সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে বিদ্যালয় সমূহে পরিচ্ছিন্ন রাখতে ডাষ্টবিন বিতরণ শুরু জগন্নাথপুরে কমিউনিটি পুলিশিং সভায় পুলিশ সুপার- সুনামগঞ্জের শান্তি শৃঙ্খলা নিশ্চিতে কাজ করতে চাই বিশ্বনাথে পাইপগানসহ গ্রেফতার-১ মাহী বি চৌধুরীকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ ভিডিও কেলেঙ্কারি : জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জগন্নাথপুরে সৈয়দপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে সভা অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন:সভাপতি পঙ্কজ দে,সেক্রেটারী মহিম জগন্নাথপুরে নৌকাবাইচ:এবার সোনার নৌকা,সোনার বৈঠা জিতল কুতুব উদ্দিন তরী জগন্নাথপুরে সড়ক সংস্কার-অবৈধ যান অপসারণের দাবীতে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মালিক,শ্রমিক নেতারদের জগন্নাথপুরে এনজিও সংস্থা আশা’র উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপি ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা ক্যাম্প শুরু

সুনামগঞ্জে পায়ুপথে মদের বোতল ঢুকিয়ে যুবককে হত্যাচেষ্টা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৭
  • ১১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে পায়ুপথে মদের বোতল ঢুকিয়ে এক যুবককে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এই যুবকের নাম মামুন (২৬) মিয়া। তিনি তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট উত্তর ইউনিয়নের লাউড়েরগড় গ্রামের প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হান্নানের ছেলে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় সোমবার দিবাগত রাতে সিলেট এমএজি উসমানি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে অপারেশনের মাধ্যমে কাচের বোতল বের করা হয়েছে। তবে বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তার অবস্থা শংকামুক্ত নয় বলে চিকিৎক জানিয়েছেন।
জানা যায়, রোববার রাতে তাহিরপুর সীমান্তের লাউড়েরগড় বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন মামুন মিয়া। পথে একদল মাতাল সংঘবদ্ধ হয়ে সড়কে যুবক মামুনের পায়ুপথে ভারতীয় অফিসার্স চয়েজ মদের কাচের বোতল ঢুকিয়ে দেয়।
সঙ্গাহীন অবস্থায় সড়কে পড়ে থাকতে দেখে পথচারী ও পরিবারের লোকজন রাতেই সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এক্স-রে করার পর পায়ুপথে বোতল থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক সোমবার রাতে সিলেট এমএমজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সোমবার দিবাগত রাত ২টার দিকে তলপেটে অপারেশনের মাধ্যমে কাচের বোতল বের করে আনতে সক্ষম হন চিকিৎসকরা।

মামুন মিয়ার পরিবার জানায়, একদল মাতাল হত্যার উদ্দেশ্যে পায়ুপথে মদের কাচের বোতল ঢুকিয়ে দিয়েছিল। অপারেশনের পর বোতল বের করে আনা হলেও এখনও মামুন শংকামুক্ত নয়।
তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নন্দন কান্তি ধর জানান, এ বিষয়ে থানায় কেউ অবগত করেনি বা এষনও থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি। তবে তিনি বলেন, এমন ন্যাক্ষারজনক ঘটনা ঘটে থাকলে অবস্যই অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24