মহাভারতের বাংলা অনুবাদক কবি সঞ্জয়ের জন্মস্হানে সংরক্ষনের উদ্যাগ

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রাচীন লাউড় রাজ্যের রাজধানী ছিল বর্তমান সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার লাউড়েরগড় এলাকায়। মহাভারতের বাংলা অনুবাদক কবি সঞ্জয়ের জন্মও হয়েছে এই এলাকায়। তাহিরপুরের বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়নের হলহলিয়া গ্রামে এখনো সেই প্রাচীন রাজ্যের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ রয়েছে। এসব স্থাপনা সংরক্ষণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম ওই এলাকা পরিদর্শন করেন এবং হলহলিয়া গ্রামে প্রাচীন রাজ পরিবারের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ ও জমি চিহ্নিত করে সেখানে লাল পতাকা পুঁতে দেন।
শনিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নিয়ে সেখানে যান। এ সময় স্থানীয় লোকজনও তার সঙ্গে ছিলেন। জেলা প্রশাসক হলহলিয়া গ্রামে লাউড়রাজ্যের নিদর্শনগুলো ঘুরে দেখেন এবং স্থানীয় লোকদের সঙ্গে কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক এ সময় জানান, লাউড়েরগড় এলাকাটি একটি ঐতিহাসিক স্থান ও প্রাচীন জনপদ। এখানে প্রাচীন লাউড় রাজ্যের রাজধানী ছিল। তখনকার সময়ের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ এখনো আছে। হলহলিয়া গ্রামে এখনো প্রাচীন আমলে নির্মিত রাজবাড়ির ধ্বংসাবশেষের মধ্যে দুটি পাকা ফটক, বিভিন্নস্থানে কিছু সীমানা প্রাচীরের অংশ রয়েছে। পাশাপাশি অদ্বৈত মহাপ্রভুর স্মৃতি বিজড়িত কিছু স্থাপনাও রয়েছে পার্শ্ববর্তী ব্রাহ্মণগাঁও গ্রামে। ইতিহাস সংরক্ষণের অংশ হিসেবেই এগুলো রক্ষা করতে হবে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ নেওয়া হবে।
হলহলিয়া গ্রামে রাজবাড়ি এলাকায় ৫ একর ৬৫ শতক জমি আছে। এসব সরকারের সম্পত্তি। এর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ৩ একর ৭২শতক জমি বন্দোবস্ত দেওয়া হয়েছে। এখন আছে এক একর ৯৩ শতক। প্রায় ৬০টি পরিবার রয়েছে এসব জমির ওপর। তারা দীর্ঘদিন থেকেই এখানে বসবাস করে আসছ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» ভিকারুননিসায় হঠাৎ দুদক দল অভিযানে

» ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান

» জেলা আইনজীবি সমিতির নির্বাচন, সভাপতি চাঁন মিয়া, সেক্রেটারী সাহারুল

» জগন্নাথপুর ক্রিকেট এসোসিয়েশনের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় সৈয়দপুর ইয়াংম্যান ক্রিকেট ক্লাবকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ

» সামাদ আজাদের ৯৭ তম জন্মবার্ষিকী তাঁর জন্মভূমি জগন্নাথপুরে পালিত

» জগন্নাথপুরে ঘোড়দৌড় সম্পন্ন: মায়ের আদেশকে হারিয়ে রাজমুকুট চ্যাম্পিয়ান, উৎসুক মানুষের ঢল

» যে ১০ ক্যাটাগরির আবেদনকারী কানাডার যেতে পারবে সহজে

» কাদেরকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বললেন ফখরুল

» ১২ বছর দল না করলে উপজেলায় মনোনয়ন দেবে না আ. লীগ

» জগন্নাথপুরে ভারতীয় নিষিদ্ধ বিড়িসহ র‌্যাবের হাতে আটক-১

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

মহাভারতের বাংলা অনুবাদক কবি সঞ্জয়ের জন্মস্হানে সংরক্ষনের উদ্যাগ

বিশেষ প্রতিনিধি
প্রাচীন লাউড় রাজ্যের রাজধানী ছিল বর্তমান সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার লাউড়েরগড় এলাকায়। মহাভারতের বাংলা অনুবাদক কবি সঞ্জয়ের জন্মও হয়েছে এই এলাকায়। তাহিরপুরের বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়নের হলহলিয়া গ্রামে এখনো সেই প্রাচীন রাজ্যের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ রয়েছে। এসব স্থাপনা সংরক্ষণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম ওই এলাকা পরিদর্শন করেন এবং হলহলিয়া গ্রামে প্রাচীন রাজ পরিবারের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ ও জমি চিহ্নিত করে সেখানে লাল পতাকা পুঁতে দেন।
শনিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নিয়ে সেখানে যান। এ সময় স্থানীয় লোকজনও তার সঙ্গে ছিলেন। জেলা প্রশাসক হলহলিয়া গ্রামে লাউড়রাজ্যের নিদর্শনগুলো ঘুরে দেখেন এবং স্থানীয় লোকদের সঙ্গে কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক এ সময় জানান, লাউড়েরগড় এলাকাটি একটি ঐতিহাসিক স্থান ও প্রাচীন জনপদ। এখানে প্রাচীন লাউড় রাজ্যের রাজধানী ছিল। তখনকার সময়ের বিভিন্ন স্থাপনার ধ্বংসাবশেষ এখনো আছে। হলহলিয়া গ্রামে এখনো প্রাচীন আমলে নির্মিত রাজবাড়ির ধ্বংসাবশেষের মধ্যে দুটি পাকা ফটক, বিভিন্নস্থানে কিছু সীমানা প্রাচীরের অংশ রয়েছে। পাশাপাশি অদ্বৈত মহাপ্রভুর স্মৃতি বিজড়িত কিছু স্থাপনাও রয়েছে পার্শ্ববর্তী ব্রাহ্মণগাঁও গ্রামে। ইতিহাস সংরক্ষণের অংশ হিসেবেই এগুলো রক্ষা করতে হবে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ নেওয়া হবে।
হলহলিয়া গ্রামে রাজবাড়ি এলাকায় ৫ একর ৬৫ শতক জমি আছে। এসব সরকারের সম্পত্তি। এর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ৩ একর ৭২শতক জমি বন্দোবস্ত দেওয়া হয়েছে। এখন আছে এক একর ৯৩ শতক। প্রায় ৬০টি পরিবার রয়েছে এসব জমির ওপর। তারা দীর্ঘদিন থেকেই এখানে বসবাস করে আসছ

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।