রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নতুন ২ কাণ্ডারির পরিচিতি জনগণের মৌলিক অধিকার ও আইনের শাসনে গুরুত্ব দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী দ.সুনামগঞ্জে বিদেশী রিভলবারসহ গ্রেফতার ১ সাংবাদিক এ এস রায়হানের পিতার মৃত্যু, জানাজা সম্পন্ন পাটলী উইমেন্স কলেজ উন্নয়নে প্রবাসীদের ১২ লাখ টাকার অনুদান জগন্নাথপুরে শ্রমিক-ব্যবসায়ীদের দ্বন্দ্বের নিস্পত্তি, পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার বাংলাদেশে ঢুকে মসজিদ নির্মাণে বিএসএফ’র বাধা প্রদান জগন্নাথপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সালিশী ব্যক্তিত্ব নুরুল ইসলাম আর নেই সুনামগঞ্জে বিয়ের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে ৮০ জন হাসপাতালে, ১ জনের মৃত্যু

নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে অবহেলা করলে কঠোর ব্যবস্থা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ১১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী বলেছেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে হলে প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচন কার্যালয়ের লোকদের সমন্বয় করে কাজ করতে হবে। সবার মধ্যে সমন্বয় থাকলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে। নির্বাচনে কোনো ধরনের শৈথিল্য দেখালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। একই সঙ্গে প্রার্থীদের নির্বাচনী আইন ও নীতিমালা মেনে চলতে হবে।

আজ শুক্রবার বিকেলে কুমিল্লা নগরের ছোটরা এলাকায় অবস্থিত কুমিল্লা আঞ্চলিক ও জেলা সার্ভার স্টেশন পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার এসব কথা বলেন।

এর আগে বেলা ১১টায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন নিয়ে নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এক মতবিনিময় সভা করেন। এতে প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন।

সভায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর আলম আমন্ত্রিত গণমাধ্যমকর্মীদের পরিচয় নেওয়ার পর তাঁদের সভা থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। একই সঙ্গে ওই সভাকে ‘কনফিডেনশিয়াল’ বলে তিনি উল্লেখ করেন। তখন গণমাধ্যমকর্মীরা জেলা প্রশাসককে বলেন, আমন্ত্রণ জানিয়ে এভাবে অপমান করার ঘটনা বিগত দিনে কুমিল্লায় ঘটেনি। এরপর জেলা প্রশাসক বলেন, সভার পর ব্রিফিং দেওয়া হয়। আপনারা বাইরে অপেক্ষা করেন। পরে সাংবাদিকেরা সভা থেকে বের হয়ে এসে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দক্ষিণ পাশে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেন। ওই সভায় জেলা প্রশাসকের সংবাদ বর্জনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ টেলিভিশনের কুমিল্লা প্রতিনিধি ও কুমিল্লা প্রেসক্লাবের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘জেলা প্রশাসক সভা শুরুর আগেই আমাদের বারণ করতে পারতেন। কিন্তু তিনি আমন্ত্রণ জানিয়ে এখানে আমাদের আনলেন। সভার অনুষ্ঠানে বসালেন। মাইক্রোফোন হাতে দিয়ে পরিচয় নিলেন। এরপর সভা থেকে বের হয়ে যেতে বললেন। এটা শিষ্টাচার বহির্ভূত ও অনভিপ্রেত। অতীতে কোনো দিন কুমিল্লায় এমন আচরণ করেনি কেউ।’
সুত্র- প্রথম আলো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24