বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:২৫ অপরাহ্ন

শেখ হাসিনা আমেরিকা আর খালেদা লন্ডনে ঈদ করছেন দেশের প্রধান দুই দলের বড়নেতাদের ঈদ কোথায় হচ্ছে

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৪০ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:; প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈদ করছেন আমেরিকায় আর সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া লন্ডনে ঈদ করবেন। দেশে অবস্থানরত প্রধান এই দুই দলের নেতারা দেশে কোথায় ঈদ করবেন। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা ঢাকা ও নির্বাচনী এলাকা মিলিয়ে ঈদ করবেন। অন্যদিকে অসুস্থ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবসহ হাতেগোনা কয়েকজন ছাড়া বাকিরা ঢাকায় ঈদ করবেন। তবে গ্রেফতার হওয়া নেতারা ঈদের দিনটিও কারাগারেই কাটাবেন। নিখোঁজ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীর ফেরার অপেক্ষার মধ্য দিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের এবারও ঈদ করতে হচ্ছে।
আওয়ামী লীগ : দেশে আছেন এমন প্রভাবশালী মন্ত্রী ও নেতাদের বেশির ভাগই ঈদের আনন্দ নেতাকর্মীদের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে এলাকায় যাচ্ছেন। তবে যারা এলাকায় ঈদ করতে পারছেন না তারা আগে বা পরে সময় করে দেখা করে আসবেন নিজ এলাকার মানুষের সঙ্গে। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ঈদ করবেন ঢাকায়। উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু ঈদ করবেন ঢাকায়। তবে তার নির্বাচনী এলাকা ঝালকাঠির লোকজনের সঙ্গে ঈদের আগাম শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। আর আওয়ামী লীগের অন্যতম উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বরাবরের মতো এবারও ঈদ করবেন তার নির্বাচনী এলাকা ভোলায়। দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ঈদে ঢাকায় থাকছেন। তিনি ঈদের আগেই নির্বাচনী এলাকার জনগণের সঙ্গে দেখা করে এসেছেন। প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে ঈদ করার উদ্দেশে ইতিমধ্যে কাজীপুরে অবস্থান করছেন। অন্যতম প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ ঈদ করবেন ফরিদপুরে তার নির্বাচনী এলাকায়। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ঢাকায় ঈদ করবেন। প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন ঈদে ঢাকায় থাকছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় একমাত্র মেয়ের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করবেন প্রেসিডিয়ামের আরেক সদস্য ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।
দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ঈদের নামাজ পড়বেন নিজ নির্বাচনী এলাকায়। তিনি কুষ্টিয়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নামাজ পড়বেন। দলের নেতা সাবের হোসেন চৌধুরী একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের পথে। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কর্নেল (অব.) ফারুক খান ঈদে ঢাকায় থাকছেন। তিনি যুগান্তরকে বলেন, ঈদের আগেই নির্বাচনী এলাকার জনগণের সঙ্গে দেখা করেছি। অর্থ ও পরিকল্পনাবিষয়ক সম্পাদক আহম মুস্তাফা কামাল সরকারি কাজে ইংল্যান্ড রয়েছেন। ঈদের আগে তার দেশে ফেরার সম্ভাবনা নেই। নিজ নির্বাচনী এলাকা নীলফামারীতে থাকছেন সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। অর্থও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান ঈদের আগেই নিবাচনী এলাকায় সফর করে গেছেন। সরকারি সফরে তিনি দেশের বাহিরে চলে যাবেন ঈদের পর পর।
বিএনপি : দলীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র ও সিঙ্গাপুর থেকে প্রায় দুই মাস পর চিকিৎসা শেষে ঢাকায় ফিরে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে মঙ্গলবার তার নির্বাচনী এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে গেছেন। এছাড়া বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম যশোরে, লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান দিনাজপুর, ড. আবদুল মঈন খান নরসিংদী, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) হান্নান শাহ গাজীপুরে, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় কেরানীগঞ্জ, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান চট্টগ্রাম, যুগ্ম-মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনু রাজশাহী, মোহাম্মদ শাহজাহান ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন নোয়াখালীর নিজ নির্বাচনী এলাকায় ঈদ করবেন। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোর্শেদ খান, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খন্দকার তাদের নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রামে ঈদ করবেন। পটুয়াখালীতে ঈদ করবেন এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী।
তবে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আরএ গনি, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, বেগম সরোয়ারী রহমান, নজরুল ইসলাম খান, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, এম শামসুল ইসলাম, মির্জা আব্বাস ঢাকায় ঈদ করবেন। এছাড়া দলের ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, শমসের মবিন চৌধুরী, মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমদ, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, বিশেষ সম্পাদক নাদিম মোস্তফা ঢাকায় ঈদ করবেন।
বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানসহ অনেকেই ঢাকায় ঈদ করবেন। এছাড়া কেন্দ্রীয় নেতা হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সুলতান সালাহাউদ্দিন টুকু, সাইফুল আলম নীরব, এসএম জাহাঙ্গীরসহ অনেকের বিরুদ্ধে রয়েছে গ্রেফতারি পরোয়ানা। তাই গ্রেফতারের আতংক নিয়েই তাদের ঈদ উদযাপন করতে হচ্ছে।
বিএনপি চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে ঢাকায় অবস্থানরত নেতাকর্মীরা ঈদুল আজহার দিন বিকাল ৪টায় দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত করবেন দলের নেতাকর্মীরা। বিএনপির উদ্যোগে মাজার প্রাঙ্গণে এদিন ফাতেহা পাঠ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের যথাসময়ে উপস্থিত হতে অনুরোধ করেছেন।
কারাগারে বিএনপির কারা ঈদ করবেন : এবারও কারাগারেই ঈদ করতে হচ্ছে বিএনপির কয়েকজন সিনিয়র নেতাকে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুস সালাম পিন্টু, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর বেশ কয়েক বছর ধরেই কারাবন্দিদের সঙ্গে ঈদ করছেন। গত বছরের মতো এবারও কারাগারে ঈদ করবেন স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তাদের সঙ্গে এবার আরও যোগ হয়েছেন গ্রেফতার হওয়া দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গাজীপুরের বরখাস্ত হওয়া মেয়র আবদুল মান্নান, যুগ্ম-মহাসচিব আমানউল্লাহ আমান, রুহুল কবির রিজভী, সিলেটের বরখাস্ত হওয়া মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, ছাত্রদলের সভাপতি রাজিব আহসানসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীকে কারাগারেই ঈদ করতে হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24