তারেকের পরার্মশে নৈরাজ্যের মিশন নিয়ে দেশে ফিরলেন মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে ঈদের পর সারা দেশব্যাপী অরাজকতা, গুপ্তহত্যা, গুম, খুন ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করার মিশন নিয়ে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে এসেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

১২ জুন সন্ধ্যায় মির্জা ফখরুল ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

বিএনপির একটি গোপন সূত্রে জানা গেছে, তারেক রহমানের কাছে বিপুল পরিমান জাকাত-ফিতরা ও চাঁদার টাকা পৌঁছে দিতে লন্ডনে যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া সরকারের বিরুদ্ধে তারেক রহমানের পরিকল্পনা সম্পর্কে অবগত হতেও তার এই যাত্রা ছিল বলে জানা যায়।

সূত্র বলছে, তারেক রহমান নির্বাচনের আগে সারা দেশব্যাপী নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য মির্জা ফখরুলকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন। সকল কৌশলে পরাজিত হয়ে এখন হত্যা, গুম, খুন ও নৈরাজ্য সৃষ্টির পায়তারা করছেন তারেক রহমান। আন্দোলন-সংগ্রামের প্রধান অন্তরায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর নির্দয় আক্রমণ করার পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামতে হুকুম দিয়েছেন তারেক রহমান।

সূত্র আরো বলছে, তালিকা ধরে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাসহ আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতাদের শায়েস্তা করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন তারেক রহমান। মির্জা ফখরুলকে নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য অভিনব কিছু কৌশল হাতে-কলমে শিখিয়েছেন তারেক রহমান নিজেই। নির্বাচনের সময় ঘরে ঘরে আগুন জ্বালানোর জন্য মির্জা ফখরুলকে স্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন তারেক রহমান। তারেক রহমান স্পষ্ট বলেছেন, ঈদের পরই সরকারকে বিএনপি শক্তি দেখাতে হবে। এই মিশনে হেরে গেলে বিএনপি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। তাই এবার গাফলতি করা যাবে না। প্রয়োজনে সবশক্তি প্রয়োগ করে হলেও আওয়ামী লীগকে প্রতিহত করতে হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» তাঁরা আমার তারা- উজ্জ্বল মেহেদী

» জগন্নাথপুরে আজিজুস সামাদ ডনের নির্বাচনী মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা

» জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধনকালে এমএ মান্নান- শেখ হাসিনার নির্দেশেই ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে

» অর্থাভাবে জগন্নাথপুরের ইমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি অনিশ্চিত

» জগন্নাথপুর উপজেলা গীতিকার সংসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

» ভারতে বেলুনে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ আটক ৭

» আনকাট সেন্সর পেলো ‘মিস্টার বাংলাদেশ’

» ‘বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যে’র নামে গেম খেলছেন তারেক রহমান

» জল ঘোলা করে শেষ পর্যন্ত জামায়াতের সঙ্গেই হাত মেলাচ্ছেন ড. কামাল

» তিন আইজিপি পদে রদবদল

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

তারেকের পরার্মশে নৈরাজ্যের মিশন নিয়ে দেশে ফিরলেন মির্জা ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে ঈদের পর সারা দেশব্যাপী অরাজকতা, গুপ্তহত্যা, গুম, খুন ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করার মিশন নিয়ে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে এসেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

১২ জুন সন্ধ্যায় মির্জা ফখরুল ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

বিএনপির একটি গোপন সূত্রে জানা গেছে, তারেক রহমানের কাছে বিপুল পরিমান জাকাত-ফিতরা ও চাঁদার টাকা পৌঁছে দিতে লন্ডনে যান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া সরকারের বিরুদ্ধে তারেক রহমানের পরিকল্পনা সম্পর্কে অবগত হতেও তার এই যাত্রা ছিল বলে জানা যায়।

সূত্র বলছে, তারেক রহমান নির্বাচনের আগে সারা দেশব্যাপী নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য মির্জা ফখরুলকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন। সকল কৌশলে পরাজিত হয়ে এখন হত্যা, গুম, খুন ও নৈরাজ্য সৃষ্টির পায়তারা করছেন তারেক রহমান। আন্দোলন-সংগ্রামের প্রধান অন্তরায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর নির্দয় আক্রমণ করার পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামতে হুকুম দিয়েছেন তারেক রহমান।

সূত্র আরো বলছে, তালিকা ধরে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাসহ আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতাদের শায়েস্তা করার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন তারেক রহমান। মির্জা ফখরুলকে নৈরাজ্য সৃষ্টির জন্য অভিনব কিছু কৌশল হাতে-কলমে শিখিয়েছেন তারেক রহমান নিজেই। নির্বাচনের সময় ঘরে ঘরে আগুন জ্বালানোর জন্য মির্জা ফখরুলকে স্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন তারেক রহমান। তারেক রহমান স্পষ্ট বলেছেন, ঈদের পরই সরকারকে বিএনপি শক্তি দেখাতে হবে। এই মিশনে হেরে গেলে বিএনপি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। তাই এবার গাফলতি করা যাবে না। প্রয়োজনে সবশক্তি প্রয়োগ করে হলেও আওয়ামী লীগকে প্রতিহত করতে হবে।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।