রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা বেড়াতে গিয়ে বাড়ি ফেরার পথে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জগন্নাথপুরের এক যুবকের মাথায় ৪ ইঞ্চি লম্বা শিং এই বৃদ্ধের! চাঁদাবাজির অভিযোগ দুই যুবলীগ নেতা গ্রেফতার দিরাইয়ে বিদেশীসহ গ্রেফতার-২

খাদ্যে ভেজালের পরিণতি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০১৭
  • ৩৫ Time View

আবু তালহা তারীফ : আমরা জীবন ধারনের জন্য পানাহার করি। এই খাদ্য পানীয় আমাদের দেহে পুষ্টি জোগায়। রোগ প্রতিরোধ করে এবং সর্বোপরি আমাদের বেঁচে থাকতে সাহায্য করে। আল্লাহ তায়ালা বলেন, “ওহে যারা ঈমান এনেছ! তোমাদেরকে আমি যে সব পবিত্র বস্তু রিযিক হিসেবে দান করেছি, তা হতে আহার কর এবং আল্লাহর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর, যদি তোমরা শুধু তারই ইবাদত করে থাকো”। (সূরা বাকারা : আয়াত : ১৭২)

খাদ্যে ভেজাল মেশানোর ফলে আজ ডায়বেটিস মহামারির মত সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি বৈকল্য চর্মরোগ ইত্যাদি ব্যাধি মানুষের দেহে বাসা বেঁধে তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

অবৈধ রাসায়নিক মিশিয়ে পবিত্র খাদ্যকে মানুষের জন্য ক্ষতিকর বস্তুতে পরিনত করা গর্হিত কাজ। এই কাজ শয়তানের অনুসরণকারীরা করে থাকে। মহান আল্লাহ বলেন, “ হে মানুষ! পৃথিবীতে যা কিছু হালাল ও পবিত্র বস্তু রয়েছে তোমরা তা খাও, আর তোমরা শয়তানের অনুসরণ করবে না। নিশ্চয়ই সে তোমাদের প্রকাশ্য শত্রæ”। (সূরা বাকারা : আয়াত : ১৬৮)
অনুমোদিত সংরক্ষক ব্যতিরেকে ক্ষতিকর রাসায়নিক মিশিয়ে খাদ্য সংরক্ষন করা প্রতারণার শামিল। যারা প্রতারণা করে তারা ইসলামের দলভুক্ত নয়। কেননা রাসুল (সা.) বলেন,“ যে প্রতারণা করে সে আমাদের দলভুক্ত নয়”। (সহিহ বুখারী)
ভেজাল দ্রব্য কিংবা দোষযুক্ত দ্রব্য বিক্রি করা ইসলামের দৃষ্টিতে বিধি সম্মত নয়। রাসুল (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি দোষযুক্ত জিনিস বিক্রি করল অথচ ক্রেতাকে তা অবগত করলনা সে সর্বদা আল্লাহর ক্ষোভে পতিত থাকবে”। (সুনানে ইবনে মাজাহ)

তাছারা কোন খাদ্য ওজনে জালিয়াতি বা কম দেওয়ার ব্যাপারে প্রিয় নবী (সা.) বলেন, কোন জাতির মধ্যে ওজনে ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা দেখা দিলে অবশ্যই তাদের মধ্যে দুর্ভিক্ষ,দ্রব্য মূল্যের উর্ধ্বগতি ও শয়তানের নিপীড়ন এসে পড়বে”। (সুনানে ইবনে মাজাহ)

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24