সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে আইনশৃংঙ্খলা সভায়-আনন্দ সরকারের হত্যাকারিদের গ্রেফতারের দাবি জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে দুর্নীতি বিরোধী দিবসে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ১৭ ডিসেম্বর থেকে হাওরের বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু লজ্জা শুধু নারীরই নয়, পুরুষেরও ভূষণ জগন্নাথপুর মুক্ত দিবস আজ ডাকাত আতঙ্কে আজও নিদ্রাহীন মিরপুর ইউনিয়নবাসি, চলছে পাহারা জগন্নাথপুরে হালিমা খাতুন ট্রাষ্টের মেধা বৃত্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে তাওহিদা কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী- তোমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ আসছে জগন্নাথপুরে আমার বিদ‌্যালয়, আমার অহংকার, নিজেরাই করি সুন্দর ও পরিস্কার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত

রমজানে আল্লাহর ধ্যান ও স্মরণ

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯
  • ২৩৯ Time View

আধ্যাত্মিক সুফি-সাধকরা বলে থাকেন, ‘বাহ্যিক অবস্থা অন্তরের অবস্থা বোঝায়। আর অন্তরের অবস্থা বাহ্যিকভাবে প্রতিফলিত হয়।’ এটা পরিষ্কার যে মানুষের ভেতর ও বাইর (জাহের ও বাতেন) পরস্পরের সঙ্গে সম্পৃক্ত। প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ ভাই ভাই।

কোরআন হাদিসেও দেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ও অন্তরের সম্পর্ক রাজা-প্রজার মতো বলা হয়েছে। সুতরাং ‘যেমন রাজা তেমন প্রজা’ অর্থাৎ প্রজারা সাধারণত রাজা কর্তৃক প্রভাবিত হয়ে থাকে। তাই অন্তর যেহেতু দেহের রাজা। সে মতে অন্তর ঈমানি শক্তিতে বলিয়ান হলে দেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গও সে রকম হবে আর অন্তর-দেহ দুটিই আল্লাহপাকের আনুগত্য করবে।

রমজান আত্মাকে ঈমানি শক্তিতে বলিয়ান হওয়ার মাস। আল্লাহর আনুগত্য শেখার মাস। আত্মাকে শক্তিশালী করার অন্যতম মাধ্যম আল্লাহর জিকির। জিকিরের মাধ্যমে মানবাত্মা পরিপুষ্ট হয়। প্রশান্ত ও পরিতৃপ্ত হয়। কোরআনে বলা হয়েছে, সাবধান! আল্লাহর জিকিরের মাধ্যমে হৃদয় প্রশান্ত হয়।

সাধারণত দেখা যায়, আল্লাহর দুনিয়ার নেয়ামত, সহায়-সম্পত্তি, পদমর্যাদা এবং ক্ষমতার প্রতাপ মানুষকে অহংকারী করে তোলে। দীনতা-হীনতা ও বিনয়ী ভাব কমিয়ে আনে। এটি ব্যক্তির জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। অহংকার মানুষকে আল্লাহ বিমুখ করে। হৃদয়কে কলুষিত ও অন্ধারাচ্ছন্ন করে। রমজান মানুষকে বিনয়ী হতে শেখায়। অহংবোধকে বিনাশ করে বিনয়ী হয়ে ওঠার এবং আল্লাহর কৃতজ্ঞতা আদায় করার শিক্ষা দেয় রমজান।

পাশাপাশি রমজানের এ ইবাদতের মৌসুমে মুখে আল্লাহর প্রশংসা জপতে জপতে নিজের জিহ্বাকে রাখবে সুমিষ্ট। এরপর রাসুল (সা.)-এর ভাষায় দোয়া করবে, ‘হে আল্লাহ! তুমি আমাকে আমার চোখে ছোট (বিনয়ী) করে রাখো এবং মানুষের চোখে বড় (সম্মানী) করে রাখো।’ এ অন্তর্ভেদী দোয়া থেকে বোঝা যায়, নিজে বিনয়ী হলে অন্যের কাছে সম্মানী হওয়া যায়। আর বিনয় প্রকাশের অন্যতম মাধ্যম হলো কৃতজ্ঞ হওয়া।

আলোচক : পরিচালক, জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া, যাত্রাবাড়ী, ঢাকা।

অনুলিখন : মাওলানা রিদওয়ান হাসান

সৌজন্যে কালের কণ্ঠ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24