সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় সমূহে পরিচ্ছিন্ন রাখতে ডাষ্টবিন বিতরণ শুরু জগন্নাথপুরে কমিউনিটি পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার- সুনামগঞ্জের শান্তি শৃঙ্খলা নিশ্চিতে কাজ করতে চাই বিশ্বনাথে পাইপগানসহ গ্রেফতার-১ মাহী বি চৌধুরীকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ ভিডিও কেলেঙ্কারি : জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জগন্নাথপুরে সৈয়দপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন:সভাপতি পঙ্কজ দে,সেক্রেটারী মহিম জগন্নাথপুরে নৌকাবাইচ:এবার সোনার নৌকা,সোনার বৈঠা জিতল কুতুব উদ্দিন তরী জগন্নাথপুরে সড়ক সংস্কার-অবৈধ যান অপসারণের দাবীতে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মালিক,শ্রমিক নেতারদের জগন্নাথপুরে এনজিও সংস্থা আশা’র উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা ক্যাম্প শুরু

জনগণের করের টাকার সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে : প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর, ২০১৭
  • ৪৪ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: এবার আয়কর মেলা থেকে ৩ হাজার কোটি টাকার বেশি রাজস্ব আয় হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।
তিনি বলেন, ‘২০১০ সালে প্রথম আয়কর মেলায় রাজস্ব আহরণ হয়েছিল ১১৩ কোটি টাকা। আর গতবছর মেলায় আয় হয়েছে ২ হাজার ১৩০ কোটি টাকা। গত আট বছরের মেলায় প্রায় ৮ গুণ আয়কর আহরণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় এবার ৩ হাজার কোটি টাকার বেশি রাজস্ব আয় হবে বলে আশা করছি।’
বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলানগরে নির্মাণাধীন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ভবনে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এনবিআর চেয়ারম্যান মো.নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিআই) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, এনবিআর সদস্য ও আয়কর মেলার আহ্বায়ক মো. আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রথম বছর মেলায় ৬০ হাজার ৫০০ জন করসেবা নিয়েছেন। আর গতবছর করসেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা ছিল ৯ লাখ ২৮ হাজার। এবারের মেলায় সেবা গ্রহিতার সংখ্যা ১৩ লাখ ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছি। এ সংখ্যা প্রমাণ করে জনগণ আয়কর মেলাকে গ্রহণ করেছে।
তিনি বলেন, গতবছর আয়কর মেলায় জায়গা না পেয়ে করদাতারা ফ্লোরে বসে রিটার্ন পূরণ করেছেন। এ জন্য এবার মেলায় করদাতাদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ চেয়ার টেবিল দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।
রাজস্ব কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, জনগণ যে কর দেন, এটা ব্যবহারে আপনাদের আরো সচেতন হতে হবে। জনগণের করের টাকার সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।
অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান জানান, করদাতা সনাক্তকরণে উন্নত দেশের মতো বাংলাদশেও প্রতিটি করদাতাকে একটি করে পিন কোড দেয়া হবে।
তিনি বলেন, আধুনিক সংস্কৃতিতে বিভিন্নি ক্ষেত্রে পিন কোড ব্যবহারের প্রচলন রয়েছে। উন্নত দেশে পিন নম্বর দিয়ে সনাক্ত করা হয়। আমাদের দেশে করদাতাদের একটি পিন কোড দিয়ে আমরা করদাতাকে সনাক্ত করতে চাই। এটাকে আমরা ট্যাক্স পেমেন্ট পিন হিসেবে অ্যাখায়তি করবো। শিগগিরই সব করদাতাকে একটি করে পিন কোড প্রদানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।
নজিবুর রহমান আরো বলেন, এবার আয়কর মেলায় উৎসবমুখর পরবিশে করদাতারা কর প্রদান ও সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। আমাদের সহকর্মীরা র্সবোচ্চ সেবা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে। ইতোমধ্যে আমরা সারাদেশ ট্যাক্স ক্যাম্প করেছি। ট্যাক্স ক্যাম্পের তুলনায় মেলায় করদাতারা আরো বেশি সেবা পাবেন বলে তিনি জানান।
ঢাকাসহ সব বিভাগীয় শহরে এক সপ্তাহ, জেলা শহরে চার দিন, ৩২টি উপজেলা শহরে দুই দিন ও ৭১টি উপজেলায় একদিন (ভ্রাম্যমাণ) আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24