1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
  3. ali.jagannathpur@gmail.com : Ali Ahmed : Ali Ahmed
  4. amit.prothomalo@gmail.com : Amit Deb : Amit Deb
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১০ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জে শিক্ষকের যৌন হয়রানির প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৪১৬ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সুনামগঞ্জের হাজী লাল মামুদ উচ্চবিদ্যালয়ের অভিভাবক শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকালে সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নের বড়ঘাট এলাকায় বিদ্যালয়ের মাঠে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, হাজী লাল মামুদ উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক শাহীন উদ্দিনের সাথে এক শিক্ষার্থীর যৌন হয়রানিমূলক ফোনালাপ (অডিও রেকর্ড) স্যোসাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এতে বিদ্যালয়ের সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। এই অপরাধে শিক্ষক শাহীন উদ্দিনকে বিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করাসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।
শিক্ষক শাহীন উদ্দিন ১৯৯৫ সাল থেকে এই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করে আসছেন। তিন মাস আগে বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর সাথে যৌন হয়রানিমূলক একটি ফোন আলাপ হয় সহকারী প্রধান শিক্ষক শাহীন উদ্দিনের। স্যোসাল মিডিয়ায় এই অডিও রেকর্ড ভাইরাল হয় ১০ জানুয়ারি সোমবার।
ফোনালাপে শুনা যায় ওই শিক্ষক বিদ্যালয়ে পড়–য়া শিক্ষার্থীকে কুরুচিপূর্ণ নানা ইঙ্গিত করেন এবং টাকার প্রলোভন দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দেন। শিক্ষার্থী শিক্ষকের এমন কথাগুলো এড়ানোর চেষ্টা করলেও তিনি বারবার তাকে কুপ্রস্তাব দিতে থাকেন।
ফোনালাপ ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অসুস্থ হয়ে পড়েন শিক্ষক শাহীন উদ্দিন।
একাধিক শিক্ষক জানান, এই শিক্ষকের বাড়ি সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলায়। তিনি শহরের কাজীর পয়েন্ট এলাকায় নিজস্ব বাসায় বসবাস করেন। শিক্ষক শাহীন উদ্দিনের পরিবারে স্ত্রী, কলেজ পড়ুয়া এক মেয়ে ও বিদ্যালয়ে পড়–য়া এক ছেলে রয়েছে।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, অভিভাবক অ্যাড. আমিরুল হক, অ্যাড. শহীদুল ইসলাম, ইউপি সদস্য আব্দুস ছুবহান, সাবেক ইউপি সদস্য আলী আহমদ, টুকেরবাজার আব্দুস সাত্তার এন্ড মরিয়ম উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান বাচ্চু, জানিগাঁও আলহাজ্ব জমিরুন নুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রুহুল আমিন, অভিভাবক তফাজ্জুল হক সুমন, মইনুল ইসলাম, পুরান লক্ষণশ্রী গ্রামের ফারুক আহমদ ও শাহীন মিয়া, জগাইরগাঁও গ্রামের বশর মিয়া, অচিন্তপুর গ্রামের আমিনুল হক।
অভিযুক্ত শিক্ষক মো. শাহীন উদ্দিনের মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
হাজী লাল মামুদ উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সোহরাব উদ্দিন বলেন, আমার বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক শাহীন উদ্দিনের দ্বারা যে ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে, আমি এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাই। আমি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিধি মোতাবেক ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করার ব্যবস্থা নেবো। এই ঘটনা স্যোসাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথে আমি ওই শিক্ষককে জিজ্ঞাসা করেছি, তিনি কোনো উত্তর দেন নি। পরবর্তীতে যোগাযোগ করা হলে তাঁর স্ত্রী শিক্ষক শাহীন উদ্দিন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানান। তিনি আরও বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন আকারে জমা দেওয়া হবে।
সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার ইমরান শাহরিয়ার বলেন, হাজী লাল মামুদ উচ্চবিদ্যালয়ের ঘটনা আমি শুনেছি। কিন্তু যারা ভুক্তভোগী তাদের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ দেয়া হয়নি বা মৌখিকভাবে জানানোও হয়নি। পরিবারের কেউ অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি সর্ম্পকে আমার জানা ছিল না। খোঁজ নিয়ে এবং তদন্তের মাধ্যমে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১
Design & Developed By ThemesBazar.Com
%d bloggers like this: