মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে দু’পক্ষের বিরোধে বলীর শিকার শিশু সাব্বিরের খুনীরা এখনও ধরা পড়েনি জগন্নাথপুরে ৬০ কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান জগন্নাথপুরে সনাক্তকারী ‘বহিরাগতদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন প্রাণের চেয়েও প্রিয় মহানবী (সা.) সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতার ছেলে পিটালেন ডাক্তারকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আহত ৩ জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের উদ্যাগে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান জগন্নাথপুর আ,লীগের সন্মেলন কে স্বাগত জানিয়ে সৈয়দপুর বাজারে মিছিল জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সন্মেলন ১ ডিসেম্বর জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কে ফের বুধবার থেকে ধর্মঘট, এলাকায় মাইকিং

ধর্মপাশায় আ.লীগের দু’পক্ষের ডাকা সভাকে কেন্দ্র করে ১৪৪ ধারা জারি

এনামুল হক এনি,ধর্মপাশা::
  • Update Time : সোমবার, ৭ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৮৬ Time View

ধর্মপাশায় একই সময়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের পৃথক পৃথক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে রোববার সকাল ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করে প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান এ আদেশ জারি করেন। ওইদিন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলা সদরে এ ব্যাপারে মাইকিং করা হয়। অপরদিকে বিকেল তিনটার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিবদমান এক পক্ষ উপজেলা বিআরডিবির সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন। গত ১ অক্টোবর জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমেদ মুরাদ এমপিকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন। জানা যায়, রবিবার বেলা ১১টায় ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের এক বিশেষ জরুরি সভা স্থানীয় দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস এ সভা আহ্বান করেছিলেন। অপরদিকে একই সময়ে উপজেলার হাসপাতাল রোডস্থ বঙ্গবন্ধু মোড়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের এক সময়ের এপিএস হিসেবে পরিচিত শামীম আহমেদ মুরাদ বলয়ের আরও একটি সভা আহ্বান করা হয়। ফলে উপজেলা সদরে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা দেখা দেয়। কিন্তু শামীম আহমেদ বিলকিস গত শনিবার রাতে তাদের পূর্ব নির্ধারিত সভা স্থগিত ঘোষণা করেন। অপরদিকে শামীম আহমেদ মুরাদও রোববার সকালে তাদের সভা স্থগিত করেন। উপজেলা প্রশাসন অহেতুক ১৪৪ ধারা জারি করেছেন বলে মন্তব্য করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস। তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান বলেন, ‘রোববার সকালবেলা লোকজন সভার উদ্দেশ্যে জমায়েত হতে থাকায় সভাস্থলের পার্শ্ববর্তী কয়েকটি পূজা মন্ডপের নিরাপত্তা বিঘিœত হতে পারে এমন আশঙ্কায় থানার ওসির আবেদনের প্রেক্ষিতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।’
এর আগে গত ১ অক্টোবর সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ প্রতিনিধি সভায় শামীম আহমেদ মুরাদ তার বক্তব্যে স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনকে নিয়ে বিভিন্ন মন্তব্য করেন। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে শামীম আহমেদ বিলকিস তার লিখিত বক্তব্যে শামীম আহমেদ মুরাদের ওই বক্তব্যেকে মিথ্যা ও বানোয়াট দাবি করে প্রতিবাদ এবং নিন্দা জানিয়ে তার (মুরাদ) বিরুদ্ধে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ধর্মপাশা সদর ও সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে নৌকার বিরুদ্ধে প্রচারণা, গত দশ বছর তাহিরপুর বালুর খোয়ারী থেকে চাঁদাবাজি, বিদ্যালয়ের দপ্তরী নিয়োগের নামে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে টাকা নেওয়া এবং জলমহাল কমিটির সদস্য থাকায় জলমহাল দেওয়ার নাম করে উৎকোচ গ্রহণের অভিযোগ করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলমগীর কবির, যুগ্ম সম্পাদক মোকাররম হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক দেনিয়ার হোসেন খান পাঠান, মুজিবুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জুবায়ের পাশা হিমু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফেরদৌসুর রহমান, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ হোসেন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ মিয়া, সাবেক মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার সুলতান আহমেদ মজুমদার, পাইকুরাটি ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মাফিজ আলী, সেলবরষ ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেনোয়ার হোসেন খান পাঠান, সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর কবির, সাধারণ সম্পাদক বদরুল হুদা চৌধুরী রাসেল, জয়শ্রী ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি মাধব চন্দ্র সরকার প্রমুখ।
শামীম আহমেদ মুরাদ তার বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যে ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত দাবি করে বলেন, ‘জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সামনে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছি তা সত্য। কোনো মিথ্যের আশ্রয় নেওয়া হয়নি। আমি কখনও দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেইনি। বালু খোয়ারী থেকে একটি টাকা নিয়েছি কেউ বলতে পারবে না। জলমহালের কমিটিতে ছিলাম কিন্তু এ নিয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেছে বলতে পারবে না। একটি কুচক্রী মহল আমার নামে বিভিন্ন কুৎসা রটাচ্ছে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24