ২০১৫
  • ৪১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক :: বিশ্বকাপে মেলবোর্ন কান্ডের পর ক্রিকেটটা গড়িয়েছে বহুদূর। বাংলাদেশের পাকিস্তান ওয়াশটাই অন্যতম। ভারতের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টে সেই বাংলাদেশকে পাওয়া না গেলেও ওয়ানডে এলেই টাইগাররা অন্য দল। প্রতিপক্ষ ভারত বলে মেলবোর্ন কান্ডের প্রতিশোধের কথা তো চলেই আসে। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মুখে না বললেও একটা অন্তরে একটা জেদতো পুষে রাখতেই পারেন। যে কারণে ‘আনাচে-কানাচে’ একটা ‘প্রতিশোধ, প্রতিশোধ’ ভাব!

আর সেই সুযোগটা হাতছাড়া করেনি টাইগাররা। অনেকটা পাকাপোক্তভাবেই কাজে লাগিয়েছে। বৃষ্টির জন্য ফতুল্লার একমাত্র টেস্টটি মোটেও জমেনি। ৫দিনের খেলা মাঠে থেকেছে সাকুল্যে ৩দিনেরও কম, যে কারণে ড্র’তেই নিষ্পত্তি হয়েছে সেটি। কিন্তু বৃহস্পতিবার মিরপুরে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৭৯ রানে হারিয়ে মেলবোর্ন কান্ডের তুমুল প্রতিশোধ নিয়েছে বাংলাদেশ দল।

মুস্তাফিজের বোলিং তোপে পড়ে সফরকারীরা ২২৮ রানে গুটিয়ে গেল। প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের জয় ৭৯ রানের। এ জয়ের ফলে ৠাংকিংয়েও এগিয়ে গেল টাইগার বাহিনী। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ১-০ তে লিড নিল মাশরাফি বাহিনী।

অভিষিক্ত মুস্তাফিজ একাই ৫ উইকেট তুলে নেন।

ম্যাচের ১৫ ওভার পরও কোনো উইকেটের দেখা পায়নি টাইগার বোলাররা। তবে, দলীয় ১৬তম ওভারে তাসকিনের শেষ বলে ধাওয়ান উইকেটের পেছনে আবারো ক্যাচ তুলে দেন। এবার আর ভুল করেন নি মুশফিক। ব্যক্তিগত ৩০ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন ধাওয়ান।

ইনিংসের নবম ওভারে রুবেল হোসেনের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছিলেন শিখর ধাওয়ান। তবে, মুশফিকের হাত ফসকে বল বেড়িয়ে গেলে জীবন পান ধাওয়ান। পরের ওভারে মাশরাফির বলে আবারো উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ধাওয়ান। আম্পায়ারও আউটের সিদ্ধান্ত দেন। উইকেট থেকে বেড়িয়ে যান ভারতীয় ওপেনার। কিন্তু, এবারো মুশফিকের হাত ফসকে বল বেড়িয়ে যায়। বল কুড়িয়ে উইকেট ভেঙে দিলেও আম্পায়ার পড়ে তার সিদ্ধান্ত বাতিল করেন।

ধাওয়ান ফিরে যাওয়ার পর দ্রুতই মুশফিকের তালুবন্দি হয়ে ফেরেন বিরাট কোহলি। তাসকিনের দ্বিতীয় শিকারে সাজঘরের পথ ধরেন কোহলি। দলীয় ইনিংসের ১৮তম ওভারে দারুণ এক ডেলিভারিতে এক রান করা কোহলিকে ফিরিয়ে দেন তাসকিন।

তাসকিনের পর বাংলাদেশের আরেক তরুণ পেস তারকা মুস্তাফিজ ফিরিয়ে দেন রোহিত শর্মাকে। টাইগারদের গলার কাঁটা হয়ে থাকা রোহিত ৬৩ রান করে মুস্তাফিজের বলে দিশেহারা হয়ে মাশরাফির হাতে ক্যাচ তুলে দেন। মুস্তাফিজের আরেকটি অসাধারণ ডেলিভারিতে সাজঘরের পথ ধরেন দারুণ ফর্মে থাকা আজিঙ্কা রাহানে। নাসির হোসেনের দারুণ এক ক্যাচে ব্যক্তিগত ৯ রান করে বিদায় নেন রাহানে।

এরপর দলীয় ২৬তম ওভারে সাকিবের ঘূর্ণিতে পরাস্ত হয়ে ভারতীয় দলপতি মহেন্দ্র সিং ধোনি উইকেটের পেছনে মুশফিকের গ্লাভসবন্দি হলে টিম ইন্ডিয়ার পঞ্চম উইকেটের পতন ঘটে। আউট হওয়ার আগে ধোনি করেন মাত্র ৫ রান।

একই ওভারে জোড়া আঘাত হানেন মুস্তাফিজ। পরপর দুই বলে ফিরিয়ে দেন রায়না আর অশ্বিনকে। এরপরই অভিষেক ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বকে তাসকিনের পর চমকে দেন মুস্তাফিজ। জাদেজাকে ফিরিয়ে দিয়ে তিনি এ মাইলফলকে পৌঁছান। সৌম্য সরকারের হাতে ধরা পরার আগে জাদেজা করেন ৩২ রান। গত বছর ভারতের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে ৮ ওভার বল করে ২৮ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন তাসকিন।

দলীয় ২১৯ রানের মাথায় মাশরাফি ফিরিয়ে দেন মোহিত শর্মাকে। উইকেটের পেছনে মুশফিকের হাতে ধরা পড়েন ১১ রান করা মোহিত।

বাংলাদেশের ছুঁড়ে দেওয়া ৩০৮ রানের টার্গেটে ভারতের হয়ে ব্যাটিং উদ্বোধন করতে নামেন রোহিত শর্মা এবং শিখর ধাওয়ান। স্বাগতিকদের বোলিং সূচনা করেন টাইগারদের বোলিং চমক মুস্তাফিজুর রহমান। এই প্রথম টাইগারদের স্কোয়াডে একসঙ্গে চার পেসার খেলেছেন।

এর আগে নিজেদের প্রথম ইনিংসে তামিম ইকবাল আর সৌম্য সরকারের উড়ন্ত সূচনা আর সাকিব, সাব্বির, নাসিরের দৃঢ়তায় প্রথম ওয়ানডেতে টাইগাররা সবক’টি উইকেট হারিয়ে ৪৯.৪ ওভারে ৩০৭ রান করে।

তামিম ৬০, সৌম্য ৫৪, সাকিব ৫২, সাব্বির ৪১ আর নাসির ৩৪ রান করলে ভারতের বিপক্ষে টাইগারদের দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর দাঁড়ায়। এর আগে টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ২৯৬ রান (২০১০ সালের জানুয়ারিতে)।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বিকেল ৩টায় সফরকারী ভারতের বিপক্ষে বদলে যাওয়া টাইগার বাহিনী টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামে। তামিম আর সৌম্যর ব্যাটে ভর করে মাত্র ৮০ বলে দলীয় শতক পার করে টাইগাররা। আউট হওয়ার আগে তামিমের সঙ্গে ১০২ রানের জুটি গড়েন সৌম্য। যা ভারতের বিপক্ষে টাইগারদের সর্বোচ্চ ওপেনিং জুটি।

বৃষ্টির কারণে খেলা প্রায় এক ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর আবারো শুরু হয়। এরপর টাইগারদের দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে। সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল। ব্যক্তিগত ৬০ রান করে অশ্বিনের বলে রোহিত শর্মার তালুবন্দি হন তামিম। আউট হওয়ার আগে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩০তম অর্ধশতক হাঁকান দেশসেরা এ ওপেনার।

দলীয় ১৪৬ রানের মাথায় টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর স্বাগতিকদের বেশ ভালো ভাবেই টেনে নিয়ে চলেন সাকিব-সাব্বির। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় অর্ধশতকের দিকে ছুটতে গিয়ে ১৫ ওয়ানডে খেলা সাব্বির ব্যক্তিগত ৪১ রান করে বিদায় নেন। জাদেজার বলে বোল্ড হওয়ার আগে সাব্বির ৪৪ বলে ৫টি চার আর একটি ছক্কা হাঁকান। ঘুরে দাঁড়িয়ে সাকিব-সাব্বির মিলে ৮৩ রানের জুটি গড়েন।

সাব্বির রহমানের বিদায়ের পর সাকিব আল হাসানের সঙ্গে জুটি গড়েন নাসির হোসেন। ভারতীয় বোলারদের কোনো সুযোগ না দিয়ে ব্যাট করতে থাকা সাকিব ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২৯তম অর্ধশতক হাঁকিয়ে উমেশ যাদবের লাফিয়ে উঠা বলে শট নিয়ে জাদেজার হাতে ধরা পড়েন। আউট হওয়ার আগে ৬৮ বলে ৫২ রানের একটি ইনিংস খেলেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার। নাসিরকে সঙ্গে নিয়ে ৩৮ রানের জুটিও গড়েন সাকিব।

সাকিব আল হাসান ফিরে গেলেও থেমে থাকেনি টাইগারদের রানের চাকা। নাসির হোসেন নিজের পুরোনো রূপে ফিরে ২৭ বলে তিন চার আর এক ছয়ে ৩৪ রান করেন। উমেশ যাদবের বলে জাদেজার তালুবন্দি হন নাসির। শেষ দিকে ব্যাটে ঝড় তুলে মাশরাফি খেলেন ২১ রানের ইনিংস।

ভারতের হয়ে সাতজন বোলার বল করেন। ১০ ওভারে ৫১ রান দিয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট পান অশ্বিন। এছাড়া দুটি করে উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার আর উমেশ যাদব। মোহিত শর্মা এবং রবীন্দ্র জাদেজা একটি করে উইকেট দখল করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24