রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
‘ব্রিটিশ বাংলাদেশী হুজহু’র প্রকাশনা ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের বারোতম আসর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি:প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে নি:স্ব ৮ পরিবার আশ্রয় নিলেন স্কুলে.মানবেতর জীবন যাপন মিশর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসছে মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যে বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সামাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল

রেইনট্রি হোটেল থেকে উদ্ধারকৃত মদের লাইসেন্স নেই

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৩ মে, ২০১৭
  • ৫৯ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: রাজধানীর বনানীর বহুল আলোচিত রেইনট্রি হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এইচ এম আদনান হারুন বলেছেন, ‘রেইনট্রি হোটেলে মদের লাইসেন্স নেই।’

মঙ্গলবার দুপুরে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে সকাল ১১টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ কর্তৃপক্ষ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। সেখান থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন এইচ এম আদনান হারুন।

হোটেলে মদ পাওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘হোটেলে অব্যবস্থাপনার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে।’

তিনি জানান, তাদের বিরুদ্ধে শুল্ক গোয়েন্দাদের যেসব অভিযোগ রয়েছে সে বিষয়ে কাগজপত্র আজ জমা দিয়েছেন।

রেইনট্রি হোটেলের এমডিকে জিজ্ঞাসাবাদের পর এ বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক মইনুল খান। তিনি বলেন, ১৪ মে রেইট্রি হোটেলে অভিযান চালিয়ে ১০ বোতল মদ উদ্ধারের পর হোটেল কর্তৃপক্ষ বলেছিল এগুলো জুস। তবে আজ (মঙ্গলবার) তারা স্বীকার করেছে— এগুলো মদ। মদ কেন রাখা হয়েছিল জানতে চাইলে তারা বলেন, গত এপ্রিলে বিদেশি অতিথিদের একটি দল তাদের হোটেলে এসেছিল। ওই অতিথিদের আপ্যায়নের জন্য এসব মদ আনা হয়েছিল। পরে এগুলো হোটেলের ১০১ নম্বর কক্ষে রাখা হয়।

মইনুল খান আরও জানান, রেইনট্রি হোটেলের বিরুদ্ধে ৮ লাখ ৩৭ হাজার টাকার শুল্ক ফাঁকির অভিযোগের বিপরীতে তারা যেসব কাগজপত্র জমা দিয়েছেন সেগুলো সঠিক নয়। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

হোটেলে অবৈধভাবে মদ রাখা এবং ভ্যাট ও শুল্ক ফাঁকির অভিযোগের ব্যাখ্যা চেয়ে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের নোটিশে আদনান হারুন মঙ্গলবার কাকরাইলের শুল্ক গোয়েন্দা কার্যালয়ে হাজির হন।

এই হোটেলেই বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গত ৬ মে রাজধানীর বনানী থানায় একটি মামলা হয়। মামলায় দুই ছাত্রী অভিযোগ করেন, আপন জুয়েলাসের্র অন্যতম মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ ও তার বন্ধুরা গত ২৮ মার্চ রেইনট্রি হোটেলে জন্মদিনের দাওয়াতে ডেকে নিয়ে তাদের ধর্ষণ করে।

ওই ঘটনার জের ধরে দিলদার ও তার ভাইদের বিরুদ্ধে সোনা চোরাচালানের অভিযোগ ওঠায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশে একটি অনুসন্ধান কমিটি করে তদন্ত শুরু করে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর। একই সময়ে বনানীর রেইনট্রি হোটেলেও অভিযান চালান শুল্ক গোয়েন্দারা। গত ১৪ মে চার তারকা ওই হোটেলের বিভিন্ন কক্ষ তল্লাশি করে ১০ বোতল বিদেশি মদ ও নথিপত্র জব্দ করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24