সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শালুকের ঠোঁটে ফুটে বিজয় || আব্দুল মতিন জগন্নাথপুর উপজেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার সম্পন্ন, ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত জগন্নাথপুরে প্রবাসি সংগঠনের উদ্যেগে দরিদ্র মানুষের মধ‌্যে ত্রাণ বিতরণ দিরাইয়ে সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ১, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২০ ফ্রান্স আওয়ামী লীগের উদ্যাগে শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস পালিত ভারতীয় মুসলিমদের পাশে থাকার আহবান ভারত থেকে ৯ পণ্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার বাংলাদেশের সমাজ মেরামতের দায়িত্ব আলেমদের জগন্নাথপুরে ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্টের রিসোর্স সেন্টারের কাজ পরিদর্শনে ট্রাস্টের প্রতিনিধিদল

সুনামগঞ্জে প্রার্থীরা ব্যস্ত শেষ ‘ম্যাকনিজমে’

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮
  • ৬০ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের ৫ টি নির্বাচনী আসনেই শেষ সময়ের ‘ম্যাকানিজম’ করছেন বড় দলের প্রার্থীরা। বিশেষ করে দলীয় দ্বন্দ্ব-কোন্দল মিটিয়ে গুরুত্বপূর্ণ দলীয় নেতাদের ইমেজকে নিজের পক্ষে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন সকল প্রার্থীই। এরপরেও কোথাও কোথাও দ্বন্দ্ব থেকেই যাচ্ছে।
সুনামগঞ্জ-১ (জামালগঞ্জ-ধর্মপাশা-তাহিরপুর) আসনে সরকার দলীয় প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের পক্ষে অভিমানী নেতাদের বেশির ভাগেই প্রচারণায় যুক্ত হয়েছেন। আগামী রোববার এই আসনে মনোনয়ন বঞ্চিত কেন্দ্রীয় কৃষক লীগ নেত্রী অ্যাডভোকেট শামীমা শাহ্রিয়ারও জামালগঞ্জে প্রচারণায় যোগ দেবেন বলে দলীয় নেতারা জানিয়েছেন।
ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ বিলকিস বলেন,‘নির্বাচনী এলাকার সকল এলাকায়ই দলীয় নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে প্রচারণায় নেমেছেন। ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আলমগীর কবির এবং তাঁর সমর্থক হিসাবে পরিচিত যুগ্মসম্পাদক মোকারম হোসেন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আরিফুর রহমান, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ হোসেন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মহসিন আহমদ, প্রচার সম্পাদক জুবায়ের পাশা হিমু, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একরাম হোসেন এখনো (শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত) প্রচারণায় নামেননি।’ বিলকিস দাবি করেছেন, দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পরদিনই আলমগীর কবিরের সঙ্গে মোয়াজ্জেম হোসেন রতন সহযোগিতা চেয়ে মুঠোফোনে কথা বলেছেন।
ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আলমগীর কবির এই অভিযোগের জবাবে বলেছেন,‘দলে বিভেদ আছে অনেক দিন ধরেই। কিন্তু আমরা ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি রফিকুল হাসান চৌধুরী’র নেতৃত্বে ৯ দিন হয় নৌকার পক্ষে আলাদাভাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। দলীয় প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বৃহস্পতিবার তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অমল কর’র মুঠোফোনে আমার সঙ্গে কথা বলেছেন, আজ (শুক্রবার) রাতে আমরা নেতা-কর্মীদের নিয়ে বসে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে আরো জোরালো প্রচারণার পরিকল্পনা গ্রহণ করবো।’
এই আসনের বিএনপিতে উল্লেখ করার মতো কোন্দল নেই। বিএনপি প্রার্থী নজির হোসেন দাবি করলেন,‘বিএনপি ঐক্যবদ্ধ, সকলেই প্রচারণায় আছে।’
সুনামগঞ্জ-২ (দিরাই-শাল্লা) আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী ড. জয়া সেন গুপ্তার পক্ষে মনোনয়ন বঞ্চিত সকলেই নেমেছেন। মনোনয়ন বঞ্চিত দলীয় নেতা অ্যাডভোকেট শামছুল ইসলামও শুক্রবার দিরাই উপজেলার শেষ সীমানা আখিল শাহ্ বাজারে জয়া সেন’র সভা মঞ্চে বক্তব্য দিয়েছেন। বিক্ষুব্ধ মনোনয়ন বঞ্চিত দলীয় নেতা অবনী মোহন দাসও আজ শনিবার থেকে জয়া’র সঙ্গেই গণসংযোগে থাকবেন বলে দলীয় নেতা-কর্মীদের জানিয়ে দিয়েছেন। তবে দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলতাব উদ্দিন ও জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী’র বিরুদ্ধে প্রচারণায় না থাকার অভিযোগ রয়েছে।
দিরাই পৌরসভার মেয়র, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক মোশারফ মিয়া বললেন,‘আলতাব উদ্দিন ও জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরীকে এখনো প্রচারণায় দেখা যায়নি।’
জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলতাব উদ্দিন বলেন,‘আমি প্রচারণায় যাই না। বাড়িতে থাকি, কেউ বাড়িতে আসলে নৌকায় ভোট দেবার কথা বলে দেই।’
জাহাঙ্গীর চৌধুরী বলেন,‘আমি শ্যামারচরে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে সভায় গিয়েছি, খাগাউড়া ও মির্জাপুরেও গণসংযোগে গিয়েছি। দিরাই পৌর মেয়র মোশারফ মিয়া তাঁর গুরুত্ব কমে যাবে বলে দলীয় কোন্দল মিটমাট করতে চান না।’
এই আসনে বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা অ্যাডভোকেট তাহির রায়হান চৌধুরী পাভেলকে এখনো দলীয় প্রার্থী নাছির উদ্দিন চৌধুরী’র মঞ্চে দেখা যায়নি।
সুনামগঞ্জ-৩ (জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধভাবে প্রচারণায় নেমেছে। দলীয় প্রার্থী এমএ মান্নানের পক্ষে দলের অন্য অংশের নেতা আজিজুস সামাদ ডনের অনুসারিরাও প্রচারণায় নেমেছেন। জগন্নাথপুরের বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মুক্তাদীর আহমদ মুক্তাও শুক্রবার রানীগঞ্জ ইউনিয়নে নৌকার পক্ষে গণসংযোগে অংশ নিয়েছেন।
এই আসনে বিএনপির মনোনয়ন বঞ্চিত নেতা কর্নেল অব. আলী আহমদকে এখনো ২০ দলীয় জোটের শরিক শাহীনুর পাশার পক্ষে ধানের শীষের প্রচারণায় দেখা যায়নি।
সুনামগঞ্জ-৪ (সদর-বিশ্বম্ভরপুর) আসনে মহাজোটের প্রার্থীর পক্ষে গত বুধ ও বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ শহরে এবং মঙ্গলকাটায় সভায় বক্তব্য দিয়েছেন এই আসনের মনোনয়ন বঞ্চিত জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান।
একইভাবে বিএনপি প্রার্থী ফজলুল হক আছপিয়ার পক্ষে বৃহস্পতিবার শহরতলির বেতগঞ্জ বাজারে সভায় বক্তব্য দিয়েছেন দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চার বারের চেয়ারম্যান দেওয়ান জয়নুল জাকেরীন। দলের বিক্ষুব্ধ নেতা বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনও দলীয় প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় নেমেছেন।
সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারা) আসনে আওয়ামী লীগের দুই মেরু’র বাসিন্দা দুই গ্রুপের নেতা সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ প্রার্থী মুহিবুর রহমান মানিক ও আবুল কালাম চৌধুরী শুক্রবার একসঙ্গে সভা করেছেন। ছাতক সরকারি বহুমুখি মডেল হাইস্কুল মাঠের সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান সভাপতিত্ব করেন। সভায় মুহিবুর রহমান মানিক ছাড়াও আবুল কালাম চৌধুরী’র ভাই শামীম চৌধুরী বক্তব্য দেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান বলেন,‘নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে মানিক-কালামের প্রায় ২০ বছরের বিরোধ মিটমাট করা হয়েছে। এই ঐক্য ধরে রাখতে হবে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24