রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে হালিমা খাতুন ট্রাষ্টের মেধা বৃত্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে তাওহিদা কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী- তোমাদের স্বপ্নের বাংলাদেশ আসছে জগন্নাথপুরে আমার বিদ‌্যালয়, আমার অহংকার, নিজেরাই করি সুন্দর ও পরিস্কার প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বন্ধুকে নিয়ে বেড়াতে গিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই বন্ধু নিহত ছাতকে একই স্থানে আ.লীগের দুই পক্ষের সমাবেশ,১৪৪ ধারা জারি আজ কলকলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সন্মেলন ভারমুক্ত না নতুন নেতৃত্ব? কাশফুলের শাদা যন্ত্রণা ||আব্দুল মতিন জগন্নাথপুরের মিরপুরে ডাকাত আতঙ্ক, রাত জেগে দলবেঁধে পাহারা চলছে কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে রোববার পরিকল্পনামন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন ৫ বছর পর কাল কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন: বিতর্কিত নেতৃত্ব চান না নেতাকর্মীরা

মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিপরিষদের উদ্যোগ শহীদ তালেবের নামে আহসানমারা সেতু নামকরণ প্রস্তাব গৃহীত

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৮ মার্চ, ২০১৬
  • ৩৯ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: সুনামগঞ্জ মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি পরিষদের দাবির প্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার জেলা উন্নয়ন সমন্বয়সভায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা তালেবের নামে আহসানমারা সেতু নামকরণের প্রস্তাব গৃহিত হয়েছে। একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা ও দোয়ারাবাজার উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী বীরপ্রতীক সভায় এই প্রস্তাব করলে সদর উপজেলা আ.লীগ সভাপতি ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী আবুল কালাম প্রস্তাবটি সমর্থন করলে বিশদ আলোচনা শেষে সর্বমসম্মতিক্রমে এই প্রস্তাবটি গৃহিত হয়। সভায় অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী বীর প্রতীক ও হাজী আবুল কালাম শহীদ তালেব আহমেদের উপর আবেগঘন বক্তব্য রাখেন।

গতকাল সোমবার সকালে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভা শুরু হয়। নির্ধারিত আলোচনা শেষে দোয়ারাবাজার উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী বীরপ্রতীক সভায় শহীদ তালেবের নামে আহসানমারা সেতু নামকরণের প্রস্তাব করেন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ১৯৭১ সনে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে তৎকালীন মহকুমা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তালেব আহমদকে ধরে এনে শহর প্রদক্ষিণের মাধ্যমে চরম অপমান করে পিটিআই টর্চারসেলে নিয়ে নির্যাতন করে। ৫ ডিসেম্বর রাতে পাক বাহিনী আহসানমারা ফেরিঘাটের দক্ষিণ তীরে মুক্তিযোদ্ধা তালেব আহমদসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে যায়। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বর্তমান সরকার শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের নামে ঐতিহাসিক নানা স্থাপনার নামকরণ করছে। তাছাড়া কয়েক বছর আগে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সেতু নির্মাণাধীন সময়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শহীদ তালেবের নামে সাইনবোর্ড লাগিয়ে এসেছিলেন। সংগঠনের উদ্যোগে জেলার ৫ সাংসদের স্বাক্ষরিত আবেদনও যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। কিন্তু জেলা সমন্বয়সভায় প্রস্তাবটি পাশ না হওয়ায় নাকরণের বিষয়টি আটকে আছে। আজ আমি এই প্রস্তাবটি উত্থাপন করে প্রস্তাবটি গৃহিতাকারে শহীদ তালেবের নামে নামকরণের জন্য ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী বীর প্রতীকের বক্তব্যের পর দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আ.লীগের সভাপতি হাজী আবুল কালাম এর পক্ষে জোরালো বক্তব্য তুলে ধরে প্রস্তাবটি পাশ করার দাবি জানান। পরে এ নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়। আলোচনায় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তাসহ উন্নয়ন সমন্বয়সভার সকলে ঐক্যমত পোষন করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24