রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ১১:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে বিদ্যালয়ের নির্বাচন স্থগিত করায় প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে মাদক মামলার ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ হরমুজ আলীর কবিতা-অমাবস্যা সময় সংবাদ সম্মেলনে জগন্নাথপুরের রাখাল চন্দ্রের অভিযোগ, ‘সামাজিকভাবে হেয় করতেই সীমানা পিলার চুরির অপবাদ দেওয়া হয়েছে’ বেশি দামে সিগারেট বিক্রি করায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অবশেষ ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন গ্রেফতার ভারতে তীব্র দাবদাহে ৪০ জনের মৃত্যু আদালতের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা চাইলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জগন্নাথপুরে ধান বিক্রয়ে কৃষকের ভয়, বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন ইউএনও জগন্নাথপুরে ডাকাত গ্রেফতার

প্রকল্প পরিচালকদের প্রকল্প এলাকায় থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ২১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক ঃ
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান
প্রকল্প পরিচালকদের সংশ্লিষ্ট প্রকল্প এলাকায় অবস্থান করে উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার খুলনা বিভাগে চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতি সংক্রান্ত পর্যালোচনা সভা মন্ত্রী এই নির্দেশনা দেন।

খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ণ বিভাগ (আইএমইডি) এই পর্যালোচনা সভার আয়োজন করে।

সভায় পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সরকার চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য এক লাখ ৮০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে দেশব্যাপী এক হাজার ৫০৭ উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে খুলনা বিভাগে তিন হাজার ৪৫৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৮টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, “চলমান প্রকল্পগুলোর সঠিক মান নিশ্চিত করতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা দরকার। যাতে সকল প্রকল্প যথাযথ মান বজায় রেখে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করা যায়। এ জন্য প্রত্যেক প্রকল্প পরিচালককে প্রকল্প এলাকায় থাকতে হবে।

“সরকার জনগণের জন্যই উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করছে। তাই প্রকল্পের কাজ এমনভাবে করতে হবে যাতে জনগণ এর সুফল ভোগ করতে পারে।”

একজন একাধিক প্রকল্পের পরিচালক হিসেবে থাকতে পারবেন না বলেও জানান মন্ত্রী।

“আমরা চাই প্রতিটি প্রকল্প গুণগতমান বজায় রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বাস্তবায়িত হোক। এজন্য প্রকল্পের পরিচালক যিনি থাকবেন তাকে প্রকল্প শেষ হওয়ার পরও দায়িত্ব নিতে হবে, যেন ওই প্রকল্পের মান নিয়ে জনগণের মনে কোনো সংশয় না থাকে।

সভায় খুলনা বিভাগের ৫৮টি প্রকল্প পর্যালোচনা করা হয়। এ সময় পরিকল্পনামন্ত্রী যশোর খুলনা মহাসড়ক নির্মাণ, কয়রা-পাইকগাছা এলাকায় ৫৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজসহ আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নের তাগিদ দেন।

বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়ার সভাপতিত্বে পর্যালোচনা সভায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, সংসদ সদস্য মো. আক্তারুজ্জামান, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আইএমইডির সচিব আবুল মনসুর মো. ফয়েজউল্লাহ ও মহাপরিচালক মো. সিদ্দিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী খুলনা নগরীতে ‘১৯৭১: জেনোসাইড-নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর’ পরিদর্শন করেন।

বিকালে মন্ত্রী বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় নির্মাণাধীন খানজাহান আলী বিমানবন্দর পরিদর্শন করেন।
সৌজন্যে বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24