বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

চোখের সামনে মা-বোনকে মরতে দেখেছে মুহিত

আল আমিন::
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৩৭ Time View

আল আমিন
কিছুই করার ছিলো না মুহিতের (১০)। চোখের সামনে নৌকাডুবিতে মা-বোনকে মরতে দেখেছে সে। মা ও বোনের বাঁচাও বাঁচাও চিৎকারে কেবল কেঁদেছে এই শিশু। ট্রলারডুবির পর সাঁতার কাটতে কাটতে হাওরে একটি গাছের ডালে ধরে নিজেকে রক্ষা করে। পরে মা-বোনকে বাঁচানোর আকুতি জানিয়ে এলাকাবাসীকে ডাকছিলো ১০ বছরের এই শিশু। বুধবার বিকালে কাঁদতে কাঁদতে এমন মর্মস্পর্শী ঘটনার বর্ণনা দিচ্ছিল মুহিত। মুহিত উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের আরজ আলীর ছেলে।
নৌকাডুবির বর্ণনা দেবার সময় তিনি আরও জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পেরুয়ায় খালাতো ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন পরিবারের সঙ্গে। ট্রলারে ওঠার পর প্রায় ঘন্টাখানেক পরে বৃষ্টি ও ঝড় আসে। ঝড়ের কবলে পড়ে ঢেউয়ে নৌকায় পানি ওঠতে থাকে। কিছুক্ষণের মধ্যে ট্রলার ডুবে যায়। বিলে পুঁতা একটি গাছের ডালে ( বিলের কাঁটা) ধরে প্রাণ বাঁচান তিনি। কিছু সময় পর মাকে দেখেন সাঁতার কেটে ওঠতে চাচ্ছেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই ঢেউয়ের কবলে পড়ে ডুবে যান মা, আর মাকে দেখতে পায় নি সে। ট্রলারের যাত্রীদের বাঁচানোর আর্তনাদ। এলাকাবাসী ইঞ্জিন নৌকা নিয়ে রাত ৯ টায় তাকে উদ্ধার করেন। উদ্ধার হওয়ার পর মাকে আর বোনকে খুঁজছিলো মুহিত। কিন্তু তার মাকে খুঁজে পাওয়া যায় নি। অনেক খোঁজাখুঁজি’র পর বুধবার সকালে মায়ের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ও এলাকাবাসী। দুপুর ১ টায় বোনের লাশ উদ্ধার করে ডুবুরি দল।
মুহিত জানালো, গাছের ডাল ধরে জীবন বাঁচাতে মানুষকে যখন ডাকাডাকি করছিলো তখন তার পাশ দিয়ে দুই শিশুর লাশ ভেসে যেতে দেখে ভয় পায় সে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24