সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সড়ক রক্ষায় ১০ টন ওজনের অধিক যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ, আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা প্রার্থীরা গরুর মাংস বিক্রি: ভারতে খ্রিস্টান যুবককে পিটিয়ে হত্যা জগন্নাথপুরের ব‌্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া খুনের ঘটনায় সানিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড, তিনজনের যাবজ্জীবন ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের ‘হামলা’ আহত ২৫ অনেকেই গা ঢাকা দিয়েছে, অনেককেই নজরদাড়িতে রাখা হয়েছে: কাদের বিরিয়ানি খেলে শিক্ষকসহ ৪০ জন অসুস্থ আল কোরআন অনুসরণের আহ্বান রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের! জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে চলচ্চিত্রে অবদানে আজীবন সম্মাননা নিলেন শাবানা

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৪ জুলাই, ২০১৭
  • ৭৩ Time View

 

বিনোদন ডেস্ক::বাংলা চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য আজীবন সম্মাননা পেলেন শাবানা। ৬০ এর দশকের শেষ দিক থেকে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করে আসা এই নারীকে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন স্বয়ং সরকার প্রধান।

একই অনুষ্ঠানে আজীবন সম্মামনা দেয়া হয়েছে সঙ্গীত শিল্পী ফেরদৌসী রহমানও। তবে অনুস্থতার কারণে তিনি হাজির হতে না পারায় তার পুত্রবধূ সৈয়দা সাদিয়া আমিন প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নেন।

সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে ২০১৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এই পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

বাংলা চলচ্চিত্র আর চিত্রনায়িকা শাবানা নামটি আলাদা করা কঠিন। স্বাধীনতার আগে থেকে রূপালী পর্দা কাঁপানো এই অভিনেত্রীর নায়িকা থাকাকালীন জনপ্রিয়তা হাল আমলে তুলনা করা কঠিন। তিন যুগের সিনেমা জগতে প্রায় প্রতিটি সিনেমাই ব্যবসা সফল হয়েছে তার। এভাবেই সাফল্য শব্দটি জড়িয়ে গিয়েছে তার সঙ্গে। তবে জীবনাচরণ পাল্টে বহুদিন তিনি পর্দার বাইরে।

গুণী এই অভিনেত্রীর পূর্ণ নাম আফরোজা সুলতানা আর ডাক নাম রত্মা। শিশুশিল্পী হিসেবে নতুন সুর চলচ্চিত্রে চলচ্চিত্রে আবির্ভাব শাবানার। পরে ১৯৬৭ সালে চকোরী চলচ্চিত্রে চিত্রনায়ক নাদিমের বিপরীতে প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রেইচিত্র পরিচালক এহতেশাম তাঁর নাম শাবানা দেন।৩৬ বছর কর্মজীবনে ২৯৯টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন শাবানা। ২০০০ সালে রূপালী জগৎ থেকে নিজেকে আড়াল করে ফেলেন এ নায়িকা।

বাংলা সিনেমা থেকে বিদায় নেয়ার পর শাবানা স্থায়ী হন যুক্তরাষ্ট্রে, মনযোগ দেন ধর্মকর্মে। মাঝে মাঝে ঢাকায় এলেও প্রকাশ্যে আসেননি আর। এক পর্যায়ে পুরনো ছবিগুলো নষ্ট করে দেয়ার অনুরোধও করেন তিনি।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত করেন শাবানা। তার স্বামী ওয়াহিদ সাদিক রাজনীতিকে যোগ দিয়ে আওয়ামী লীগের হয়ে নির্বাচন করতে চাইছেন। আর স্বামীর জন্য এক সমাবেশে নৌকা প্রতীকে ভোটও চেয়েছেন শাবানা।

দীর্ঘ কর্মজীবনে শাবানা অভিনয়ের জন্য নয় বার ও প্রযোজক হিসেবে এক বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন এবং ২০১৫ সালে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে সম্মাননা নেয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলতে দেখা যায় শাবানাকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শাবানা ও সঙ্গীতশিল্পী ফেরদৌসী রহমানকে পুরস্কার দেওয়ার বিষয়ে বলেন, ‘অভিনয়ে ও সঙ্গীতে তাদের অবদান অনেক। তাদের অবদান যেন ভুলে না যাওয়া হয়। সম্মাননা দিয়ে তাদের অবদার স্মরণ করে দিতে চাই।’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা দেয়া হচ্ছে ২০০৯ সাল থেকে। শাবানা ও ফেরদৌসীকে নিয়ে এখন পর্যন্ত এই পুরস্কার পেয়েছেন নয় জন।-ঢাকাটাইমস

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24