রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৬:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মাহী বি চৌধুরীকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ ভিডিও কেলেঙ্কারি : জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জগন্নাথপুরে সৈয়দপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন:সভাপতি পঙ্কজ দে,সেক্রেটারী মহিম জগন্নাথপুরে নৌকাবাইচ:এবার সোনার নৌকা,সোনার বৈঠা জিতল কুতুব উদ্দিন তরী জগন্নাথপুরে সড়ক সংস্কার-অবৈধ যান অপসারণের দাবীতে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মালিক,শ্রমিক নেতারদের জগন্নাথপুরে এনজিও সংস্থা আশা’র উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা ক্যাম্প শুরু জগন্নাথপুরে মারামারি মামলাসহ বিভিন্ন ওয়ারেন্টের ১১ আসামী গ্রেফতার জগন্নাথপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু জগন্নাথপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতামুলক সভা অনুষ্ঠিত

খালেদার কাছে বিচার চাইবেন কর্নেল আলী

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২৮ মে, ২০১৭
  • ৩৬ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি
জেলা বিএনপি’র ৫১ সদস্যের কমিটিতে সংগঠনের জগন্নাথপুর উপজেলার জ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দের সকলেই বাদ পড়েছেন। কমিটিতে বাদ পড়া সজগন্নাথপুরের ৪ সাবেক সহ ভাপতি’র একজন বললেন ঈদের পর দলীয় চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া’র সঙ্গে দেখা করে বিচার চাইবো। এই উপজেলার একজন বিএনপি নেতা যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কয়ছর আহমদকে ইঙ্গিত করে আরেক নেতা বলেন, ‘কমিটি হয়েছে তার মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে। জগন্নাথপুরে যারা দীর্ঘদিন ধরে বিএনপি করে তাদের মূল্যায়ন করা হয়নি।’
জেলা বিএনপি’র সাবেক সহসভাপতি, জগহ্বান্নাথপুর উপজেলা বিএনপি’র আয়ক কর্নেল অব. আলী আহমদ বলেন, ‘সিলেট বিভাগে একমাত্র অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা আমি বিএনপি’র রাজনীতি করি। সুনামগঞ্জে দলীয় বিভেদে ফজলুল হক আছপিয়া বলয়ের সঙ্গে ছিলাম আমি। কিন্তু ৫১ সদস্যের মধ্যে এবার আমার স্থান হয়নি। আমি পদ পেলেও দল করবো, না পেলেও করবো। ঈদের পর আমি দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করবো এবং বিচার চাইবো। এরপর আল্লাহ্’র কাছে বিচার চাইবো।’
উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি, জেলা বিএনপি’র সহসভাপতি, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আক্তার হোসেন বলেন,‘কমিটি উপর থেকে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমরা তৃণমূলে বিএনপি করি, এর আগেও ফজলুল হক আছপিয়া ও কলিম উদ্দিন আহমদ মিলনকে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি এবং পরবর্তীতে নাছির উদ্দিন চৌধুরী ও কলিম উদ্দিন আহমদ মিলনকে দায়িত্ব দিয়ে
করা আহ্বায়ক কমিটি দলকে ঐক্যবদ্ধ করতে পারেনি। আমরা অপেক্ষায় থাকবো, দলকে নতুন কমিটি কতটুকু ঐক্যবদ্ধ করতে পারেন তা দেখার জন্য। দলকে মহল্লায় নয়, জেলাজুড়ে সংগঠিত করতে হবে।’
জেলা বিএনপি’র সাবেক সহসভাপতি মালেক খান বলেন,‘ভবিষ্যতের কোন মঙ্গলের জন্যই হয়তোবা কমিটি হয়েছে।’ এর বেশি বলবেন না বলে জানান তিনি।
এই উপজেলার বাদ পড়া অন্য নেতাদের মধ্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা বিএনপি’র সাবেক সহসভাপতি আতাউর রহমানও রয়েছেন।
বাদ পড়া নেতাদের একজন নাম উদ্ধৃত না করার অনুরোধ জানিয়ে বলেন,‘কমিটিতে যুক্তরাজ্যের টেমসের পাড়ে থাকা এক নেতার মতামতকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। তাঁর ছোট ভাই জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কবির আহমদ অবশ্য কমিটিতে আছেন।’
জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কবির আহমদ বলেন,‘সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র কমিটি করার বিষয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কয়ছর আহমদের করার কিছু নেই। কমিটি দলীয় চেয়ারপার্সন ও মহাসচিব সময়োপযোগী করেছেন। যারা আন্দোলন-সংগ্রামে ছিল, ভবিষ্যতেও থাকবে তাঁদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’
জেলা বিএনপি’র নতুন কমিটির সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সহসাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন,‘কমিটি আংশিক করা হয়েছে। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে জ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দকে সম্পৃক্ত করা হবে। সবকিছুই কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্তে হয়েছে। যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কয়ছর আহমদকে প্রাধান্য দেবার ধারণা ঠিক নয়।’
এদিকে, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র নতুন কমিটি’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে শনিবার বিপুল সংখ্যক দলীয় নেতৃবৃন্দ সিলেট বিমান বন্দরে অভ্যর্থনা জানিয়ে শোভাযাত্রাসহ সুনামগঞ্জে নিয়ে আসে। পথে সুনামগঞ্জ-সিলেট মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ ও পাগলা বাজারে পথসভা করেন তারা। পথসভায় সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন এবং সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুল বক্তব্য দেন। মোটর সাইকেল শোভাযাত্রাসহ নেতৃবৃন্দ শহরে প্রবেশ করার সময় পুরাতন বাসস্টেশনে মোটর সাইকেল বহরকে আটকে দেয় পুলিশ।
পুলিশ বাধা দেওয়ায় ওখানেই প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুল, সহ-সভাপতি ওয়াকিফুর রহমান গিলমান, অ্যাড. মল্লিক মঈনউদ্দিন সুহেল, ধর্মপাশা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোতালেব খান, আকবর আলী, অ্যাড. শেরেনুর আলী, আমিনুল হক, সেলিম উদ্দিন, জেলা যুবদলের সভাপতি আনছার উদ্দিন, বিএনপি নেতা মুনাজ্জির হোসেন সুজন, ফারুক আহমদ লিলু, মুর্শেদ আলম, আকবর আলী, মামুনুর রশিদ শান্ত, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহব্বায়ক কামরুল হাসান রাজু, সদর উপজেলা ছাত্র দলের সিনিয়র যুগ্ম-আহব্বায়ক মো. রায়হান উদ্দিন, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্র দলের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমূখ।
পরে সন্ধ্যায় নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দ দলীয় চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক হুইপ ফজলুল হক আছপিয়া এবং জেলা বিএনপি’র সাবেক আহ্বায়ক নাছির উদ্দিন চৌধুরী’র সঙ্গে দেখা করে সাংগঠনিক নানা বিষয় অবহিত করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24