রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সুনামগঞ্জে বিতর্কিতদের আওয়ামী লীগে স্হান না দিতে তৃণমূল নেতাদের দাবি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী পরীক্ষা:জগন্নাথপুরে প্রথম দিনে অনুপস্থিত ২৬০ যুক্তরাজ্য বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটিকে জগন্নাথপুর বিএনপির অভিনন্দন পেঁয়াজ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করলেন কাদের সিদ্দিকী ‘ব্রিটিশ বাংলাদেশী হুজহু’র প্রকাশনা ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের বারোতম আসর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি:প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে নি:স্ব ৮ পরিবার আশ্রয় নিলেন স্কুলে.মানবেতর জীবন যাপন মিশর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসছে মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যে বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি

সর্বত্র জুড়ে বিরুপ প্রতিক্রিয়া,সুনামগঞ্জকে যারা দূর্গত এলাকা ঘোষনার দাবী করেছেন তাদের জ্ঞানই নেই

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৭
  • ২১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: সুনামগঞ্জকে যারা দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন তাদের জ্ঞানই নেই- দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ কামালের এমন বক্তব্যে জেলাজুড়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।
বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় সচিব সুনামগঞ্জকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে আন্দোলনকারীদের দেশপ্রেম নিয়ে প্রশ্ন তুলে এমন মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলি। দেশে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নামে একটি আইন আছে। এই আইনের ২২ ধারায় বলা হয়েছে কোন এলাকার অর্ধেকের উপরে জনসংখ্যা মরে যাওয়ার পর ওই এলাকাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে হয়। না জেনে যারা এমন সস্তা দাবি জানায় তাদের জ্ঞানই নেই।
সচিব আরো বলেন, জাতিসংঘ ও ইউনিসেফ যদি দুর্গত এলাকা ঘোষণার কথা বলে তাহলে সেই এলাকার প্রশাসন মন্ত্রণালয়কে জানাবে। মন্ত্রণালয় তদন্ত করে মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে জানানোর পর মহামান্য রাষ্ট্রপতি তখন ওই এলাকাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করবেন।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সচিবের এমন মনগড়া তথ্য শোনার পর উপস্থিত জনপ্রতিনিধি, সুধীজন, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের লোকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। সেইসাথে ফসলহার কৃষকের পক্ষে আন্দোলনকারীদের নিয়ে সচিবের এমন কটূক্তির প্রতিবাদে
উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরা সভা থেকে বেরিয়ে আসেন।
সভায় উপস্থিত সুধিজনেরা জানান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন ২০১২ এর ২২ ধারার কোন উপধারায় দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে অর্ধেকের বেশি মানুষ মারা যাওয়ার কোন শর্তের কথা উল্লেখ নেই।
অবজ্ঞার সুরে সচিব আরো বলেন, কিসের দুর্গত এলাকা। একটি ছাগলও তো মারা যায়নি।
প্রসঙ্গত, চলতি মৌসুমে ফসলরক্ষা বাঁধ ভেঙে, কোথাও বাঁধ না হওয়ায় একের পর এক হাওর তলিয়ে যাওয়ার পর জেলার বিস্তীর্ণ এলাকার লাখ লাখ বোরো চাষী সর্বশান্ত হয়ে গেলে জেলাজুড়ে বিভিন্ন ব্যক্তি, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন, কৃষক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি ওঠে। এর ধারাবাহিকতায় গত ৫ এপ্রিল শহরের আলফাত স্কয়ারে সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ জনসভা করে জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানান। একই দিন দুপুরে শহরের শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগার মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানান সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আয়ুব বখত জগলুল। দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলন করে সর্বস্তরের প্রতিবাদী মানুষের সংগঠন ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন’। সংবাদ সম্মেলন করে জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানান জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক এমপি নাছির উদ্দিন চৌধুরী। জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি দিয়ে সুনামগঞ্জ জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি জানানো হয়।
এদিকে গত ১৭ এপ্রিল রাতে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ সুধীজনদের সঙ্গে মতবিনিময় করার সময় কিশোরগঞ্জের সাংসদ রেজওয়ান আহম্মেদ তৌফিক সুনামগঞ্জসহ হাওরাঞ্চলকে দুর্গত এলাকার ঘোষণার দাবি জানান। এর আগে তার সংসদীয় এলাকায় কিশোরগঞ্জকে দুর্গত এলাকার ঘোষণার দাবি জানান ওই সাংসদ।
সভায় উপস্থিত পৌর মেয়র আয়ূব বখত জগলুল বলেন, ‘কিছু মানুষ দেশ বাঁচাও হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাচাও নামে মানুষকে সরকারের বিরুদ্ধে উস্কে দিচ্ছে। এরা সেনাবাহিনীকে দিয়ে বাঁধ নির্মাণের কথা বলে একটি প্রতিষ্ঠানকে হেয় করতে চাচ্ছে। এই মুহুর্তে সুনামগঞ্জকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার কোন প্রয়োজন নেই। দুর্গত এলাকা ঘোষণার কথা বলে কিছু মানুষ লাফালাফি করেছে। আমাদের ভূমিকায় এদের লাফালাফি এখন কিছুটা স্থিমিত হয়েছে।’
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট বলেন, ‘কিছু মানুষ ঢালাও ভাবে সবার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলছে। সবাইকে ঢালাওভাবে দুর্নীতিবাজ বলা যাবেনা। যারা কাজ করেছে তাদেরকেও দুর্নীতিবাজ বলা হচ্ছে। অথচ এরা কোন বিলই তুলেনি। তিনি বলেন, পাউবোর সবাই খারাপ না। যারা দুর্নীতিবাজ তাদের বিচার হোক।’
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন, উপস্থিত দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘সুনামগঞ্জের ফসলহারা কৃষকের কৃষিঋণ মওকুফ, নতুন করে ঋণ প্রদান ও কৃষি উপকরণ প্রদানের দাবি জানান এবং বাঁধ নির্মাণের দায়িত্বরত দুর্নীতিবাজদের বিচারের দাবি করেন।’ একই সাথে হাওরের দুর্যোগ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে জাতির দৃষ্টি আকর্ষণ করায় জেলার সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান।
সভায় পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, ‘দুর্গত এলাকা ঘোষণা করতে হলে কোন এলাকার অর্ধেকের বেশি মানুষ মারা যেতে হবে। সচিবের এমন বক্তব্যের দ্বিমত পোষণ করছি আমি। আমি বলেছি মহামান্য রাষ্ট্রপতি সুনামগঞ্জে মতবিনিময় সভায় জাতির জনককে উদ্বৃত করে বলেছেন, না কাঁদলে মা-ও দুধ খাওয়ায় না। তিনি বলেছেন, আগামী ২ মে সংসদ আহবান করেছি। ঐ অধিবেশনে ভাটির সকল সংসদ সদস্য জোরালোভাবে আপনাদের উত্থাপন করবেন।’
সভায় উপস্থিত সুনামগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ ড. জয়া সেন গুপ্তা বলেন, ‘হাওরবাসীর দুর্ভোগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র সহানুভুতি এবং রাষ্ট্রের উচ্চ পদে আসীনদের দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোয় আমরা স্বস্তিবোধ করছি। দুটি বিষয়ে আমরা আপনাদের কাছে দাবি জানাবো, একটি হচ্ছে আগামীতে যাতে অনিয়ম-দুর্নীতি’র কারণে আমাদের কৃষকরা দুর্দশার মধ্যে না পড়ে। দ্বিতীয়ত হচ্ছে বর্তমান বিপদ সময়ে খাদ্য এবং দুর্ভোগ লাঘব করার উপায় বের করতে হবে। দুর্যোগে কেউ যাতে কষ্ট না পায় সেটি খেয়াল রাখতে হবে।’
এদিকে একই সভায় প্রধান অতিথি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ফসলহারা কৃষকদের প্রতি আন্তরিকতা রয়েছে উল্লেখ করে বলেন, ‘আমাদের এই দুর্যোগ মোকাবেলার প্রস্তুতি ও সামর্থ রয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, ৬ মাস কেন, প্রয়োজনে ৬ বছর খাওয়ানোর মজুদ আমাদের রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন একটি মানুষও না খেয়ে মারা যাবেনা।’ মন্ত্রী সুনামগঞ্জ জেলার দেড় লাখ পরিবারকে তিন ধরনের খাদ্য সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।
প্রস্তুতিসভায় ফসলহারা কৃষকের জন্য মন্ত্রীর আন্তরিকতা ও মমতা লক্ষ্য করা গেলেও সচিবের এই দায়িত্বহীন বক্তব্যে উপস্থিত সুধীজন মর্মাহত হন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24