বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:৪৯ অপরাহ্ন

লন্ডনে বিএনপির প্রার্থী লড়াই, সুনামগঞ্জ-৩ আসনে কয়ছর না আলী?

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৯ আগস্ট, ২০১৭
  • ২৭ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি
জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপি’র প্রার্থী হচ্ছেন কে? কয়ছর এম আহমদ না কর্নেল অব. আলী আহমদ। দুজনেই যুক্তরাজ্যে রয়েছেন। মনোনয়ন তদবির করছেন এই দুই নেতাই। কয়ছর এম আহমদ যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এবং কর্নেল আলী জগন্নাথপুর বিএনপি’র সাবেক আহ্বায়ক এবং জেলা বিএনপি’র সাবেক সহ-সভাপতি। ঈদকে সামনে রেখে কয়ছর এম আহমদের পক্ষে একাধিক দলীয় নেতা-কর্মী শুভেচ্ছা জানিয়ে জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ এবং সুনামগঞ্জ শহরেও পোষ্টার সাঁটিয়েছেন।
জগন্নাথপুরের সৈয়দপুরের বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা কর্নেল অব. আলী আহমদ সুনামগঞ্জ-৩ আসনে জাপার প্রার্থী হয়ে ২০০৫’এর উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। এরপর এই আসনে নিজের ভোটের অবস্থান শক্তিশালী করার জন্য ২০০৭ সালে বিএনপিতে যোগদান করেন তিনি। তিনি এই আসনে বিএনপি’র প্রার্থী হবার জন্য মরিয়া হয়ে তদবির করছেন। গত কয়েক মাস হয় দলীয় সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সান্নিধ্য লাভের জন্য যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন কর্নেল অব. আলী আহমদ।
সম্প্রতি যুক্তরাজ্য থেকে মুঠোফোনে এ প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলার সময় কর্নেল অব. আলী আহমদ বলেছেন,‘দলে আমার অবস্থান সুদৃঢ় রয়েছে, আমার জন্য দোয়া করবেন, দল নির্বাচনে গেলে আমি আশা করছি আমার মূল্যায়ন হবে।’
এদিকে, এই আসনে বিএনপি’র অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদ। কয়ছর এম আহমদের পক্ষে তাঁর সমর্থকরা নির্বাচনী এলাকাসহ জেলা শহরেও প্রচারণা চালাচ্ছেন। ঈদুল আযহাকে
সামনে রেখে কয়ছর এম আহমদের ঈদ শুভেচ্ছার পোস্টার সাঁটানো হয়েছে দেয়ালে দেয়ালে।
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঘনিষ্টজন হিসাবে পরিচিত, যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমদ রোববার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে বলেন,‘জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জে দলীয় প্রার্থী দেবার দাবি রয়েছে। জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জে আমার পক্ষে যারা পোস্টার-লিফলেট, বিলবোর্ড দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন তাদের অনেকের সঙ্গে আমার কোন দিন কথাও হয়নি। কিন্তু তারা মনে করছেন দলের প্রার্থী হিসাবে আমি যোগ্য। আমি জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক এবং পরবর্তীতে সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। যুক্তরাজ্য ছাত্রদলের সদস্য সচিব এবং পরবর্তীতে সেক্রেটারী ছিলাম। লন্ডন মহানগর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক, পরবর্তীতে সাধারণ সম্পাদক, যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক এবং গত ৪ বছর হয় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছি। আমি যখন যে ইউনিটে দায়িত্ব পালন করেছি তখন সংগঠন শক্তিশালী হয়েছে। যুক্তরাজ্য বিএনপি এখন শক্তিশালী অবস্থানে। নেতা-কর্মীরা চাচ্ছেন দল নির্বাচনে গেলে আমি যেন সুনামগঞ্জ-৩ (জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ) আসনে প্রার্থী হই। আমি কর্মীদের বলছি দল মনোনয়ন দিলে অবশ্যই নির্বাচন করবো।’
প্রসঙ্গত. ২০০১’এর নির্বাচনে বিএনপি জোটবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করায় এই আসনে জোটের শরিক জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের নেতা অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা জোটের প্রার্থী হয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদের কাছে পরাজিত হন। ৩ বছর পর এই আসনের উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হন জোটের প্রার্থী মাওলানা শাহীনুর পাশা। এই আসনে জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন হলে এবারও মাওলানা শাহীনুর পাশা তাঁর দলের কোটায় এই আসন চাইবেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24