রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের পাটলীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা জগন্নাথপুরে গাছ কাটার ঘটনায় যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে জগন্নাথপুরে শিকল দিয়ে তিনদিন বেঁধে রাখার পর রিকশাচালকের মৃত্যু:হত্যা মামলা দায়ের ভারত বিনা যুদ্ধেই হারাচ্ছে জঙ্গি বিমান, নিহত হচ্ছেন পাইলট ২০০৫ সালের সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী সাপের ছোবলে শিশুর মৃত‌্যু বণাঢ্য আয়োজনে জনপ্রিয় দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তি উদযাপন দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের এবার বর্ষসেরা প্রতিনিধি হলেন আশিক মিয়া বঙ্গবন্ধুকে ‘ফ্রেন্ড অব দ্য ওয়ার্ল্ড, হিসেবে আখ্যা দিল জাতিসংঘ জগন্নাথপুরে তিন লাখ টাকা মূল্যের সরকারি গাছ ‘কেটে’ নিলেন যুবলীগ নেতা।

ইউপি ‍নির্বাচন- রানীগঞ্জে নৌকা ও ধানের শীষ কে পাচ্ছেন?

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২৫ মার্চ, ২০১৬
  • ২৩ Time View

আলী আহমদ/ সিন্দুমনি সরকার :: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কে সামনে রেখে জগন্নাথপুর উপজেলার বৃহৎতম রানীগঞ্জ ইউনিয়নে নির্বাচনী মাঠ এখন সরগরম। দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরা প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দলীয় টিকেট নিশ্চিত করতে। পৌরসভার নির্বাচনের পর দলীয় প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হবে এমন ঘোষনার পর থেকে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীদের ব্যাপক তৎপরতা শুরু হয়। শেষ মুহুর্তে এসে দলীয় প্রতীক পেতে এখন মরিয়া হয়ে দিনরাত দলের শীর্ষনেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন প্রধান দুই দলের প্রার্থীরা। তদবির আর লবিংয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন । সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোটারদের পাশাপাশি দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সু-সর্ম্পক গড়ে তুলতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কে পাবেন ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন কিংবা বিএনপির প্রার্থী কে হচ্ছেন সেদিখে ইউনিয়নবাসীর দৃষ্টি রয়েছে।

এলাকাবাসীর মতে দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের ঘোষনায় বেড়ে গেছে প্রার্থী সংখ্যাও। কেউ কেউ দলীয় প্রতীক ব্যবহার করে বৈতরনী পাড় হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। আওয়ামীলীগ বিএনপির পাশাপাশি যুক্তরাজ্য প্রবাসী অনেকেই প্রার্থী হতে তৎপরতায় রয়েছেন।

সম্ভাব্য চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থীদের প্রচারণায় সর গরম হয়ে উঠেছে পুরো ইউনিয়ন। আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজেদের শুভেচ্ছা জানিয়ে পোষ্টার, লিফলেট, ব্যানার, ফ্যাস্টুনে পুরো ইউনিয়ন এখন সয়লাব। বিশেষ করে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সর্বত্র একই আলোচনা দলীয় প্রতিকে স্থানীয় নির্বাচনকে ঘিরে। প্রথমবারের মতো এধরনের নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে অন্যরকম অনুভূতি কাজ করছে। এ ধরনের প্রক্রিয়ার পক্ষে বিপক্ষে রয়েছে সাধারণ মানুষের নানা মত। এর ভিতর যে যার মত করে চালিয়ে যাচ্ছেন তাদের প্রচারণা। দলীয় প্রতিকে প্রথম বারের মতো নির্বাচন হওয়ায় সম্ভাবনা থাকায় প্রার্থী সংখ্যা বেড়ে গেছে।

চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে পারেন তারা হলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, আওয়ামীলীগ নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মজলুল হক, আওয়ামীলীগ নেতা আমেরিকা প্রবাসি সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব সুন্দর আলী, সাধারন সম্পাদক ছদরুল ইসলাম,শাহাজাহান সিরাজী মনোনয়ণ দৌঁড়ে থাকলেও শেষ পর্যন্ত আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে পারেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, তিনি নির্বাচনে অংশ না নিলে গত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী ইউনিয়ণ আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ছদরুল ইসলাম, বর্তমান চেয়ারম্যান মজলুল হক ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজের মধ্যে থেকে কেউ নৌকা পেতে পারেন। এছাড়াও নৌকা পেতে জোর তৎপরতায় রয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম রানা। দলীয় নেতাকর্মীদেও মতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির পাশাপাশি ইউনিয়নবাসীর সেবায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁর পক্ষে আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা রয়েছেন। তাই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে তার সম্ভাবনা বেশী। তবে তিনি নির্বাচনে অংশ নিবেন কিনা তা পুরোপুরি নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তিনি নির্বাচনে অংশ না নিলে তৃণমুলের জনসমর্থনে এগিয়ে থাকা ছদরুল ইসলাম নৌকা পেতে পারেন। এছাড়াও বর্তমান চেয়ারম্যান মজলুল হক ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ নৌকার দৌঁড়ে পিছিয়ে নেই। অপরদিকে বিএনপি নেতা সামছুল ইসলাম, উপজেলা যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক আনহার মিয়া, ছাত্রদল নেতা সিলেট মহানগর ছাত্রদল নেতা জুনেদ আহমদ, ও ইউনিয়ন বিএনপি নেতা লেচু মিয়া প্রার্থী হতে ধানের শীষ পেতে জোর লবিং চালাচ্ছেন। তাদের মধ্যে সামছুল ইসলাম ও আনহার মিয়া রয়েছেন জোর তৎপরতায়। আনহার মিয়া গত নির্বাচনে অংশ নিয়ে সন্মানজনক ভোট পান।

নয়টি ওয়ার্ড নিয়ে এ ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা- ২৩হাজার । ইউনিয়নের ২৬টি গ্রামের পাড়া মহল্লায় চলছে এখন নির্বাচনী হাওয়া। ইউনিয়নের প্রধান প্রাণকেন্দ্র রানীগঞ্জ বাজারের দোকানগুলোতে ইউনিয়ণ নির্বাচনকে সামনে রেখে চলছে জোর আলোচনা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সর্বত্র ইউনিয়ণ নির্বাচনী প্রচারনা এখন জমজমাট। সময় যত ঘনিয়ে আসছে প্রার্থী হতে প্রবাসীদের পাশাপাশি তাদের স্বজনরাও দেশে আসতে শুরু করেছেন। ভোটারদের মতে এ ইউনিয়নে নৌকা ও ধানের শীষের লড়াই জমতে পারে। আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়নের সিদ্ধান্ত সঠিক না হলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী চমক দেখাতে পারে।

আগামীকাল পড়ুন সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী হালচাল।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24