মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১০:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে জুয়া খেলার দায়ে আ.লীগ নেতাসহ চারজনের কারাদণ্ড এরালিয়া বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৭ শিক্ষার্থী ফরম পূরন থেকে বঞ্চিত নতুন সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে জগন্নাথপুরে পরিবহন ধর্মঘট পালন, জনভোগান্তি জগন্নাথপুরে গানে গানে মাতিয়ে গেলেন ‘ক্লোজআপ ওয়ান’র তারকা শিল্পী সালমা আইন শৃঙ্খলা সভা: জগন্নাথপুরে মাদক বিরোধী অভিযান জোরদারের আহবান জগন্নাথপুরে সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার দুই ট্রেনের মুখামুখি সংঘর্ষে নিহত ১৬ রাধারমন দত্ত এ দেশের লোক সংস্কৃতির ভান্ডার কে সমৃদ্ধ করেছেন: জেলা প্রশাসক ‘আওয়ামী লীগে দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল না’ জগন্নাথপুরে মূল্য তালিকা না থাকায় ভ্রাম‌্যমান আদাতের অভিযানে জরিমানা আদায়

রানীগঞ্জ বাজার গণহত্যা এবং যুদ্ধাহত মজম্মিল আলী

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
  • ১৬৪ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
আজ রানীগঞ্জ গনহত্যা দিবস। ৭১ সালের এই দিনে পাক বাহিনী কুশিয়ারা নদীর তীরে রানীগঞ্জ বাজারে গনহত্যা চালিয়ে নির্বিচারে মানুষ হত্যা করেছিল। রানীগঞ্জ গণহত্যার দিনটিকে স্মরন করতে শহীদ স্মৃতি সংসদ পাঠাগার ও কুশিয়ারা ত্রিয়েটারের উদ্যোগে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন কর্মসূচী। এছাড়াও উপজেরা প্রশাসন শহীদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করবে। ইতিহাস মতে, ১৯৭১ সালের ১লা সেপ্টেম্বর (অর্থাৎ ৩১ আগষ্ট শ্রীরামসি গনহত্যার পরদিন) রানীগঞ্জ বাজারে গনহত্যা সংঘটিত হয়। পাক সেনারা শামিত্ম কমিটির সভা ডেকে স্থানীয় রাজাকারদের সহযোগীতায় বাজারের ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষকে কুশিয়ারা নদীর পাড়ে জড়ো করে গুলি করে হত্যা করে লাশ কুশিয়ারায় ভাসিয়ে দেয়। সৌভাগ্যবশত বেঁচে যান মজম্মিল আলী নামে একজন। কিন্তুু পাকসেনাদের গুলি তাঁর পায়ে বিদ্ধ হওয়ায় তার একটি পা হারাতে হয়। পঙ্গুত্ব নিয়ে বেঁচে আছেন তিনি। সেই দিনের কথা উঠলেই তাঁর চোখ চল চল করে পানি বেরিয়ে আসে। বিভিষিকাময় সেই দিনের কথা স্মৃতিচারণ করে মজম্মিল আলী বলেন, ১৯৭১ সালের ১ সেপ্টেম্বর সকাল থেকে বাজারের ব্যবসায়ীরা কর্মব্যসত্ম হয়ে পড়েন ১১ টার দিকে পাক হানাদার বাহিনী কয়েকটি নৌকাযোগে রানীগঞ্জ বাজারে আসে। পাকবাহিনী স্থানীয় রাজাকার কর্মান্ডার আহমদ আলী মনোয়ার আলী ও আব্দুল রাজ্জাকের সহায়তায় বাজারের ব্যবসায়ী ও পাশ্ববর্তী গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে শামিত্ম কমিটির সভার কথা বলে কুশিয়ারা নদীর তীর ঘেঁষে দাঁড়করিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিনি দাবী করেন পাকসেনারা সেদিন কমপক্ষে দুই শতাধিক লোককে হাত বেঁধে নদীর পাড়ে সারিবদ্ধ করে দাঁড় করায়। সেই লাইনে তিনিও ছিলেন। প্রথম গুলির সাথে সাথে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পাকসেনাদের একজন মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য তাকে আবারও তুলে লাইনে দাঁড় করায়। পরের গুলিটি হওয়ার সাথে সাথে তিনি লাফ দেন এতে গুলি তাঁর ডান পায়ের উড়ুতে বিদ্ধ হয় তিনি পড়ে যান নদীতে। পরে কুশিয়ারা নদীতে ডুব দিয়ে কিছু দূর যাওয়ার পর একটি ঝুলমত্ম ল্যাটিনের পাশে আরও কিছু মানুষের আর্তনাদ শুনতে পান। সেখান থেকে এলাকার লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসকরা গুলিবিদ্ধ তাঁর পা কেটে ফেলেন । রক্তে রঞ্জিত রানীগঞ্জ বাজার ও কুশিয়ারা নদী আজও স্মৃতি হয়ে আছে। রানীগঞ্জ বাজার গনহত্যার শিকার শহীদের স্মরনে একটি স্মৃতি ফলক নির্মাণ করা হয়েছে এতে ৪০ জন শহীদের নাম সনাক্ত করে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। আহতদের তালিকায় তাঁর নামও রয়েছে। দেশ স্বাধীনের পর ১৯৭২ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে তাকে পাঁচশত টাকার চেক প্রদান করেন। যার চেক নং (সিএ০২৩৩৮৪)। ১৯৮০ সালে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মাসিক তিনশত টাকা হিসেবে সহায়তা পেয়েছিলেন। বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় তাঁর নাম নেই। মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে কোন সহায়তা পাননা। স্ত্রী আট ছেলে মেয়ে নিয়ে অভাব অনটন নিয়ে খুব কষ্টে দিনযাপন করছেন। রানীগঞ্জ বাজারে একটি রেষ্টুরেন্ট ব্যবসা রয়েছে। এ রেষ্টুরেন্টের আয় দিয়ে কোন রকম খেয়ে না খেয়ে স্ত্রী সমত্মান নিয়ে জীবন যাপন করছেন। জীবনের শেষ সায়েন্সে এসে তাঁর দাবী একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি স্বরূপ তালিকায় নাম অমত্মভূক্ত করা। এর পাশাপাশি জোরালো দাবী যাদের কারণে আজ তাঁর এ অবস্থা সেই যুদ্ধাপরাধী রাজাকারদের বিচার দেখে যাওয়া।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ বলেন, রানীগঞ্জ গনহত্যার রাজসাক্ষী যোদ্ধাহত মজম্মিল আলী রানীগঞ্জবাসীর প্রেরনা হয়ে আমাদের মধ্যে আছেন। দেশের জন্য যারা জীবন দিতে গিয়েছিলেন তাদের একজন হিসেবে তিনি ইতিহাসে নাম লিখিয়েছেন। আমরা রানীগঞ্জ গনহত্যার সকল শহীদ ও যুদ্ধাহতদের শ্রদ্ধা জানাই।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24