শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৪:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
পৌর মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহে হিন্দু কমিউনিটি নেতাদের শ্রদ্ধা নিবেদন চিরনিদ্রায় নিজের তৈরী কবরে শায়িত জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় জগন্নাথপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আব্দুল মনাফকে শেষ বিদায়,জানাজায় শোকার্ত মানুষের ঢল পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহে পরিকল্পনা মন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন পৌর চত্বরে মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সন্মেলনে পরিবর্তনের পক্ষে তৃণমূল নেতাদের আওয়াজ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে:শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরে শিশুর মৃত্যু:’শিশুটি যখন মৃত্যুের যন্ত্রনায় চটপট করছিল,যখন ডাক্তার-নার্স ঘুমে’ জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসেছে শোকার্ত জনতার ঢল জগন্নাথপুরের চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও কমিটি হয়নি

শিশু ধর্ষন মামলায় আসামীর ফাঁসি

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল, ২০১৯
  • ১০৯ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:: শেরপুরে আদিবাসী এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলায় কান্তি মারাক (৪১) নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসির আদেশ দেয়া হয়েছে। আজ দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান একমাত্র আসামীর উপস্থিতিতে ওই রায় ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে ভিকটিম-ডিসিস্টের পরিবারকে আরও ১ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতেও আদেশ দেয়া হয়। দণ্ডিত কান্তি মারাক নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী পানিহাতা ফেকামারী এলাকার নীতিশ মান্দার ছেলে। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডিত কান্তি মারাক একেবারেই ভাবলেশহীন ছিল।

ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া বুলু জানান, ২০১৩ সালের ৩০শে মার্চ সন্ধ্যায় নালিতাবাড়ী উপজেলায় সীমান্তবর্তী পানিহাতা ফেকামারী এলাকায় প্রজিন্দ্র মারাক ও তার স্ত্রী বসতবাড়িতে না থাকার সুযোগে শিশু নাতি বিথি দিওয়াকে (৮) ফুসলিয়ে ডেকে নিজে দু’চালা হাফ বিল্ডিং বসতঘরে নিয়ে ধর্ষণ শেষে গলা টিপে হত্যা করে একই এলাকায় বসবাসকারী তাদের আত্মীয় কান্তি মারাক। এরপর ঘটনা ধামাচাপা দিতে বসতবাড়ির পাশের পানি সেচের ড্রেনে বিথি দিওয়ার লাশ ফেলে রাখে।

পরে নানা প্রজিন্দ্র মারাকসহ পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে কান্তি মারাকের বসতঘরে বিথি দিওয়ার পরিহিত রক্তাক্ত হাফ প্যান্টসহ পাশের সেচের ড্রেনে তার লাশের হদিস পায়। ওই ঘটনায় পরদিন প্রজিন্দ্র মারাক বাদী হয়ে কান্তি মারাককে আসামী করে নালিতাবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24