সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কাশ্মীরে নির্বিচারে ধরপাকড় চলছে স্মৃতির রত্নায় ঈদ ভাবনা || আব্দুল মতিন জগন্নাথপুরে আগুনে পুড়ল দুইটি ঘর,ক্ষয়ক্ষতি ১০ লাখ জগন্নাথপুর আদর্শ মহিলা কলেজের উদ্যােগে দুই যুক্তরাজ্য প্রবাসিকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে শিক্ষক সংকট নিরসনে প্রবাসি সংগঠন নিয়োগ দিল ১২ প্যারা শিক্ষক যে ঘুষ খাবে সেই কেবল নয়, যে দেবে সেও অপরাধী: প্রধানমন্ত্রী বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ৭ জগন্নাথপুরের পাটলীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা জগন্নাথপুরে গাছ কাটার ঘটনায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে জগন্নাথপুরে শিকল দিয়ে তিনদিন বেঁধে রাখার পর রিকশাচালকের মৃত্যু:হত্যা মামলা দায়ের

সুরমা নদীকে জঞ্জালমুক্ত করার প্রত্যয় সিলেট সিটি করপোরেশনের

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০১৫
  • ৫৭ Time View

স্টাফ রিপোর্টার : আন্তর্জাতিক নদী দিবসে সুরমা নদীকে জঞ্জালমুক্ত করার প্রত্যয় নিয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের সহযোগিতায় আবর্জনা পরিষ্কারে নেমেছে সিলেটের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো। নদী পরিচ্ছন্নতা অভিযানের এই অনুষ্টানে নেতৃত্ব দেন, সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব, সিটি কাউন্সিলর দিবা রানী দে, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন বাপা’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, মুজাহিদ হোসেন মুনিম, জালালাবাদ সূর্যমুখী যুবসংঘের মামুন হোসেন, ভূমি সন্তান বাংলাদেশের আশরাফুল কবির, দ্বোহা চৌধুরী, রোটারেক্ট ও সিলেট জেলার সচিব কয়েস আহমদ সুমন প্রমুখ। অভিযানে নেতৃত্বদানকারী সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এনামুল হাবীব সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সিলেটের মানুষের কৃষি সহ সকল সম্পদের অন্যতম সহায়ক সুরমা নদী যে এভাবে ময়লা-অর্বজনা ফেলার স্থানে পরিনত হয়েছে। তা সিলেট সিটি করপোরেশন লক্ষ্য করেনি বা এতটুক গুরুত্ব দেইনি। বাপা সহ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর উদ্দ্যোগে আমাদের দৃষ্টি গোচর হয়েছে। তাই সিলেটের চড়া, খাল-বিলসহ সুরমা নদী রক্ষায় সিটি করপোরেশনের পরিকল্পনা অনুযায়ী সার্বিক সহযোগিতা করবে। এ সময় তিনি আরো বলেন, সিলেটের সবগুলো ড্রইনের পানির সাথে ময়লা-আর্বজনা সুরমা নদীতে পরে নদী প্রায় ধ্বংসের মুখে, ভবিষতে যাতে এসব বন্ধ করে ময়লা-আর্বজনা ফেলার নির্দিষ্টস্থান করা হবে।
আন্তজার্তিক নদী দিবস উপলক্ষে এ উদ্যোগ নেওয়া সংগঠনগুলো হলো, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা সিলেট শাখা, রোটারি ক্লাব অফ সুরমা, ভূমি সন্ধান বাংলাদেশ।
গতকাল শনিবার সকাল থেকে নদীর আবর্জনা পরিষ্কারে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রায় দেড় শতাধিক কর্মী কাজ করছেন। সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নকর্মীরাও তাদের সঙ্গে ছিলেন।
এসময় (বাপা) সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দূল করিম কিম বলেন, সুরমা নদীতে যে ময়লা-আর্বজনা ফেলা হয়েছে, তা একদিন বা মাসে পরিস্কার করা সম্ভব নয়। তাই আমাদের আজকের কর্মসুচীও শুধু পরিস্কারের উদ্দেশ্যে নয়, আজকে পরিচন্নতা অভিযানের মূল লক্ষ্য হচ্ছে সিলেটবাসীকে নদী বান্ধব ও নদী রক্ষায় সচেতন করা।
এ অভিযানে দেড়শাধিক ভলেন্টিয়ার কাজ করে যাচ্ছেন উল্লেখ করে বাপা নেতা কিম আরো বলেন, সুরমা নদীতে পলিথিনসহ বিভিন্ন আবর্জনা ফেলে দূষণ করা হচ্ছে। সেটা আমি বা আমরাই করেছি।
এখনই এসব জঞ্জাল পরিষ্কারে উদ্যোগ না নিলে বুড়িগঙ্গার মতো নষ্ট হয়ে যাবে। তাই নগরবাসীকে সচেতন করতে পাপের প্রায়শ্চিত্ত হিসেবে নদী পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24