রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ১১:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের লহরী গ্রামে শীতবস্ত্র বিতরণ আদালতের আদেশে জগন্নাথপুরের বিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ উৎসব আবারো স্থগিত মিরপুরে বর্নিল সাজে দুইদিন ব্যাপি প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন মৌলভীবাজারে স্ত্রী-মাসহ ৪ জনকে হত্যার পর আত্মহত্যা জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন আ,লীগের সম্মেলন সফল করার লক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ডাক্তার-নার্সের অবহেলায় শিশুর মৃত্যুের অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন মুঠোফোনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরগঞ্জের তরুণী কে জগন্নাথপুর এনে ধর্ষণ নান্দনিক আয়োজনে ঐতিহ্যবাহি মিরপুরের উচ্চ বিদ্যালয়ে সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় বাঁধাভাঙা উচ্ছ্বাস জগন্নাথপুরে জুয়াড়িসহ গ্রেফতার-১৩ কুকুরের সঙ্গে সেলফি, অতঃপর মুখে ৪০ সেলাই

শিশুর নাম ‘জিহাদ’ রাখা নিয়ে ফ্রান্সে দ্বিধা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৫ অক্টোবর, ২০১৭
  • ৭১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
যে দেশটি ইউরোপের ভেতর ইসলামী সন্ত্রাসের সবচেয়ে বড় শিকার হয়েছে, সেই ফ্রান্সে শিশুর নাম ‘জিহাদ’ রাখা কি গ্রহণযোগ্য?

ফ্রান্সের টুলুজ শহরের প্রধান সরকারি কৌসুলিকে এখন এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

কারণ, শহরের এক দম্পতি তাদের নবজাতকের নাম ‘জিহাদ’ রাখার পর আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
সরকারি কৌসুলির তদন্ত রিপোর্টের পর, টুলুজের একজন বিচারককে এ ব্যাপারে রায় দিতে হতে পারে।

‘জিহাদ’ আরবি শব্দ, যার অর্থ চেষ্টা বা সংগ্রাম। অনেকে অবশ্য শব্দটির সাথে ‘ধর্মযুদ্ধ’কে মিলিয়ে ফেলেন।

বাবা-মা শিশুর নাম কী রাখেন সে ব্যাপারে ফরাসি আইনে কোনো বিধিনিষেধ নেই। তবে সেই নাম যদি শিশুর জন্য ক্ষতিকারক হয়, বা পরিবারের অন্য সদস্যরা যদি মনে করেন যে ওই নামে পরিবারের সুনাম ক্ষুণ্ণ হচ্ছে, তাহলে আদালত চাইলে নাক গলাতেও পারে।

টুলুজে যে বাচ্চাটির ‘জিহাদ’ নামকরণ নিয়ে হৈচৈ হচ্ছে, তার জন্ম হয় অগাস্ট মাসে। কিন্তু তার আগেও ফ্রান্সে অনেক ছেলে শিশুর নাম জিহাদ রাখা হয়েছে, এবং তা বদলের জন্য কোনো চাপ কেউ দেয়নি। ইদানীং সাধারণভাবে কট্টর ইসলামপন্থীদের জিহাদি বলা হয়।

২০১৫ সালের শুরু থেকে ইসলামপন্থী জঙ্গিদের হামলায় ফ্রান্সে ২৩০ জন নিহত হয়েছেন।
তখন থেকেই সেদেশে জরুরি অবস্থা বলবৎ রয়েছে।

২০১৩ সালে ফ্রান্সের নিস শহরে এক মহিলাকে এক মাসের কারাদণ্ড এবং ২০০০ ইউরো জরিমানা করা হয়েছিল, কারণ জিহাদ নামে তার তিন বছরের শিশুটি যে জামা পরে স্কুলে গিয়েছিল তাতে লেখা ছিল- ‘জিহাদ, জন্ম ১১ সেপ্টেম্বর। আমি একটি বোমা। ‘
নামের জন্য নয়, মায়ের শাস্তি হয়েছিল ওই লেখার মাধ্যমে উস্কানি ছড়ানোর অভিযোগে।

অন্যদিকে, ২০১৫ সালে ফ্রান্সে একটি মেয়ে শিশুর নাম ‘নাটেলা’ রাখার পর একটি আদালত তাতে বাদ সাধে। বিচারকের যুক্তি ছিল এই নামের কারণে এই শিশুটি পরে হেনস্থার শিকার হতে পারে।

এমনকি বিচারক নির্দেশ দিয়েছিলেন যে নাটেলার বদলে শিশুটির নাম রাখা হোক এলা। টুলুজ শহরের জিহাদ নামের বাচ্চার নাম নিয়ে আদালত কি বলে, অনেকেই তা নিয়ে উৎসুক।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24