শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জে মত বিনিময় সভায় মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক-অর্থনৈতিক মুক্তি ছাড়া রাজনেতিক স্বাধীনতা ঠিকিয়ে রাখা অসম্ভব

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০১৫
  • ১৪৮ Time View

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি,মুক্তিযদ্ধের চেতনায় দেশকে এগিয়ে নেয়ার জন্য সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন,অর্থনৈতিক মুক্তি ছাড়া রাজনৈতিক স্বাধীনতা ঠিকিয়ে রাখা অসম্ভ¦ব। এ লক্ষ্যকে অর্জনের জন্যই পাকিস্তান রাষ্ট্রের সৃষ্টির পরও শেরেবাংলা, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী,ভাসানী ও শেখ মুজিবসহ দেশের সকল জাতীয় নেতারা সংখ্যাগরিস্ট মুসলিম রাষ্ট্র পাকিস্তানের শোসনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা স্বায়ত্বশাসন ও গনতন্ত্রের প্রশ্নে আপোসহীন সংগ্রাম করে গেছেন। বাংলাদেশ ব্যাতিত পৃথিবীর আর কোন দেশ যুদ্ধ করে রক্ত দিয়ে স্বাধীন হয়নি। আজও বাংলার জমিনে রাজাকার আলবদর ও ভন্ড ধর্মাবলম্বীরা দেশের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অশুভ চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে। এরা ভোট নেয়ার সময় আসলে আল্লাহর আইন ও সৎ লোকের শাসন প্রতিষ্টার দোহাই দিয়ে ভোট নেয়। আর ক্ষমতায় গিয়ে ধর্মকে ব্যাবহার করে ধর্মের নামে অধর্মের কাজ করে বাংলাদেশকে জঙ্গী রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত করে। আমরা মুকিযোদ্ধাদের তালিকা তৈরীর পাশপাশি রাজাকার আলবদরদেরর তালিকা তৈরী করবো। মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধদিনের গৌরবোজ্জল স্মৃতির কথা পাঠ্যপুস্তকে লিপিবদ্ধ করবো। আইন করে রাজাকারদের নামাজে জানাযা যাতে প্রকাশ্য দিবালোকে কোন ময়দানে বা ঈদগাহে না হয় সে ব্যাবস্থা করবো। আগামী জানুয়ারী মাসে মুক্তিযোদ্ধারা ১০ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা পাবেন। রেশন ও আবাসনসহ অন্যান্য সকল সুযোগ সুবিধা যাতে দরিদ্র্য ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধারা পান সে ব্যাবস্থাও পর্যায়ক্রমে করবো। মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় সুনামগঞ্জের শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ ৪ নির্বাচনী এলাকার এমপি সাংবাদিক পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ এডভোকেট,সুনামগঞ্জ -মৌলভীবাজার সংরক্ষিত আসনের এমপি এডভোকেট শামছুন নাহার বেগম শাহানা রব্বানী,জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট আফতাব উদ্দিন আহমদ,যুদ্ধকালীন কোম্পানী কমান্ডার এডভোকেট আলী আমজাদ,জেলা ইউনিট কমান্ডার হাজী নুরুল মোমেন। এসময় জেলা পুলিশ সুপার হারুন-অর রশীদ,সাবেক জেলা ইউনিট কমান্ডার হাজী কেবি রশীদ,জেলা ইউনিটের ডেপুটি কমান্ডার ইউসুফ আল আজাদ, কমরেড বিনোদ রঞ্জন তালুকদার,আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী জালাল উদ্দিন জাহান, জেলা আহবায়ক সাংবাদিক আল-হেলাল,সদর উপজেলা আহবায়ক মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিকসহ বিভিন্ন উপজেলা কমান্ডারগন উপস্থিত ছিলেন। পরে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা সুনামগঞ্জ সদর থানা ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেনের অপসারন চেয়ে মন্ত্রীর কাছে একটি স্মারক লিপি প্রদান করেন। স্মারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়,সরকারকে ঠকিয়ে জেলার জাতীয় রাজস্ব আয়ের অন্যতম ক্ষেত্র ধোপাজান নদী বালি পাথর মহাল ভোগদখল করছে বিএনপির নেতার নেতৃত্বাধীন একটি সিন্ডিকেট। সরকার ৩ জন ম্যাজিস্ট্রেট এর নেতৃত্বে মহালটিতে অবৈধ ইঞ্জিন নৌকা,কার্গো ও ভলগেড অনুপ্রবেশসহ চাঁদাবাজী বন্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে। জেলা প্রশাসন ও সরকারের সাহায্যার্থে ধোপাজান নদীর মুখে চাঁদাবাজী বন্ধে রাতের বেলা সতর্ক প্রহরায় মোতায়েন রয়েছে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান,ছাত্রলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ দেশপ্রেমিক ছাত্র ও যুবকেরা। এতে ঈশ্বান্বিত গডফাদার বিএনপি নেতার কালো টাকায় বাধ্য বশীভূত হয়ে সদর থানার ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন ইব্রাহিমপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম এবাদুর রহমানের পুত্র রনি,সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফরহাদ,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শিমুল আহমদগংদের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ সদও থানায় মামলা নং ৩ (জিআর ২৩৫/২০১৫) তাং ২/৮/২০১৫ইং ধারা ন৩৮৫/৩৭৯/৫০৬ দ: বি: দায়ের করেছেন। গডফাদার বিএনপি নেতার ঈশরায় গত কয়েকদিন আগে ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন এসআই এমরানকে পাটিয়ে সদর উপজেলার কাইয়ারগাও গ্রামে মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আলীর বাড়িতে অভিযান পরিচালনাক্রমে মুক্তিযোদ্ধার পুত্র আনোয়ার হোসেন আনুকে আটক করান। পরে গ্রেফতারকারী এসআই এমরানসহ পুলিশ দলের নির্যাতনে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আনু হাতকড়াসহ পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। এ ঘটনার ২দিন পর ওসি শাখাওয়াৎ হোসেন নির্যাতন ও মামলায় হয়রানী করবেননা মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়ে নগদ ৩৫ হাজার টাকা ঘুষ ও কাতকড়া ফেরত আনেন। কিন্তু ঘুষ নেয়ার পরও মুক্তিযোদ্ধা ও তার সন্তানদের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করেন। গত ১২/৫/২০০৫ইং তারিখে প্রকাশিত সংবাদের পেপার কাটিংসহ ধোপাজান নদীর অবৈধ ইজারাদার তোফাজ্জল হোসেনকে গ্রেফতারের জন্য ১৩/৫/২০১৫ইং তারিখে জেলা প্রশাসক কর্তৃক অফিসিয়েল আদেশ দেয়ার পরও তাকে গ্রেফতার করা হয়নি। পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জের ধরে তোফাজ্জল হোসেন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বিচার শাখায় তথ্য মন্ত্রণালয়ের পত্র নিয়ে আসার সময় আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক সাংবাদিক আল-হেলালকে খুন করার হুমকী দেয়। এ ঘটনায় তোফাজ্জল এর বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ থানায় জিডি দায়ের করলেও ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন তার বিরুদ্ধে কোন ব্যাবস্থা নেননি। তোফাজ্জল হোসেনের চাঁদাবাজীর স্বার্থে মোটা অঙ্কের টাকা ঘুষের বিনিময়ে ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন জেলা যুবলীগ নেতা আরমানুল ইসলাম সিদ্দিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপহরন মামলায় আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্টের অভিযান সক্রিয় থাকার পরও তোফাজ্জল হোসেনকে ধোপাজান নদী বালিমহালে বহাল করার অলিখিত এসাইনমেন্ট নিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান আমির হোসেন রেজা ও জসীম উদ্দিন দিলীপকে সোমবার থেকে অনবরত মোবাইল ফোনে ওসি গাজী শাখাওয়াৎ হোসেন হুমকী দিচ্ছেন বলে স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়। স্মারক লিপির অনুলিপি স্থানীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকেও প্রদান করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী আগষ্ট মাসের ১৫ তারিখে স্বপরিবারে নিহত জাতির জনক ও তার পরিবারের সকল শহীদানদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। তিনি এই দিনে অকাল প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম রব্বানীর মৃত্যুতে তার শোকাহত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জানান। এর আগে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সুনামগঞ্জ জেলা ইউনিট কার্যালয় প্রাঙ্গনে নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স এর শুভ উদ্ধোধন করেন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক আরো বলেন,সরকার দেশের সব বধ্যভূমি সংরক্ষন করবে। দেশের সকল মুক্তিযোদ্ধাদেও কবরস্থান একই ডিজাইনে করা হবে। কোটা সংরক্ষণসহ বিসিএস পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে ১০০ মার্কেও পরীক্ষার ব্যাবস্থা রাখা হবে। সকল হাসপাতালে তারা যাতে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ঔসদপত্র পান সে ব্যাবস্থাও নিশ্চিত করা হবে। বর্তমান সরকার মনে কওে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা যদি দেশে না থাকে তাহলে বাংলাদেশ একটি অকার্যকর ও মৌলবাদী রাষ্ট্রে পরিনত হবে। এই দেশ পাকিস্তানে পরিণত হউক এটা আমরা চাইনা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24