বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সংগ্রামী সেই মেয়েটির পরিবারে উপজেলা পরিষদের সেলাই মেশিন প্রদান জগন্নাথপুরে মোটরযান ও ভোক্তা আইনে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা সৌদিতে নির্যাতিতা জগন্নাথপুরের কিশোরীকে দেশে ফেরাতে পরিকল্পনামন্ত্রীর ডিও লেটার কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও কমিটি হয়নি আইসিজেতে গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী-মিয়ানমারের গণহত্যা কোনোভাবেই গ্রহণ করা যায় না জগন্নাথপুরে মানবাধিকার দিবসে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত সিলেটে মাকে হত্যা করল পাষান্ড ছেলে ঘৃনার বদলে অমুসলিমদের মধ্যে ১০ হাজার কোরআন বিতরণ করবে নরওয়ের মুসলিমরা জগন্নাথপুরে ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে পারাপারের সময় খেলা নৌকা থেকে পড়ে মৃগী রোগির মৃত্যু

স্থানীয় নির্বাচনে দলীয় প্রতীক জগন্নাথপুরে দিনভর আলোচনা

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৫
  • ৩৯ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টফোর ডেস্ক:: স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার সব নির্বাচন দলীয়ভাবে করার জন্য আইনের সংশোধনী প্রস্তাব মন্ত্রিসভা অনুমোদন করেছে। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও এই সব নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন। সোমবার এ আইন অনুমোদনের পর থেকে প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুরবাসীর মধ্যে এই আইন নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে চলছে নানা আলোচনা সমালোচনা। দিনভর বিভিন্ন প্রাথী ও কৌতুহলী লোকজন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমের নিকট তাদের প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেছেন। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ডিসেম্বর মাসে জগন্নাথপুরসহ সারাদেশে পৌরসভা ইলেকশন হওয়ার কথা। আগামী বছরের এপ্রিলে ইউনিয়ন পরিষদ ইলেকশন হবে। ঠিক এই সময়ে দলীয় প্রতীকে ইলেকশনের সিদ্ধান্ত ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। বিশেষ করে কাউন্সিলর ও ইউপি সদস্য প্রাথীরা দলীয় প্রতীকে ইলেকশন করবেন কীনা এবিষয়ে জানতে চেয়েছেন অধিকাংশ সম্ভাব্য প্রাথী।

তবে মাঠ পর্যায়ে যারা স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার সাথে জড়িত বা আগামীতে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক, তাদের অনেকে মনে করছেন এতে তৃণমূল স্তরে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের চরিত্র হারাবে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগে দলের মধ্যেও সরকারি এই সিদ্ধান্তে মাঠ পর্যায়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে।

এখন থেকে গ্রাম পর্যায়ের ইউনিয়ন পরিষদ থেকে শুরু করে পৌরসভা, সিটি করপোরেশন, উপজেলা ও জেলা পরিষদ – স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার সব নির্বাচনই হবে জাতীয় সংসদের মতো দলীয় ভিত্তিতে।

বিশ্লেষকদের অনেকে বলেছেন, ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌরসভার মতো প্রতিষ্ঠানগুলোর এত দিনের নির্দলীয় চরিত্র একটা ঐতিহ্যও হয়ে দাঁড়িয়েছিল। এখন সরাসরি রাজনীতি প্রবেশ করলে প্রতিষ্ঠানগুলোর উন্নয়ন কাজে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

জগন্নাথপুর পৌর এলাকার ইকড়ছই গ্রামের বাসিন্দা শিক্ষক সাইফুল ইসলাম রিপন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে এক প্রতিক্রিয়ায় জানান, স্থানীয় সরকার নির্বাচনের প্রতিটি স্তরে দলীয় প্রতীকের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের বাস্তবিক অবস্থায় মনে হয় ঠিক হয়নি। সিটি কপোরেশন ও জেলা শহরের পৌরসভাগুলোতে এ প্রক্রিয়া শুরু করা যেত। পর্যায়ক্রমে তা করলে ভালো হতো।
জগন্নাথপুর পৌরসভা ইলেকশনে সম্ভাব্য এক মেয়র প্রাথী প্রতিক্রিয়ায় বলেন, স্থানীয় ইলেকশন আসলে দলীয় হওযা ঠিক নয়। অনেক নির্দলীয় মানুষ আমাদেরকে ভোট দেয়। এবস্থায় দলীয় প্রাথী হব কীণা তা ভেবে চিন্তে জনগনের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব। পৌর সভার কেশবপুর গ্রামের বাসিন্দা কাউন্সিলর পদে সম্ভাব্য তরুণ প্রাথী আবু হেনা রণির মতে দলীয় প্রতীকে ইলেকশন হলে ভালোই হবে।
আরেক সম্ভাব্য প্রাথী নিজামুল হক বলেন, কাউন্সিলর পদে দলীয় প্রতীকে ইলেকশন হলে অনেক ভোটার বিভ্রান্তিতে পড়বেন। নানা সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।
জগন্নাথপুরের কলকলিয়া ইউনিয়নের সাবেক তিনবারের ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম এ প্রসঙ্গে বলেন, ইউনিয়ন বা পৌরসভায় পরিবার,আত্মীয়স্বজন বা বন্ধুবান্ধব এমনকি গোষ্ঠী কেন্দ্রীক সমর্থনে অনেকে প্রার্থী হয়। জনগণ প্রার্থী বাছাইয়ে গ্রহণযোগ্যতাসহ অনেক বিষয় বিবেচনায় নেয়। কিন্তু দলীয় ভিত্তিতে নির্বাচন হলে প্রার্থী পছন্দ না হলেও অনেক দল করে বলে ভোট দেয়। তখন ভোটারের পছন্দের সুযোগ কমে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হরমুজ আলী বলেন, এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমাদের প্রবাসীদের একটা বড় দাবী বাস্তবায়িত হয়েছে। আমরা দীঘদিন ধরে এ দাবী জানিয়ে আসছিলাম। তিনি এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ মুক্তা বলেন, বিশ্বের সকল গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে এরকম প্রদ্বতি রয়েছে। প্রাথী মনোনয়ন কারা দিবেন কীভাবে দিবেন এসবের ওপর নির্ভয় করবে প্রক্রিয়ার সফলতা ব্যর্থতা। তবে তিনি নতুন এ পদ্ধতিকে স্বাগত জানান।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষেদের চেয়ারম্যান আকমল হোসেন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, স্থানীয় ইলেকশনে দলীয় প্রতীকের বিষয়ে প্রথমে কিছু সমস্যা মনে হলেও ক্রমান্ধয়ে এ প্রক্রিয়া জনগনের কাছে পছন্দ হবে বলে মনে হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24