1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
বাউল মকদ্দস আলম উদাসী আর নেই বিভিন্ন মহলের শোক - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন

বাউল মকদ্দস আলম উদাসী আর নেই বিভিন্ন মহলের শোক

  • Update Time : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০২২
  • ৪৪৭ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক –
একদমে নাই ভরসা, করও তুমি কার আশা, মিছেমিছি দুই দিনের পরবাস নিজের লেখা এই গানের মতো জগৎ সংসারের সব কিছু কে পর করে দিয়ে সিলেট অঞ্চলের অন্যতম বাউল মকদ্দস আলম উদাসী চলে গেছেন না ফেরার দেশে (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।
বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় দোয়ারাবাজার উপজেলার নরসিংহপুর ইউনিয়নের চাইরগাঁও গ্রামে তাঁর নাতনির বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি এক সন্তানসহ অসংখ্য বাউল ভক্ত ও অনুরাগী রেখে মারা গেছেন। বাদ আসর নাতনির বাড়িতে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী তাকে সমাহিত করেন অনুরাগীরা।
গুণী এ বাউল কবি জীবনের উল্লেখযোগ্য সময় কাটিয়েছেন জগন্নাথপুর উপজেলায়। নব্বই দশকে তিনি ছাতক থেকে জগন্নাথপুর উপজেলায় চলে আসেন। উপজেলা সদরের দিঘির পাড়ে ছোট কুটিরে সংসার জীবন শুরু করেন। সেখানে নিজে গান গাইতেন আর শ্যিদের গান শেখাতেন। পরবর্তীতে তিনি গীতিকবি রাধারমণ দত্তের জন্মভূমি কেশবপুর গ্রামের এক কলোনিতে বসবাস শুরু করেন। গত ১৭ জুন ভয়াবহ বন্যায় আশ্রয় নেন আবদুস সামাদ আজাদ অডিটোরিয়ামের আশ্রয় কেন্দ্রে। বন্যার পানি কমলেও কেশবপুর বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি বেশ কিছুদিন ধরে জটিল রোগে ভুগছিলেন। একাধিকবার সংস্কৃতি সেবীদের উদ্যাগে চিকিৎসার উদ্যাগ নেওয়া হলেও আর্থিক কারণে পুরোপুরি চিকিৎসা সম্ভব হয়নি। তিনি সুনামগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমির সন্মাননায় ভূষিত হয়েছিলেন।
তাঁর প্রকাশিত বই পরার জমিন, সম্পাদনা : মোস্তাক আহমাদ দীন [ লোকচিহ্ন, ১৯৯৯]; বিরহ লহরী [সূনৃত, ২০০২]; উদাসী সঙ্গীত [নাগরী প্রকাশনা, ২০১৭]; নির্বাচিত গান, সম্পাদনা : মোস্তাক আহমাদ দীন ও মুক্তাদীর আহমদ [জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ, ২০১৭]। চার হাজারের বেশি গান রচনা করে গেছেন এই বাউল। নিজে গান লিখতেন, গাইতেন ও দোতারা বাজাতেন। তিনি বাউল দুরবিন শাহের শিয্য ছিলেন। জীবদ্দশায় তিনি বন্যা, ট্রলার, কোলাকানির বাঁক, বিরহলহরী ১-৫, উদাসীসংগীত ১-৭ শিরোনামে পা-ুলিপি করে রেখে গেছেন।
১৩৫৪ বাংলা সনে ছাতক উপজেলার চরবাড়া গ্রামে কবিরাজ মুজেফর আলী ও গৃহিণী সুখির মা বিবির গর্ভে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তিনি নিজের জন্ম তারিখ বলতে গিয়ে লিখেছেন, ‘১৩৫৪ বাংলায় জন্ম আমার জানিলাম, / বড় হইয়া মামার লিখা ডাইরিতে সন্ধান পাইলাম।’ (নির্বাচিত গান : ২৮)। তিনি তাঁর বিভিন্ন গানে নিজের জন্ম স্থান সম্পর্কে অনেক বার উল্লেখ করেছেন। যেমন- ‘চরবাড়া গেরামে জন্ম ইউনিয়ন হয় নোয়ারাই/ছাতক থানার অন্তর্গত সুরমা গাঙে লাই খেলাই।’ (নির্বাচিত গান : ২৮)। আরেকটি গানে বলেছেন; ‘ছাতকের পশ্চিমে চরবাড়া গেরামে / জন্ম নিয়েছি এক কুঁড়েঘরে / সুরমা নদীর উত্তর পার স্মরণ আছে আমার / খেলাধুলা করতাম কোলাকানির চরে।’ (উদাসীসংগীত : গান-১১৯)।
বাউল সাধক মকদ্দস আলম উদাসীর মৃত্যুতে সুনামগঞ্জের সংস্কৃতঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে আসে। কবি ও গবেষক ড. মোহাম্মদ সাদিক মকদ্দস আলম উদাসীর চলে যাওয়ায় শোক প্রকাশ করে লিখেছেন, আমাদের সাংস্কৃতিক ইতিহাসের এক মহান পুরুষের জীবনাবসান হলো। এতদঞ্চলের সুফি ফকিরদের এক প্রকৃত প্রতিনিধি মকদ্দস আলম উদাসী তাঁর কর্ম ও সাধনার জন্য আমাদের মরমি পৃথিবীতে অমর হয়ে থাকবেন।
এছাড়াও বাউল মখদ্দস আলম উদাসীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন লোক গবেষক সুমন কুমার দাশ, সুনামগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামসুল আবেদীন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমেদ মুক্তা,সাংবাদিক শামস শামীম, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর জগন্নাথপুর উপজেলা শাখার সভাপতি সতীশ গোস্বামী, সাধারণ সম্পাদক দ্বিপক কুমার দেব, প্রথম আলোর জগন্নাথপুর প্রতিনিধি অমিত দেব,শিক্ষক সাইফুল ইসলাম রিপন,সামাজিক সংগঠক এম শামীম আহমেদ সাংস্কৃতিক কর্মী পরিতোষ চক্রবর্তী শিবু,আশীষ দে, বিজয় দে,আব্দুল কাইয়ুম, বাউল কল্যাণ পরিষদের সভাপতি আব্দুল পরান,সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মুন্না প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com