বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৫৯ অপরাহ্ন

জেলা আওয়ামীলীগের সন্মেলন নিয়ে চললে নাটকীয়তা

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৯ মার্চ, ২০১৫
  • ৬৮ Time View

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা-আগামী ১৯ মার্চ সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট এ তথ্য জানিয়েছেন। অবশ্য আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এমএ মান্নান, সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন ও জেলা পরিষদ প্রশাসক যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ব্যারিস্টার এম এনামুল কবীর ইমন এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। ফলে জেলা সম্মেলন নিয়ে দলে বিভক্তি রয়েছে বলে দলীয় কর্মীরা মনে করছেন। ১৯৯৭ সালের এপ্রিলে সর্বশেষ সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়েছিল। ওই সম্মেলনে গঠিত ৫১ সদস্যের জেলা কমিটির সভাপতি আবদুজ জহুরসহ ১০ নেতা ইতিপূর্বে মারা গেছেন।
দল ছেড়েছেন দিরাই উপজেলার কদ্দুস মিয়া। দেশের বাইরে আছেন সহসভাপতি নুরুল ইসলাম চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ ওমকারনাথ রায়, সদস্য তোফায়েল আহমদ চৌধুরী ও জসিম উদ্দিন ফারুক। বাকি ৩৬ সদস্যের বেশিরভাগই নিষ্ক্রিয়। এ অব¯’ায় কয়েকবারই দলীয় হাইকমান্ড থেকে কমিটি পুনর্গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হলেও শেষ পর্যš- তা হয়নি। গত ২৭ ডিসেম্বর প্রথম জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ওই সময় দেশের বাইরে থাকায় পরবর্তী তারিখ হয়েছিল ৭ ফেব্র“য়ারি। উপজেলা কমিটি গঠনসহ নানা বিষয়ে জেলার সংসদ সদস্যরাসহ দলীয় একাংশের নেতাদের মতভিন্নতা থাকায় একদিন আগে সম্মেলন ¯’গিত করা হয়।
৭ ফেব্র“য়ারির আগে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুহিবুর রহমান মানিক এমপি ও ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে দেখা করে জেলার ছাতক, দোয়ারাবাজার, ছাতক পৌরসভা, সুনামগঞ্জ সদর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা, সুনামগঞ্জ পৌরসভা এবং মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন শেষ না করেই জেলা সম্মেলন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ জানান। একপর্যায়ে একদিন আগে সম্মেলন ¯’গিত হয়ে যায়। অবশ্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের অসুস্থতার কথা জানিয়ে সম্মেলন স্থ’গিত করা হয়।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান বলেন, ‘সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে ৪ দিন আগে দেখা করে তিনি বলেছেন, দিরাই-শাল্লায় সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উপ¯ি’তিতে সম্মেলন হয়েছে, ধর্মপাশায় মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের উপ¯ি’তিতে কমিটি হয়েছে, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় এমএ মান্নানের সুপারিশে কমিটি হয়েছে, ছাতক ও দোয়ারাবাজারে আপনার এবং দলীয় সভানেত্রীর নির্দেশ মোতাবেক কমিটি হয়েছে। তার কথা শুনে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ১৯ মার্চ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের নতুন তারিখের কথা জানান। পরে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে দিয়ে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট ও সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম শামীমের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলিয়েছেন।’
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট বলেন, ‘কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ১৯ মার্চ সম্মেলন করার জন্য প্র¯-ুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আমি তাকে সম্মেলন আবার পিছিয়ে যায় কি-না, এটি বলেছিলাম। তিনি বলেছেন, সম্মেলন হবে।’ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান জানান, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের কোনো তারিখ হয়েছে বলে তার জানা নেই। সংসদ সদস্য ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এবং যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জেলা পরিষদ প্রশাসক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবীর ইমনও সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণের বিষয়টি জানেন না বলে জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24