সোমবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২০, ০১:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন পিইসিইর উত্তরপত্র পুনঃনীরিক্ষা ও প্রত্যাশা’ জগন্নাথপুরে শতবর্ষ: ব্রজেন্দ্র নারায়নের উত্তরসূরীদের আবেগাপ্লুত স্মৃতিচারণ জগন্নাথপুরে এসোসিয়েশন কাপ বঙ্গবন্ধু ফুটবল লীগ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সমাজে শান্তি বজায় রাখতে যেসব স্বভাব ত্যাগ করতে বলে ইসলাম জগন্নাথপুরের সৈয়দপুরে প্রবাসির অর্থায়নে শহীদ মিনার নির্মাণ জগন্নাথপুরের বিএন হাইস্কুলের শতবর্ষ উৎসবে-পরিকল্পনামন্ত্রী, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না দেশের সকল প্রতিষ্ঠানে বিশ্বমানের শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে:পানিসম্পদ উপমন্ত্রী জগন্নাথপুরে বিএন উচ্চ বিদ্যালয়ে শতবর্ষ উৎসব আজ ক্ষোভের পর আনন্দে ভাসছে ইউনিয়নবাসি জগন্নাথপুরে শতবর্ষ অনুষ্ঠানে যারা থাকছেন

জগন্নাথপুরে কৃষি কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে আধুনিক যন্ত্রাংশ বাড়ছে অনাবাদি জমিতে আবাদ

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৪ মার্চ, ২০১৬
  • ৪০ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: হাওর ব্যাষ্টিত জগন্নাথপুর উপজেলায় আধুনিক প্রযুক্তির ধান কাঁটার যন্ত্র রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে চলছে বোরো আমন ধান রোপনের কাজ। প্রথম বারের মতো আধুনিক এ যন্ত্রের মাধ্যমে সহজ উপায়ে ধান রোপনে কৃষকদের মনে অন্যরকম আনন্দ অনভূত হয়। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের আয়োজনে কলকলিয়া ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি হাওরে কয়েকদিন ধরে অনাবাদি জমিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্র দিয়ে ধান রোপন প্রদর্শনী চলছে। উদ্বোধনী দিলে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর সুনামগঞ্জের উপ-পরিচালক মো: জাহেদুল হক, অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো: হাবিবুর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, কৃষি অফিসার আসাদুজ্জামান, কলকলিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম, কৃষি বিভাগের উদ্ভিব সংরক্ষক কর্মকর্তা তপন চন্দ্র শীল প্রমূখ। কলকলিয়া ইউনিয়নের কৃষক মন্নান মিয়া বলেন, আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে কৃষি কাজ করলে খরচ কম হওয়ার পাশাপাশি কৃষি কাজে আগ্রহের সৃষ্টি হয়। নতুন নতুন আবিস্কার কৃষিকে আরো এগিয়ে নিবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। 2015-11-14 16.05.17 উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান জানান, বিভিন্ন হাওরের অনাবাদি জমিতে কৃষি কাজে বিপ্লব সৃষ্টির লক্ষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করনের ফলে এবার জমিতে চাষাবাদে কৃষকদের মধ্যে আগ্রহ দেখা দিয়েছে। কৃষি কর্মকর্তা আরো জানান, জগন্নাথপুরে শত শত একর জমি যুগ যুগ ধরে অনাবাদি ছিল। কৃষকদের আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে চাষাবাদের পাশাপাশি কৃষি কাজে দক্ষতা অর্জনে বিভিন্ন প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ইতোমধ্যে সফলতা এসেছে। তিনি জানান উৎপাদন খরচ কমানোসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে ফসল রক্ষায় কর্তন যন্ত্রগুলি খুবই ফল প্রসু তাছাড়া শ্রমিক সংকট দূর করা এবং কৃষকদের কৃষির প্রতি আগ্রহ সৃষ্টির জন্য খামার যান্ত্রী করনের বিকল্প নেই। সরকারের প্রনোদনা হিসেবে ২টি রোপন যন্ত্র ও ৭টি ধান কাঁটার যন্ত্র বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। এছাড়াও উপজেলা পরিষদ কর্তৃক আরো ৭টি ধান কাটাঁর যন্ত্র বরাদ্ধ পাওয়া গেছে। তা কৃষকদের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24