বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরের সন্তান অতিরিক্ত সচিব শিশির রায় কে ফুলেল শ্রদ্ধায় চীরবিদায় সিলেটে হিরন মাহমুদ নিপু আটক তারেক জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে জগন্নাথপুরে ছাত্রদলের এতিমদের মধ্যে খাদ্য বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সসীমের অসহায়ত্ব -মোহাম্মদ হরমুজ আলী তারেক জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে জগন্নাথপুরে বিএনপির দোয়া মাহফিল পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান জগন্নাথপুরে কাল আসছেন জগন্নাথপুরে বাজার মনিটরিং করলেন পুলিশের এএসপি ধর্মঘট স্থগিত, যান চলাচল শুরু ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে নেদার‌ল্যান্ডসের রাজধানীতে প্রথমবার মাইকে আজান জগন্নাথপুরের কৃতি সন্তান অতিরিক্ত সচিব শিশির রায় আর নেই

জগন্নাথপুরে ভোর রাত থেকে লাইনে দাড়িয়ে চাল না ইউএনও’র কার্যালয়ে অবস্থান

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৭
  • ২৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার :: জগন্নাথপুরে চালের ন্যায্যমূলের দোকান কম থাকায় ভোর রাত সারাদিন অপেক্ষা করেও চাল পাচ্ছেনা না দরিদ্র লোকজন। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত দীর্ঘ কয়েক ঘন্টা লাইনে দাড়িয়েও চাল না পেয়ে ইউএনও’র কার্যালয়ে অবস্থান নেয় কিছু নারী। সেখানে দীর্ঘক্ষন অবস্থান করে অবশেষে শূন্যহাতে বাড়ি ফিরে তারা । এমন দৃশ্য দেখা গেলে বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ ভবনের দ্বিতীয় তলায় ইউএনও’র কার্যালয়ের সামনে।

জগন্নাথপুর উপজেরা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে অবস্থান নেয়া পৌরএলাকার হবিবনগর গ্রামের দরিদ্র নারী ছমিরুন নেছা জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম’এর প্রতিবেদক বলেন, গত ৫/৬ দিন ধরে ন্যায্য মূল্যে চাল নেয়ার জন্য ভোর রাত থেকে দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষা করেও চাল পাইনি। প্রতিদিনই আসছে কিন্তু আর খালি হাতে ফিরে যেথে হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, চাল কেন্দ্রের পরিচালকরা,তাদের পরিচিত লোকজন দেখে দেখে আগেই চাল দিয়ে দেন। আর আমাদেরকে শুরু শুরু লাইনে দাড়িয়ে কষ্ট করতে হয়।

আরেক নারী জানান, খুবই অভাবের মধ্যে সংসার চলছে তার। সংসারের অন্য সব কাজকর্ম ফেলে সকাল ৬টা থেকে লাইনে দাড়িয়ে থাকি চাল পাওয়ার আশায়। গত ৮দিনেও মেলেনি চাল। আমরা কী চাল কোন দিনই পাব না ?।

পৌরশহরে বিভিন্ন চাল কেন্দ্রে ঘুরে দেখা যায়, সরকারীভাবে নির্ধারিত প্রতিটি চাল কেন্দ্রে অভাবি মানুষের উপচে পড়া ভীর। দীর্ঘ সময় লাইনে দাড়িয়ে থাকেও শ’ত শ’ত মানুষ খালি হাতে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন।
চাল নিতে আসা লোকজন জানান, ভোর রাত থেকেই লাইনে দাড়িয়ে থেকেও চাল পাচ্ছেনা।
পরের দিন আবার সূর্য উদয়ের আগেই চাল কেন্দ্রে পৌছা লাইনে দাড়িয়ে থেকেও চাল মিলছে না। তারা দাবী করেন দ্রুত চালের দোকান আরো বাড়ানোর জন্য।

চাল কেন্দ্রের ডিলাররা জানান, জনপ্রতি ৫ কেজি করে দুইশত ব্যাক্তি মধ্যে চাল ও আটা সরবরাহ করা হহচ্ছে। চাল কেন্দ্রে প্রতিদিন সহ¤্রাধিক মানুষের ঢল নামে। চাহিনার তুলনায় চাল কেন্দ্রের সংখ্যা কম থাকায় প্রচন্ড ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে।

জানা যায়, অকাল বন্যা ও পাহারি ঢলে জগন্নাথপুরের সব’টি হাওরের ফসল পানিতে তলিয়ে যাওয়ার পর ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক ও অভাবি মানুষের জন্য সরকার গত ১৩ এপ্রিল থেকে খোলা বাজারে ন্যায্যা মুল্যে ১৫ টাকা ধরে চাল ও ১৭ টাকা ধরে আটা বিক্রি করা হচ্ছে। জগন্নাথপুর উপজেলায় তিনটি চাল কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন ৩ টন চাল ও ৩ টন আটা খোলা বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে জানান, চাল কেন্দ্র বাড়ানোর আমরা লিখিতভাবে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে অবগত করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24