উত্তর পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে বড় তীর্থস্থান যাদুকাটায় স্নান সম্পন্ন

বিশেষ প্রতিনিধি
দেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে বড় তীর্থস্থান সুনামগঞ্জ সীমান্তের তাহিরপুরের জাদুকাটায় (পনাতীর্থে) এবার লাখো পূণ্যার্থীর সমাগম ঘটেছে। আদিকাল থেকেই হিন্দু ধর্মাবলম্বিরা জেনে আসছেন, ‘চৈত্র মাসের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে যাদুকাটায় স্নান করলে সব পাপ মোচন হয়’- পূণ্য লাভের আশায় প্রতিবছরই দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এই সময়ে লাখ মানুষ আসেন জাদুকাটা বা পনাতীর্থে স্নান সারতে। এ নদীতে স্নান করাকে অনেকে গঙ্গা স্নানের সমতুল্য মনে করেন। এবার স্নানের যুগ ভাল হওয়ায় (মঙ্গলবার সকাল ৯ টা ৭ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড থেকে শুরু হয়ে রাত ১ টা ২০ মিনিট ৭ সেকেন্ড পর্যন্ত) দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছিলেন পূণ্যার্থীরা।
সনাতন ধর্মাবলম্বিদের বিভিন্ন প্রকাশনায় রয়েছে ১৪০০ খৃস্টাব্দের মাঝামাঝি সময়ে মাকে গঙ্গা স্নান করানোর জন্য যোগ সাধনা বলে পৃথিবীর সমস্ত তীর্থের জল জাদুকাটা নদীর প্রবহমান জলের ধারায় একত্রিত করে মাতৃআজ্ঞা পূরণ করেছিলেন তখনকার লাউররাজ্যের সাধক ও সিদ্ধপুরুষ অদ্বৈতচার্য। তার সাধনা সিদ্ধ ফল বারুনী যোগ নামে অভিহিত। চৈত্র মাসের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে গঙ্গা, যমুনা, স্বরসতীসহ সাত পূণ্যনদীর প্রবাহ এক সঙ্গে যাদুকাটায় (পণাতীর্থে) এসে মিশে বলেও বিশ্বাস করেন সনাতন ধর্মাবলম্বিরা। এজন্য তারা মনে করেন সকল
তীর্থের সেরা তীর্থ এটি। এখানে স্নান করলে গঙ্গাস্নানের চেয়েও বেশী পূণ্য হয় বলে বিশ্বাস রয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের। এই সময়ে এখানে স্নান করলে যেমন পূণ্যলাভ হয়, তেমনি যার যার মনোবাসনাও (ইচ্ছা) পূরণ হয় বলেও বিশ্বাস পূণ্যার্থীদের।
পণাতীর্থ বারুণি স্নান উদ্যাপন কমিটির সদস্য সচিব কানন বন্ধু রায় জানালেন, এবার স্নানের যুগ, আবহাওয়া, এমনকি সড়কের আইন-শৃঙ্খলা অন্যান্য বছরের চেয়ে কিছুটা ভাল হওয়ায় পূণ্যার্থীর আগমন বেশি হয়েছে।

সৌজন্য – সুনামগঞ্জের খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে আটক-১

» দলকে না জানিয়ে এমপি হিসেবে শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর

» ‘ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার সঙ্গে শ্রীলঙ্কা হামলার সম্পর্কের প্রমাণ নেই’

» ক্লাসে শিক্ষকদের সিগারেট-পান নিষিদ্ধ

» জগন্নাথপুরে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

» জগন্নাথপুরে নিসচা’র উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ

» জগন্নাথপুরের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা যুক্তরাজ্য প্রবাসিকে আনহার মিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান

» জগন্নাথপুরে সু-সেবা নেটওয়ার্ক কমিটির ত্রিমাসিক পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসি গীতিকার আক্কাছ মিয়াকে সংবর্ধনা প্রদান

» হবিগঞ্জে প্রেমিক হত্যার পর খাটের নিচে মাটিতে পুতে রাখে প্রেমিকা

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

উত্তর পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে বড় তীর্থস্থান যাদুকাটায় স্নান সম্পন্ন

বিশেষ প্রতিনিধি
দেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে বড় তীর্থস্থান সুনামগঞ্জ সীমান্তের তাহিরপুরের জাদুকাটায় (পনাতীর্থে) এবার লাখো পূণ্যার্থীর সমাগম ঘটেছে। আদিকাল থেকেই হিন্দু ধর্মাবলম্বিরা জেনে আসছেন, ‘চৈত্র মাসের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে যাদুকাটায় স্নান করলে সব পাপ মোচন হয়’- পূণ্য লাভের আশায় প্রতিবছরই দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এই সময়ে লাখ মানুষ আসেন জাদুকাটা বা পনাতীর্থে স্নান সারতে। এ নদীতে স্নান করাকে অনেকে গঙ্গা স্নানের সমতুল্য মনে করেন। এবার স্নানের যুগ ভাল হওয়ায় (মঙ্গলবার সকাল ৯ টা ৭ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড থেকে শুরু হয়ে রাত ১ টা ২০ মিনিট ৭ সেকেন্ড পর্যন্ত) দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছিলেন পূণ্যার্থীরা।
সনাতন ধর্মাবলম্বিদের বিভিন্ন প্রকাশনায় রয়েছে ১৪০০ খৃস্টাব্দের মাঝামাঝি সময়ে মাকে গঙ্গা স্নান করানোর জন্য যোগ সাধনা বলে পৃথিবীর সমস্ত তীর্থের জল জাদুকাটা নদীর প্রবহমান জলের ধারায় একত্রিত করে মাতৃআজ্ঞা পূরণ করেছিলেন তখনকার লাউররাজ্যের সাধক ও সিদ্ধপুরুষ অদ্বৈতচার্য। তার সাধনা সিদ্ধ ফল বারুনী যোগ নামে অভিহিত। চৈত্র মাসের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে গঙ্গা, যমুনা, স্বরসতীসহ সাত পূণ্যনদীর প্রবাহ এক সঙ্গে যাদুকাটায় (পণাতীর্থে) এসে মিশে বলেও বিশ্বাস করেন সনাতন ধর্মাবলম্বিরা। এজন্য তারা মনে করেন সকল
তীর্থের সেরা তীর্থ এটি। এখানে স্নান করলে গঙ্গাস্নানের চেয়েও বেশী পূণ্য হয় বলে বিশ্বাস রয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের। এই সময়ে এখানে স্নান করলে যেমন পূণ্যলাভ হয়, তেমনি যার যার মনোবাসনাও (ইচ্ছা) পূরণ হয় বলেও বিশ্বাস পূণ্যার্থীদের।
পণাতীর্থ বারুণি স্নান উদ্যাপন কমিটির সদস্য সচিব কানন বন্ধু রায় জানালেন, এবার স্নানের যুগ, আবহাওয়া, এমনকি সড়কের আইন-শৃঙ্খলা অন্যান্য বছরের চেয়ে কিছুটা ভাল হওয়ায় পূণ্যার্থীর আগমন বেশি হয়েছে।

সৌজন্য – সুনামগঞ্জের খবর

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।