রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল মিরপুরের সেই প্রার্থী আপিলে ফিরলেন নির্বাচনী লড়াইয়ে মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেন দুইজন, কাল প্রতিক বরাদ্দ পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা

দোয়ারাবাজার কলেজে এসব কী হচ্ছে?

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই, ২০১৭
  • ৮৬ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি :: দোয়ারাবাজার ডিগ্রি কলেজে এসব কী হচ্ছে ? হাওরডুবির পর জেলার কলেজগুলোতে ভর্তি ফি’ না নেবার দাবি উঠলেও এই কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি’ নেওয়া হয়েছে ৩০০০ টাকা। ডিগ্রী পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে কেন্দ্র ফি আদায় করা হচ্ছে ১০০০ টাকা। এর আগে ডিগ্রি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে রেজিস্ট্রেশন ও কেন্দ্র ফি’সহ ২১০০ টাকা আদায় করা হয়েছিল।
একাদশ শ্রেণিতে বোর্ডের নির্ধারিত ফি (যা বোর্ডকে দিতে হবে) ২৬২ টাকা হলেও, ১৮০০ থেকে ৩০০০ টাকাও নিয়েছেন কোন কোন কলেজ কর্তৃপক্ষ। জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম উদ্যোগ নিয়ে কিছু কিছু কলেজের ভর্তি ফি কমিয়েছেন। কিন্তু দোয়ারাবাজার কলেজে ৩০০০ টাকাই নেওয়া হয়েছে।
অথচ. শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র (৩৭.০০.০০০০.০৭২.৪৪.০৯০.১২-৪৩৫) অনুযায়ী সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি সর্বসাকুল্লে মফস্বল এলাকায় ৫০০ টাকার বেশি না নেবার নির্দেশনা রয়েছে।
উপজেলার নৈনগাঁও গ্রামের একজন শিক্ষার্থী সোমবার এ প্রতিবেদককে বলেছে, ‘তাঁর পরিবারের খাবারের খরচেরই ব্যবস্থা নেই। এই অবস্থায় তাঁর বাবা এক দাদন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৩০০০ টাকা এনে তাকে কলেজে ভর্তি করিয়েছেন।’
কলেজের একজন ডিগ্রি পরীক্ষার্থী জানায়, রেজিস্ট্রেশনের সময় তাঁর কাছ থেকে ৩০০০ টাকা রাখা হয়েছে। আবার কেন্দ্র ফি’র কথা বলে ৫০০ টাকা রাখা হয়েছে।
টিআইবি’র সচেতন নাগরিক কমিটির সদস্য
অ্যাড. খলিল রহমান বলেন,‘এসব বিষয়ে এর আগেও গণ-মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। ফসলডুবির কারণে এবার সুনামগঞ্জের সিংহভাগ পরিবার নিঃস্ব। এই অবস্থায় নানা ফি’র কথা বলে কোন কোন কলেজ অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হচ্ছে। প্রশাসনের এই বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ।’
দোয়ারাবাজার কলেজের অধ্যক্ষ একরামুল হক বলেন,‘আমরা ৩০০০ টাকা ভর্তি ফি নির্ধারণ করলেও, অনেক শিক্ষার্থীকেই বিনা ফি’তে ভর্তি করেছি। এবার ৩০ জন ডিগ্রি পরীক্ষার্থী রয়েছে। পরীক্ষা নিতে ৬০ হাজার টাকা খরচ লাগবে। আমরা ১০০০ টাকা করে কেন্দ্র ফি নিয়েছি। অন্যান্য ফি নেওয়ার বিষয়টি সত্য নয়।’
দোয়ারাবাজার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মেহের উল্লাহ্ বলেন, ‘কেন্দ্র ফি নেয়া হয় রেজিষ্ট্রেশনের সময়, এখন ফি আদায়ের কথা নয়, যদি কেন্দ্র ফি’এর কথা বলে টাকা নেয়া হয়, তাহলে সেটা বে-আইনি।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24