বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:২৩ অপরাহ্ন

ত্যাগের মহিমায় জগন্নাথপুরসহ সারাদেশে উদযাপতি হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৪২ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: ত্যাগের মহিমায় জগন্নাথপুরসহ সারাদেশে উদযাপতি হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। সকল ভেদাভেদ ভুলে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে আজ সবাই সামিল হয়েছেন এক কাতারে।
মুসলিম জাতির দ্বিতীয় বৃহত্তম এই ধর্মীয় উৎসবের অন্যতম উদ্দেশ্য হলো ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর হয়ে হালাল পশু কোরবানির মাধ্যমে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ।
রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার সকাল ৮টায় জাতীয় ঈদগাহ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত ঈদ জামাতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, মন্ত্রী পরিষদ সদস্য, বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, সংসদ সদস্যসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রণ করেন। অপরদিকে জগন্নাথপুর উপজেলার প্রতিটি মসজিদে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসব আমেজের মধ্যদিয়ে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরে ধূম পড়ে কোরবানীর দেয়ার কাজ। দেশের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত সকাল ৯টায় কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। ঈদের নামাজ আদায়ের জন্য মুসুল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে বিশেষ ট্রেন ও বাস চলাচল করে।্হযরত ইব্রাহিম (আ.)-এর আত্মত্যাগ ও অনুপম আদর্শের প্রতীকী নিদর্শন হিসেবে প্রায় সাড়ে চার হাজার বছর আগে থেকে কোরবানির এ প্রচলন শুরু। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নির্দেশে হযরত ইব্রাহিম (আ.) তাঁর প্রাণপ্রিয় পুত্র হযরত ইসমাইল (আ.)-কে কোরবানি করতে উদ্যত হয়েছিলেন। ওই অনন্য ঘটনার স্মরণেই এ কোরবানির প্রচলন। আল্লাহপাকের নির্দেশে তার জীবদ্দশায় প্রতি বছরই পশু কোরবানির মাধ্যমে সৃষ্টিকর্তার আনুগত্যের আদর্শ প্রতিষ্ঠা করেন।
মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)ও এ আদর্শ অনুসরণ ও বহাল রাখতে আদিষ্ট হন। তিনিও তাঁর জীবদ্দশায় প্রতিবছরই কোরবানি করেছেন এবং তার উম্মতদের জন্য এ আদর্শ ও প্রথা অনুসরণের নির্দেশ দিয়ে গেছেন।
এ আদর্শ অনুসরণের জন্য গোটা মুসলিম জাহানের মতো বাংলাদেশেও ঈদ উদযাপনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এ উপলক্ষে দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশে পশু কোরবানী দেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন।
মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় দ্বিতীয় বৃহত্তম এ উৎসব উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন।
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এ উপলক্ষে দেয়া বাণীতে দেশবাসীসহ বিশ্বের সকল মুসলমান ভাইবোনদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, কোরবানির শিক্ষা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্যকে ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে জাতীয় উন্নয়ন ত্বরান্বিত করি- এটাই হোক এবারের ঈদের অঙ্গীকার।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণীতে ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে দেশবাসী ও বিশ্বের সকল মুসলিম জনগোষ্ঠীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, মহান আল্লাহর উদ্দেশ্যে প্রিয় বস্তুকে উৎসর্গের মাধ্যমে তাঁর সন্তুষ্টি লাভের যে অনুপম দৃষ্টান্ত হযরত ইব্রাহিম (আ.) স্থাপন করে গেছেন, তা বিশ্ববাসীর কাছে চিরকাল অনুকরণীয় ও অনুসরণীয় হয়ে থাকবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24