শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
২১ আগস্টের মাস্টারমাইন্ডদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে আপিল করা হবে: ওবায়দুল কাদের ধর্মীয় শিক্ষার প্রয়োজন চিরদিন ৭১’র বয়স ৫ মাস,তবুও মানবতাবিরোধী অপরাধে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা,প্রত্যাহারের দাবী ঠিকাদারের দায়িত্বহীনতায় জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কে অসহনীয় দুর্ভোগ জগন্নাথপুরের টমটম চালকের হত্যাকাণ্ড উন্মোচিত,ঘাতকের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান জগন্নাথপুরে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় জন্মাষ্টমী উদযাপন জগন্নাথপুরে সরকারি গাছ কাটায় সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময় প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা ১৭ নভেম্বর টমটম গাড়ীর জন্য জগন্নাথপুরের এক চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন,গ্রেফতার-১

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান -জগলুল ছিলেন গনমানুষের নেতা

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ৯২ Time View

স্টাফ রিপোর্টার
পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন,‘অবেহেলিত অঞ্চলের মানুষের উপকারে আসে এমন প্রকল্পের জন্য অর্থের সংকট নেই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশনা রয়েছে সুবিধাবঞ্চিত অঞ্চল বা মানুষের জন্য বেশি কাজ করতে হবে।’ তিনি বলেন,‘শিক্ষা-দীক্ষার উপকারে আসে এমন প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে টাকার কোন সংকট নেই।’ পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন,‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে সমানভাবে দেখেন, সকলের উপকার করতে চান। সুনামগঞ্জ পৌরসভার প্রয়াত মেয়র আয়ুব বখ্ত জগলুলের মানসিকতাও তেমন ছিল। তিনি অসাম্প্রদায়িক ছিলেন।’ প্রয়াত জগলুলের শহরকে সুন্দর করে সাজানোর জন্য বর্তমান পৌর মেয়র নাদেক বখ্তকে সহযোতিার আশ্বাস দেন পরিকল্পনা মন্ত্রী।
শনিবার বিকাল ৩ টায় সুনামগঞ্জ শহরের সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে (বালুর মাঠে) সুনামগঞ্জ পৌরসভার প্রয়াত মেয়র আয়ুব বখ্ত জগলুলের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান এসব কথা বলেন।
সুনামগঞ্জ পৌরবাসীর আয়োজনে পৌর মেয়র নাদের বখ্ত’এর সভাপতিত্বে স্মরণসভায় পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন,‘জগলুলের স্বপ্ন ছিল দৃষ্টিনন্দন পার্ক নির্মাণ, পৌর কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ, হকার্স মার্কেট নির্মাণ, সুইমিংপুল, ব্যায়ামাগার এবং মাধ্যমিক স্কুল নির্মাণসহ মানুষের কাজে আসে এমন নানা উন্নয়ন করবেন। তাঁর ভালো স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য আমার কাছে আসলে, আমি সহযোগিতা করবো।’
এমএ মান্নান বলেন,‘জগলুলের বাবা মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন, অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিক ছিলেন। তাঁর দুই ভাই মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। তাঁর ভাই মুক্তিযোদ্ধা মনোয়ার বখ্ত নেক’র সঙ্গেও আমার পরিচয় হয়েছিল। এই পরিবারের সদস্যরা সব সময় সাধারণ মানুষের কল্যাণের স্বপ্ন দেখেছেন, জগলুলও তাই করেছেন। বর্তমান পৌর মেয়র নাদের বখ্তও সেটিই করবেন বলেই বিশ্বাস করি।’
স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আপ্তাব উদ্দিন, সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট চাঁন মিয়া, লেখক ও গবেষক অ্যাডভোকেট আবু আলী সাজ্জাদ হোসাইন, শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে, জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম প্রমুখ।
স্মরণসভার শেষ পর্যায়ে প্রবাসী সাংবাদিক অ্যাডভোকেট রনেন্দ্র তালুকদার পিংকু ও শামস শামীম সম্পাদিত ‘আয়ুব বখ্ত জগলুল স্মারক গ্রন্থ’এর মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিরা।
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জ পৌরসভার ২ বারের মেয়র, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য আয়ুব বখ্ত জগলুল হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর শনিবারই প্রথম তাঁর স্মরণে নাগরিক শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়।সৌজন্য সুনামগঞ্জের খবর

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24