শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বোরকা পরে সমাবর্তনে যাওয়ায় প্রথম হয়েও স্বর্ণপদক পেলেন না নিশাত জগন্নাথপুরে কাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবে না মিরপুরে প্রতীক বরাদ্দের আগেই প্রচারণায় প্রার্থীরা! জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে টমটম চালকের আত্মহত্যা জগন্নাথপুরে শিল্পকলা একাডেমির সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর বাজারকে সিসি ক্যমেরার আওতায় আনতে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় সমূহে পরিছন্নতা সামগ্রী ও প্রচারপত্র বিতরণ কার্যক্রম শুরু রাতভর ৪ ক্যাসিনোতে অভিযান নারায়ণগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে গলা কেটে হত্যা যুক্তরাজ‌্যে বসবাসতরত জগন্নাথপুরের আ.লীগ পরিবারের মিলনমেলা

ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচন আজ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০১৫
  • ১৩৩ Time View

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি:: ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচন আজ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে ব্রিটেনের প্রধান তিনটি দল থেকে লড়ছেন ১২ বাংলাদেশী। তন্মধ্যে জগন্নাথপুরীসহ রয়েছেন ১০ জন সিলেটি প্রাথী। নির্বাচনে লেবার পার্টি থেকে ৮ জন, লিবারেল ডেমোক্র্যাটস (লিবডেম) থেকে ৩ জন এবং কনজারভেটিভ পার্টি থেকে একজন। ব্রিটেনের নির্বাচনে এবারই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বাংলাদেশী প্রার্থী যেমন মনোনয়ন পেয়েছেন, তেমনি সর্বোচ্চ সিলেটিও এবার লড়ছেন নির্বাচনে। ফলে এবারের নির্বাচন নিয়ে গোটা বাংলাদেশের চাইতে সিলেটের মানুষের আগ্রহটাই বেশি। এ নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারলে ব্রিটেনে বাংলাদেশি তথা সিলেটিদের ক্ষমতায়নের একটি বিরাট সুযোগ তৈরী হবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
এদিকে এবারের নির্বাচনে একক কোনো দলের আধিপত্য থাকবে না বলেই মনে করছেন নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা। তবে মূল লড়াইটা লেবার পার্টি এবং কনজারভেটিভ পার্টির মধ্যে হতে পারে।
জানা যায়, এবার ব্রিটেনের পার্লামেন্টে নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী সিলেটি প্রার্থী ছিলেন ১১ জন। এঁরা হচ্ছেন লেবার পার্টির রোশনারা আলী, ব্যারিস্টার আনোয়ার বাবুল মিয়া, আমরান হোসাইন, ড. রূপা আশা হক, আলী আখলাকুল, ফয়ছল চৌধুরী, সুমন হক, লিবারেল ডেমোক্রেটস (লিবডেম) পার্টির আশুক আহমদ, প্রিন্স সাদিক আহমদ, মোহাম্মদ সুলতান ও কনজারভেটিভ পার্টির মিনা রহমান।
গত রোববার ছিল নির্বাচনের আগে শেষ সাপ্তাহিক ছুটির দিন। দেশটির নির্বাচনী ভাষায় দিনটিকে বলা হয় ‘কি সিট ডে’। এদিন মার্জিনাল (তুমুল প্রতিদ্বন্ধিতাপূর্ণ) আসনগুলোতে শেষবারের মতো ব্যাপক প্রচারণা চালান প্রার্থীরা।
তন্মধ্যে হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসনে শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক এবং ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনে সিলেটের জগন্নাথপুরের ড. রূপা আশা হক প্রচারণা চালান। এছাড়া বিশ্বনাথের রোশনারা আলীও রোববার ওই দুই আসনে প্রচারণা চালিয়েছেন। একইসাথে তিনি তার পূর্ব লন্ডনের বাঙ্গালি অধ্যুষিত বেথনাল গ্রিন এন্ড বো আসনেও ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছেন। এই আসন থেকেই ২০১০ সালের নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ব্রিটেনে এমপি হয়েছিলেন রোশনারা।
এবারের নির্বাচনে সিলেটি ১০ জন প্রার্থীর বাইরে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত প্রার্থীরা হচ্ছেন লেবার পার্টির প্রার্থী শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক এবং লিবডেম’র প্রার্থী নারায়নগঞ্জের মেরিনা আহমদ।
এবার বাংলাদেশী প্রার্থীদের সংখ্যা বেশি হওয়ার নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাজ্য প্রবাসী বাংলাদেশীদের আগ্রহ অনেক বেড়েছে। বিশেষ করে বাঙ্গালি অধ্যুষিত পূর্ব লন্ডনে নির্বাচনের আমেজ রয়েছে পুরোমাত্রায়। এদিকে নির্বাচনী জরিপে এবার এগিয়ে কিছুটা রয়েছে লেবার পার্টি। তবে নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদের মতে এবার কোনো দলই নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারবে না। দুইয়ের বেশি দলের সমন্বয়ে কোয়ালিশ সরকার গঠিত হতে পারে এবার। কনজারভেটিভ ও লেবার পার্টির মধ্যেই হবে মূল প্রতিদ্বন্ধিতা। তবে নির্বাচনে প্রভাবকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে পারে ইউকে ইনডিপেন্ডেন্ট পার্টি (ইউকেআইপি) ও গ্রিন পার্টির মতো ছোট দলগুলো।
গত সপ্তাহে স্কাই নিউজ প্রকাশিত জরিপের ফলাফল বলছে, এবার কনজারভেটিভ পার্টির ৩৫ শতাংশ, লেবার পার্টির ৩৫ শতাংশ, লিবডেমের ৭ শতাংশ, ইউকেআইপির ১১ শতাংশ এবং অন্য দলগুলোর ১২ শতাংশ ভোটার কিংবা সমর্থন রয়েছে।
ব্রিটেনের শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা ডেইলি সানের পাঠক জরিপ অনুযায়ী লেবার পার্টির চাইতে কনজারভেটিভ পার্টি মাত্র এক শতাংশ ভোটে এগিয়ে রয়েছে। ব্রিটেনের আরেক শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা ডেইলি মেইলের জরিপ বলছে, এখনো কোন দলকে ভোট দেবেন, এমন সিদ্ধান্তহীন ৪০ শতাংশ ভোটারই ঠিক করে দিতে পারে চূড়ান্ত সরকার গঠনের বিষয়টি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24